৯:১৩ অপরাহ্ণ - সোমবার, ২৪ জুন , ২০১৯
Breaking News
Download http://bigtheme.net/joomla Free Templates Joomla! 3
Home / জরুরী সংবাদ / চাকরি হারানোর ভয়ে নির্বাচন কমিশন প্রধানমন্ত্রীর ব্যাপারে ইসি নিশ্চুপ : রুহুল কবির রিজভী

চাকরি হারানোর ভয়ে নির্বাচন কমিশন প্রধানমন্ত্রীর ব্যাপারে ইসি নিশ্চুপ : রুহুল কবির রিজভী

ঢাকা, ০৪ মার্চ ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): আজ রবিবার নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে নির্বাচনী আইন ভঙ্গ করে প্রধানমন্ত্রী প্রচার-প্রচারণা চালাচ্ছেন দাবি করে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, ‘চাকরি হারানোর ভয়ে নির্বাচন কমিশন প্রধানমন্ত্রীর নির্বাচনী আচরণবিধি ভঙ্গের ব্যাপারে নিশ্চুপ থাকতেই হবে। কারণ প্রতাপশালী প্রধানমন্ত্রীর কোনো আইন মানার দরকার নেই।’

রিজভী বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং সরকারের মন্ত্রী থেকে শুরু করে আওয়ামী লীগের নেতারা নির্বাচনকে সামনে রেখে সব নিয়ম-নীতি, নির্বাচনী বিধি-বিধান উপেক্ষা করে রাষ্ট্রীয় খরচে ইতিমধ্যে কোমর বেঁধে প্রচারাভিযানে নেমে পড়েছেন। গতকালও প্রধানমন্ত্রী খুলনায় এক সভায় বক্তৃতাকালে জনগণের কাছে নৌকা মার্কায় ভোট চেয়েছেন। নির্বাচনী আইন ভঙ্গ করে প্রধানমন্ত্রীর এই একতরফা নির্বাচনী প্রচারের বিষয়টি নির্বাচন কমিশনকে অবহিত করলেও সবচেয়ে আশ্চর্যের বিষয় হচ্ছে নির্বাচন কমিশন সচিব এ বিষয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে বললেন, তফসিল ঘোষণার আগে এ নিয়ে কমিশনের কিছু করার নেই।’

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব বলেন, ‘করার থাকবে কেন? কিছু করার থাকলে তো কমিশনের উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের পরিণতি হবে সাবেক প্রধান বিচারপতি এস কে সিনহার মতো। চাকরি হারানোর ভয়ে নির্বাচন কমিশন প্রধানমন্ত্রীর নির্বাচনী আচরণবিধি ভঙ্গের ব্যাপারে নিশ্চুপই থাকতেই হবে। প্রতাপশালী প্রধানমন্ত্রীর কোনো আইন মানার দরকার নেই।’

রিজভী বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর নিজেদের সততার গল্প ঠাকুরমার ঝুলিকেও হার মানায়। প্রধানমন্ত্রী এমন রাষ্ট্রব্যবস্থা কায়েম করেছেন যেখানে তিনি সব আইনের ঊর্ধ্বে অবস্থান করেন। আত্মসম্মানহীন একজন নিপীড়কের হাতে যদি রাষ্ট্র থাকে সেখানে রাষ্ট্রের অন্য কর্মকর্তারা প্রাণভয়ে আতঙ্কের মধ্যে দিন কাটায়। সাংবাদিক ভাই-বোনেরা, ডাহা মিথ্যা কথায় পারদর্শী আওয়ামী লীগ আইনের শাসনের শত্রু। গণতন্ত্র হত্যাই হচ্ছে আওয়ামী লীগের জন্মদাগ।’

একতরফা একচেটিয়া নির্বাচনের চক্রান্তের পথে এগিয়ে যাওয়ার জন্যই সরকার বেগম খালেদা জিয়াকে জাল জালিয়াতির নথির ওপর ভিত্তি করে সাজানো মামলায় সাজা দিয়ে কারারুদ্ধ করে নির্বাচনী ফাঁকা মাঠে গোল দিতে চায় বলে মনে করেন রুহুল কবির রিজভী।

তিনি বলেন, ‘হিংসার সাধ মেটাতেই বেগম জিয়াকে কারারুদ্ধ করা হয়েছে। অর্থাৎ আইনকে আওয়ামীকরণ করে দেশনেত্রীকে নির্বাচন থেকে দূরে রাখার পাঁয়তারা করছে সরকার। বেগম জিয়ার নেতৃত্বে বিএনপি নির্বাচনী মাঠে থাকলে তো শেখ হাসিনার আওয়ামী লীগ কঠিন অস্তিত্ব সংকটে পড়বে। সেজন্যই বেগম জিয়াকে আটকাতে এই অবৈধ সরকার নানামুখি কারসাজিতে লিপ্ত রয়েছে। তবে আমরা আবারও সুষ্পষ্টভাবে বলতে চাই-দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে ছাড়া বাংলাদেশে কোনো নির্বাচন হতে দেয়া হবে না।’

রিজভী বলেন, ‘জনতার মিছিল চারিদিক থেকে নিঃশব্দ পায়ে এগিয়ে আসছে। জনগণকে ধোঁকা দেয়ার বিদ্যা আওয়ামী লীগ যেভাবে রপ্ত করেছে সেই বিদ্যা মানুষ ধরে ফেলেছে। শেখ হাসিনার উচ্চাভিলাসের কাছে কেউ নতজানু হবে না। আওয়ামী একতরফা নির্বাচনের বিজয় মুকুট জনগণ ধুলোয় লুটিয়ে দেবে।’

তিনি অভিযোগ করে বলেন, ‘বর্তমান ভোটারবিহীন সরকার নির্বাচনী মাঠ অসমতল রাখার জন্য দেশব্যাপী বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতাসহ হাজার হাজার নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার করে কারাগারে পুরে রেখেছে, গ্রেপ্তারের পর রিমান্ডের নামে চালানো হচ্ছে অমানুষিক নির্যাতন।’

বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির তথ্য বিষয়ক সম্পাদক আজিজুল বারী হেলাল, সহ-গণশিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক আনিসুর রহমান তালুকদার খোকন এবং জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল সভাপতি রাজিব আহসানকে রিমান্ডে জিজ্ঞাসাবাদের নামে শারীরিক ও মানসিকভাবে নির্যাতন করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেন রিজভী। বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলালকে কাশিপুর-৪ হাই সিকিউরিটি জেলের একটি সংকীর্ণ নির্জন কক্ষে আবদ্ধ করে রাখা হয়েছে বলেও অভিযোগ করেন। তিনি অবিলম্বে এসব নেতার মুক্তি দাবি করেন।

অন্যরা য়া পড়ছে...

Loading...



চেক

সকল ধর্ম ও বর্ণ নির্বিশেষে সকলকে উন্নয়নের এই ধারা অব্যাহত রাখতে হবে : রাষ্ট্রপতি

ঢাকা, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): রাষ্ট্রপতি মো: আবদুল হামিদ দেশের শান্তি ও অগ্রগতি …

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওমরাহ পালন

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বৃহস্পতিবার রাতে এখানে পবিত্র …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

My title page contents