১২:৪৯ অপরাহ্ণ - শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর , ২০১৮
Breaking News
Download http://bigtheme.net/joomla Free Templates Joomla! 3
Home / জরুরী সংবাদ / নারীর ক্ষমতায়ন নিশ্চিত করতে সংসদে নারীর প্রতিনিধিত্ব বাড়াতে হবে

নারীর ক্ষমতায়ন নিশ্চিত করতে সংসদে নারীর প্রতিনিধিত্ব বাড়াতে হবে

ঢাকা, ২৮ নভেম্বর, ২০১৭ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম):  আজ রাজধানীর একটি হোটেলে ডেমোক্রেসি ইন্টারন্যাশনাল আয়োজিত এই গোলটেবিল আলোচনায় ‘নির্বাচনে নারী নেতৃত্বের অগ্রগতি’ শীর্ষক আজ এক গোলটেবিল আলোচনায় বক্তারা নারীর ক্ষমতায়ন নিশ্চিত করতে শুধু রাজনৈতিক দলে নয়, জাতীয় সংসদেও নারীর প্রতিনিধিত্ব বাড়ানোর উপর গুরুত্বারোপ করেছেন। তারা সংসদে সাধারণ আসনে সরাসরি নির্বাচনের মাধ্যমে নারীর প্রতিনিধিত্ব বাড়াতে রাজনৈতিক দল থেকে কমপক্ষে ১৫ শতাংশ নারীর মনোনয়ন বাধ্যতামূলক করে তা নির্বাচনী আইনে অন্তর্ভূক্ত করার সুপারিশ করেন।

আলোচনায় বিশেষ অতিথি ছিলেন ঢাকায় নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত মার্শা ব্লুম বার্নিকাট। প্যানেল আলোচক ছিলেন-প্রধান নির্বাচন কমিশনার খান মো. নূরুল হুদা, প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচ টি ইমাম, আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আব্দুল মইন খান ও আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী।

এ সময় আওয়ামী লীগ ও বিএনপির নারী নেত্রীরাও নির্বাচনে নারীর প্রতিনিধিত্ব বাড়ানোর বিষয়ে তাদের মতামত ও সুপারিশ তুলে ধরেন। অনুষ্ঠানে ১৫০জন নারী নেত্রী অংশ নেন।

মার্শা ব্লুম বার্নিকাট বলেন, বাংলাদেশের গণতান্ত্রিক অগ্রযাত্রায় নারীর অবদান গুরুত্বপূর্ণ। শুধু রাজনৈতিক ক্ষেত্রে নয়, সকল পেশার নাগরিকদের তাদের অগ্রযাত্রার জন্য এক সাথে কাজ করতে হবে।

তিনি বলেন, কয়েকটি রাজনৈতিক দল নির্বাচনী ব্যবস্থায় নারীদের সর্বাত্মক অংশগ্রহণ বিভিন্ন কারণে নিরুৎসাহিত করে থাকে। তারা তাদের দলের নেতৃত্বের পদমর্যাদার ক্ষেত্রে শূন্য সংখ্যক নারী প্রতিনিধিত্ব রাখে।

বার্নিকাট বলেন, একটি দৃঢ় গণতান্ত্রিক সমাজে লিঙ্গভিত্তিক সহিংসতা এবং সব ধরনের রাজনৈতিক সহিংসতার কোন স্থান নেই। অর্থাৎ বাংলাদেশের গণতন্ত্রে সহিংসতার কোন স্থান নেই। স্বাধীন ও শান্তিপূর্ণ অংশগ্রহণমূলক নির্বাচনের ফলাফল ভোটারদের কাছে অনেক বেশি আস্থাশীল হবে। তিনি বলেন, গণতন্ত্র মানে ভ্যালট বাক্সে ভোট দেয়া নয়। এরমধ্যে রয়েছে প্রাক নির্বাচন এবং নির্বাচন পরবর্তী সময়। একটি দৃঢ় গণতন্ত্রে নাগরিকদের স্বাধীনভাবে এবং শান্তিপূর্ণভাবে তাদের প্রার্থীর জন্য প্রচারণা চালাতে পারা উচিত।

তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্র রাজনৈতিক দল, তরুণ ও নারী নেতৃত্বের সঙ্গে অন্তর্ভূক্তিকরণ রাজনীতি নিয়ে কাজ করছে। বাংলাদেশের গণতন্ত্রকে দৃঢ় করতে নারীদের নিরাপদ অংশগ্রহণ খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

প্রধান নির্বাচন কমিশনার খান মো. নূরুল হুদা বলেন, নারী নেতৃত্বে বিকাশে বাংলাদেশ ইউনিক অবস্থানে রয়েছে। নারীর ক্ষমতায়নের দিক থেকে বাংলাদেশ বিশ্বের অনেক উন্নত দেশ থেকেও এগিয়ে রয়েছে।

তিনি বলেন, রাজনৈতিক দলের কমিটিতে ৩৩ শতাংশ নারীর অন্তর্ভূক্তি নিশ্চিত করার বিষয়টি নির্বাচন কমিশন গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ করছে। ইতোমধ্যে প্রত্যেকটি দলকে চিঠি দিয়ে এ ব্যাপারে অগ্রগতি জানতে চাওয়া হয়েছে।

এইচ টি ইমাম বলেন, বাংলাদেশের সকল পর্যায়ের নির্বাচনে নারীর অংশগ্রহণ উল্লেখযোগ্য হারে বেড়েছে। আওয়ামী লীগ দলীয় মনোনয়নের ক্ষেত্রে তৃণমূলের মতামতকে প্রাধান্য দিয়ে থাকে। এটি গণতন্ত্রকে সুসংহত করে। তৃণমূলে মনোনয়নের ক্ষেত্রে নারীর মতামতকে প্রাধান্য দিতে হবে। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের কমিটিতে ইতোমধ্যে ২০ শতাংশ নারীর প্রতিনিধিত্ব নিশ্চিত করা হয়েছে। কমিশনের বেধে দেয়া সময় ২০২০ সালের মধ্যে শতভাগে উন্নীত হবে। নারীর ক্ষমতায়নে গুরুত্ব দিয়ে সরকার জাতীয় বাজেটে বরাদ্দ বাড়িয়েছে। এসডিজি লক্ষ্যমাত্রার একটি অন্যতম বিষয় হচ্ছে নারীর ক্ষমতায়ন।

ড. মইন খান বলেন, সংসদে ও রাজনৈতিক দলে নারীর অংশগ্রহণ বাড়াতে হলে আমাদের মানসিকতার পরিবর্তন করতে হবে। বর্তমানে সংরক্ষিত আসন বাদ দিলে সংসদে নারীর প্রতিনিধিত্ব ৫ শতাংশ। দেশের সার্বিক উন্নয়নেরজন্য এই অবস্থার পরিবর্তন করতে হবে। রাজনৈতিক দলগুলোকেই এ ব্যাপারে ভূমিকা নিতে হবে।

অন্যরা য়া পড়ছে...

Loading...



চেক

বিকল্পের সন্ধানে কোটা বাতিলের প্রজ্ঞাপনে দেরি হচ্ছে : ওবায়দুল কাদের

ঢাকা, ১৩ মে ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঘোষণা অনুযায়ী সরকারি চাকরিতে কোটা …

স্যাটেলাইট মহাকাশে ঘোরায় বিএনপির মাথাও ঘুরছে : মোহাম্মদ নাসিম

ফেনী, ১৩ মে ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ মহাকাশে উৎক্ষেপণ হওয়ায় বিএনপির মাথাও ঘুরছে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

My title page contents