৯:১০ অপরাহ্ণ - বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর , ২০১৮
Breaking News
Download http://bigtheme.net/joomla Free Templates Joomla! 3
Home / রাজনীতি / আওয়ামী লীগ / জিয়াউর রহমানকে সাবেক রাষ্ট্রপতি বলা যাবে না, হাইকোর্ট সে পথ বন্ধ করে দিয়েছে : প্রধানমন্ত্রী

জিয়াউর রহমানকে সাবেক রাষ্ট্রপতি বলা যাবে না, হাইকোর্ট সে পথ বন্ধ করে দিয়েছে : প্রধানমন্ত্রী

hasina2  2611.15ঢাকা, ২৬ নভেম্বর ২০১৫ (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): আজ রাজধানীর গণভবনে আয়োজিত পৌরসভা নির্বাচনে প্রার্থী ঠিক করতে দলের কার্যনির্বাহী কমিটির সভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বিএনপির জন্ম তো গণতন্ত্রের মধ্যদিয়ে হয়নি। দলটির জন্ম হয়েছে ক্যান্টনমেন্টে। ঠিক যেমনভাবে আইয়ুব খান ক্ষমতা দখল করেছিল। জিয়াউর রহমানকে এখন আর সাবেক রাষ্ট্রপতি বলা যাবে না। কেননা হাইকোর্ট সে পথ বন্ধ করে দিয়েছে। উচ্চ আদালতের এই আদেশ আমাদের সবাইকে মানতে হবে।

প্রধানমন্ত্রী তাঁর বক্তৃতায় বলেন, পৌরসভা নির্বাচন দেশের রাজনৈতিক দলগুলোর জন্য একটি সুযোগ। সবাই এটাকে কাজে লাগাতে পারে। এই প্রথম পৌরসভা নির্বাচন দলীয় ব্যানারে হচ্ছে।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আওয়ামী লীগ সব সময় নির্বাচনমুখী দল। এবার একটু দেখতে চাই নিজ দলের মার্কা নিয়ে বিএনপি নির্বাচনে অংশ নেয় কিনা। এটি তাদের জন্য একটি বড় সুযোগ।

তিনি বলেন, স্থানীয় সরকার পর্যন্ত যদি দলীয়ভাবে নির্বাচন সব সময় হতো তাহলে রাজনৈতিক দলগুলো আরও শক্তিশালী হতো। এতে প্রতিদ্বন্দ্বিতা বাড়তো। ‍অন্যদিকে প্রার্থীরাও ভোটারদের স্বার্থের দিকে খেয়াল রাখতে বেশি মন দিতেন।

শেখ হাসিনা কতিপয় পত্রিকার সমালোচনা করে বলেন, এর আগেও একই দিন একাধিক ব্যক্তির ফাঁসি কার্যকর করা হয়েছে।একদিনে জোড়া ফাঁসি কার্যকর এটাই প্রথম নয়। এর আগেও হয়েছে।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘২০১৪ সালের নির্বাচনে বিএনপি অংশগ্রহণ করে নাই, বয়কট করেছে। শুধু বয়কট করে নাই, বয়কট করার নামে মানুষ হত্যা করেছে। গাড়ি ভাঙচুর করা থেকে শুরু করে নির্বাচন কেন্দ্র হিসেবে ব্যবহৃত ৫০০ স্কুল-কলেজে হামলা করেছে। রীতিমতো সন্ত্রাসী কার্যক্রম চালিয়েছে। আল্লাহর রহমতে জনগণ আমাদের সঙ্গে ছিল বলে তারা প্রতিহত করতে পারে নাই। এমনকি ৪০ থেকে ৪৫ শতাংশ ভোট পড়েছে। যেটা, উন্নত দেশে যে পরিমাণ ভোট পড়ে, তার চেয়ে বেশি পড়েছে।’

বিএনপির উদ্দেশে শেখ হাসিনা বলেন, ‘তাদের মধ্যে একটা দ্বৈততা আছে। একমুখে বলে আওয়ামী লীগের অধীনের নির্বাচন করবে না। আবার অপরদিকে দেখা যায়, স্থানীয় সরকার নির্বাচনে সব সময় অংশগ্রহণ করছে, দলীয় প্রার্থী দিচ্ছে বা সমর্থন দিচ্ছে। বিএনপি নির্বাচনে ঠিকই অংশগ্রহণ করছে, স্থানীয় সরকার নির্বাচনে। শুধু জাতীয় ও উপনির্বাচন হলে সেখানে বিরত থাকছে। আর বাইরে বলে বেড়াচ্ছে নির্বাচনে অংশ নেয়নি, নির্বাচন ঠিক হচ্ছে না। এবার তো দলীয় ভিত্তিতে হচ্ছে। এবার একটু দেখতে চাই। নিজ নিজ মার্কা নিয়ে এখন নির্বাচনটা করে কি করে না, সেটা দেখার বিষয় আছে। নির্বাচনে অংশগ্রহণ করলে আর তারা বলতে পারবে না নির্বাচনে অংশগ্রহণ করব না। কারণ দলীয় প্রতীক নিয়ে তারা তো করল। আর না করলে এটা তাদের দলের জন্য ক্ষতি। এখন তারা কোন পথে যাবে, এটা তাদের বিষয়। এটা আমাদের বিষয় না।’

জিয়াউর রহমানের আমলে তো গণফাঁসি কার্যকরের করা হয়েছে। আর আমাদের আমলে তো মানবতাবিরোধীদেরকে বিচারের মাধ্যমে ফাঁসি দেয়া হয়েছে। এই মানবতাবিরোধীরা একাত্তরে যে বর্বরতা চালিয়েছে তা আজ অনেকেই ভুলে গেছে। সেই নির্যতন তো ভোলার নয়। নতুন প্রজন্মকে পড়াশুনা করতে হবে।জিয়াউর রহমান সরকার স্বাধীনতা বিরোধীদের ক্ষমতায় বসিয়ে পুরস্কৃত করেছিলেন। জিয়ার স্ত্রী খালেদা জিয়াও স্বাধীনতা বিরোধীদের গাড়িতে পতাকা উঠিয়ে দেয়া হয়েছে। দেশের মানুষের প্রতি এদের কোনো দরদ নেই। আর দরদ থাকতেও পারে না। থাকার কথাও নয়।

দলীয় সভানেত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে সভায় আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলী, উপদেষ্টা পরিষদ, সম্পাদকমণ্ডলীসহ শীর্ষস্থানীয় নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

অন্যরা য়া পড়ছে...

Loading...



চেক

বিকল্পের সন্ধানে কোটা বাতিলের প্রজ্ঞাপনে দেরি হচ্ছে : ওবায়দুল কাদের

ঢাকা, ১৩ মে ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঘোষণা অনুযায়ী সরকারি চাকরিতে কোটা …

স্যাটেলাইট মহাকাশে ঘোরায় বিএনপির মাথাও ঘুরছে : মোহাম্মদ নাসিম

ফেনী, ১৩ মে ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ মহাকাশে উৎক্ষেপণ হওয়ায় বিএনপির মাথাও ঘুরছে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

My title page contents