১০:৫৮ অপরাহ্ণ - সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর , ২০১৮
Breaking News
Download http://bigtheme.net/joomla Free Templates Joomla! 3
Home / রাজনীতি / আওয়ামী লীগ / এ মাসের মধ্যেই পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা হতে পারে : ছাত্রলীগ সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ

এ মাসের মধ্যেই পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা হতে পারে : ছাত্রলীগ সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ

chattrolig    17.11.15ঢাকা, ১৭ নভেম্বর ২০১৫ (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): আওয়ামী লীগের ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠন ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা হচ্ছে এ মাসেই।  কমিটিতে স্থান পেতে দৌড়ঝাঁপ  করছেন পদপ্রত্যাশী নেতাকর্মীরা।

সংগঠন সূত্রে জানা গেছে, কেন্দ্রীয় কমিটির পাশাপাশি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ এবং ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণারও প্রস্তুতি চলছে। এ ছাড়া  ঘোষণা করা হতে পারে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শাখার নতুন কমিটি।

চলতি বছরের ২৬ জুলাই অনুষ্ঠিত ২৮তম জাতীয় সম্মেলনে কাউন্সিলরদের ভোটে ছাত্রলীগের সভাপতি নির্বাচিত হন সাইফুর রহমান সোহাগ এবং সাধারণ সম্পাদক হন এস এম জাকির হোসাইন।  দায়িত্ব পাওয়ার চার মাসের মধ্যে তারা ঘোষণা করতে যাচ্ছেন সংগঠনটির পূর্ণাঙ্গ কমিটি।

এর আগে ২০১১ সালের ১১ জুলাই ২৭তম সম্মেলনে ক্ষমতাসীন দলের এই ছাত্রসংগঠনের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছিলেন যথাক্রমে বদিউজ্জামান সোহাগ ও সিদ্দিকী নাজমুল আলম।  তারা চার মাস শেষে ১৪ নভেম্বর ২২০ সদস্যের কমিটি ঘোষণা করেছিলেন।

ছাত্রলীগের একটি সূত্র জানায়,  এবার ছাত্রলীগের গঠনতন্ত্র অনুসরণে পূর্ণাঙ্গ কমিটি করা হবে। গঠনতন্ত্রে সভাপতি ১ জন, সহ-সভাপতি ৪১ জন,  সাধারণ সম্পাদক ১ জন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ১০ জন,  সাংগঠনিক সম্পাদক ১০ জনসহ মোট ২৫১ সদস্যের কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটি গঠনের কথা বলা আছে। সেভাবেই কমিটি ঘোষণার প্রস্তুতি চলছে।

তবে একটি সূত্র জানান, নির্বাচিত হওয়ার পর ছাত্রলীগের বর্তমান সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক প্রথম দিকে পূর্ণাঙ্গ কমিটির পক্ষ ছিলেন না। নিজেদের পছন্দের  ১২১ বা ১৫১ সদস্যের কমিটি করতে চেয়েছিলেন তারা। কিন্তু ‘বড়ভাই’দের (সাবেক কমিটির নেতা) চাপে শেষ পর্যন্ত পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণার প্রস্তুতি নিচ্ছে বর্তমান কমিটি।

ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণার সময় যতই ঘনিয়ে আসছে, দুই শীর্ষ নেতাকে ঘিরে ততই স্পষ্ট হচ্ছে দুটি বলয়।  সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে ঘিরে এই দুই আলাদা বলয়ে ভিড় করছেন নিজ নিজ অনুসারীরা।  তারা সবাই পদপ্রত্যাশী।  নেতার পিছু লেগে থাকছেন সারাক্ষণ।

এ রকমই চিত্র দেখা গেছে সম্প্রতি সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগের ঝিনাইদহ সফর এবং সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসাইনের কুড়িগ্রাম, মৌলভীবাজার, জামালপুর ও সর্বশেষ বগুড়া সফরে। এ সময় তাদের সঙ্গী হন বিপুলসংখ্যক পদপ্রত্যাশী নেতাকর্মী।

সভাপতির যাত্রায় অন্যান্যের মধ্যে ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সাধারণ সম্পাদক মোতাহের হোসেন প্রিন্স, মহানগর দক্ষিণের সাধারণ সম্পাদক সাব্বির আহমেদ প্রমুখ। অন্যদিকে সাধারণ সম্পাদকের যাত্রায় নিয়মিত সঙ্গী ছিলেন ঢাবি শাখার সভাপতি আবিদ আল হাসান, ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণের সভাপতি মিজানুর রহমান ও বায়জেদি আহমেদ।

এ ছাড়া ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যান্টিন, টিএসসি, বঙ্গবন্ধু এভিনিউ আর সোহাগ ও জাকিরের বাসার নিচে পদপ্রত্যাশী নেতাদের ভিড় এখন নিয়মিত চিত্র।

একইভাবে অনেক নেতাকর্মী ধরনা দিচ্ছেন ছাত্রলীগের  বড়ভাইদের  কাছে। কয়েকজন সাবেক নেতার সঙ্গে আলাপ করে জানা গেছে, নতুন পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠনে বেশ প্রভাব থাকে সাবেক কমিটির নেতাদের।  তাই পদপ্রত্যাশীরা বড়ভাইদের কাছেও ছুটে যান।  তারা বলছেন, বড়ভাইদের আশীর্বাদ পেলে ঠিকই ঠাঁই মিলবে পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে।

এদিকে ছাত্রলীগ সূত্রে জানা গেছে, বিগত কেন্দ্রীয় কমিটির যেসব নেতার বয়সের শর্ত পূরণ হবে,  তাদেরও রাখা হবে এবারের কমিটিতে।  এ ছাড়া মাঠপর্যায়ে যেসব নেতাকর্মী বঙ্গবন্ধুর আদর্শে দলীয় কর্মকাণ্ডে সক্রিয় ছিলেন, মূল্যায়ন করা হবে তাদের।

কমিটি ঘোষণার বিষয়ে ছাত্রলীগের সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ বলেন, “এ মাসের মধ্যেই পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা হতে পারে।  সে অনুযায়ী কমিটি গঠনের কাজ চলছে।” নেতিবাচক কাজের জন্য অভিযুক্ত, এমন কাউকে কমিটিতে স্থান দেওয়া হবে না বলে জানান তিনি।

সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসাইন বলেন, “পদপ্রত্যাশীদের সিভি জমা আছে আমাদের কাছে।  আমরা তা দেখে মূল্যায়ন করছি।  আশা করছি শিগগিরই পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করতে পারব।”

কমিটি গঠনে সাবেক বড়ভাইদের প্রভাবের বিষয়টি অস্বীকার করেন সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক দুজনই।  সভাপতি সোহাগ বলেন, “ছাত্রলীগে  তো কোনো সিন্ডিকেট নেই।  প্রভাব থাকার প্রশ্ন উঠছে  কেন।“

সোহাগ বলেন, “আপনারা যদি সিন্ডিকেটের কথা বলেন, তাহলে বলব আমাদের সিন্ডিকেট হলো আমাদের একমাত্র আশ্রয়স্থল দেশরত্ন শেখ হাসিনা।  তার বাইরে আমাদের কোনো সিন্ডিকেট নেই।”

ছাত্রলীগে কোনো ধরনের সিন্ডিকেটের কথা নাকচ করে সম্পাদক জাকির বলেন,  “আমরা স্বাধীনভাবেই আমাদের কার্যক্রম পরিচালনা করছি।”

প্রসঙ্গত, ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির আগে ঘোষণা করা হয় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এবং ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের নাম।  কিন্তু ইউনিট তিনটির একটিও এখন পর্যন্ত পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করতে পারেনি। সৌজন্যে ঢাকাটাইমস

অন্যরা য়া পড়ছে...

Loading...



চেক

বিকল্পের সন্ধানে কোটা বাতিলের প্রজ্ঞাপনে দেরি হচ্ছে : ওবায়দুল কাদের

ঢাকা, ১৩ মে ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঘোষণা অনুযায়ী সরকারি চাকরিতে কোটা …

স্যাটেলাইট মহাকাশে ঘোরায় বিএনপির মাথাও ঘুরছে : মোহাম্মদ নাসিম

ফেনী, ১৩ মে ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ মহাকাশে উৎক্ষেপণ হওয়ায় বিএনপির মাথাও ঘুরছে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

My title page contents