৮:০৭ পূর্বাহ্ণ - শনিবার, ১৭ নভেম্বর , ২০১৮
Breaking News
Download http://bigtheme.net/joomla Free Templates Joomla! 3
Home / জরুরী সংবাদ / বরিশালে জন্মভিটায় ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের বিধানসভার স্পিকার

বরিশালে জন্মভিটায় ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের বিধানসভার স্পিকার

বরিশাল, ০৩ নভেম্বর, ২০১৭ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): ১৯৫০ এর পর বাংলাদেশ ছেড়ে ভারতে চলে যায় ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের বিধানসভার স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়ের পরিবার। তখন মাত্র ৪/৫ বছর বয়স ছিল তাঁর। পশ্চিমবঙ্গেই তাঁর বেড়ে ওঠা। শিশুকালে ছেড়ে যাওয়া জন্মভিটা দেখতে ৬৭ বছর পর বরিশালে ছুটে এসেছেন তিনি। খুঁজে পেয়েছেন তার জন্মের সময় হাসপাতালের রেজিস্ট্রার খাতাটিও। শুক্রবার সকালে তিনি শিশুকালের স্মৃতি খুঁজতে বের হন বরিশাল নগরীতে। প্রথমেই তিনি নগরীর জীবনানন্দ দাশ সড়ক সংলগ্ন সেন্ট অ্যানেস মেডিকেল সেন্টারে পরিদর্শনে যান। সেখানেই তিনি জন্মগ্রহণ করেছিলেন।

সেন্টারটি পরিদর্শনের পর সেখানকার সেবিকাদের সহযোগিতায় নিজের জন্ম রেজিস্ট্রারটিও খুঁজে পান তিনি। এসময় তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘দীর্ঘদিনের প্রতীক্ষার অবসান হলো আজ এই ডগলাস বোর্ডিং নার্সিং হোমে (বর্তমানে সেন্ট অ্যানেস মেডিকেল সেন্টার) এসে। যেখানে আমার এবং আমার পরিবারের অনেকে জন্মগ্রহণ করেছে। জন্মস্থানে আসার অনুভূতিই আলাদা। যেটা বলে ব্যক্ত করা সম্ভব নয়।’

কিছুক্ষণ স্মৃতিচারণ করে সেখান থেকে চলে যান সরকারি বরিশাল কলেজে। কলেজটির দীর্ঘ বছরের পুরনো তমাল গাছটিই ছিল তার মূল আকর্ষণ। তমাল গাছের নিচেই কিছুক্ষণ সময় কাটান তিনি। এরপরেই স্ত্রী নন্দিতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিয়ে ছুটে যান নগরীর ঐতিহ্যবাহী সরকারি ব্রজমোহন কলেজ সংলগ্ন নিজের পৈতৃক ভিটায়। তার বড় বোনের কাছে তাদের এখানে বাড়ি থাকার কথা শুনেছেন। বড় বোনের কথা অনুযায়ী কলেজের শহীদ মিনার গেটের বিপরীতে তার বাড়িটি ঘুরে দেখেন। তবে সেই বাড়ি দেশত্যাগের সময় বিক্রি করে দিয়েছিলেন বলে জানিয়েছেন স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়। পরবর্তী সময়ে তিনি আগৈলঝাড়ার গৈলা মনসা মন্দির পরিদর্শনে যান।

এদিকে বৃহস্পতিবার রাতে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রীর সাথে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর দিদি-বোনের সম্পর্ক। সে সম্পর্কটা বজায় থাকবে এটা আমি বিশ্বাস করি। পশ্চিমবঙ্গ এবং বাংলাদেশের পারস্পরিক স্বার্থ বিষয়ে সেরকম কোনো মতবিরোধ আছে বলে আমার মনে হয় না। মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি চান বাংলাদেশের মানুষ সুখে থাকুক, তারা শান্তিতে থাকুক। তাদের আপদে-বিপদে পশ্চিমবঙ্গের সহানুভূতি, সহযোগিতা থাকবে।’

বিধানসভার স্পিকার বলেন, ‘তিস্তার বিষয়টি ন্যাশনাল ম্যাটার এটার বিষয়ে আমাদের রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী যা বলার বলেছেন এবং মিয়ানমারের রোহিঙ্গা ইস্যুতেও মুখ্যমন্ত্রীর দৃষ্টিভঙ্গি খুব পরিষ্কার, তিনি বলেছেন এটা মানবিক দৃষ্টিভঙ্গি দিয়ে দেখা উচিত। কেন্দ্রীয় সরকার কী করবে বা না করবে সেটা তাদের ব্যাপার।’

স্পিকার বলেন, ‘আমার ব্যক্তিগত মতামত- বাংলা ভাষাকে সমৃদ্ধ করার জন্য বাংলাদেশ অনেক এগিয়ে রয়েছে, আমরা জানি বাংলা ভাষাকে স্বীকৃতি দেয়ার জন্য যে লড়াই আমাদের বাংলাদেশ করেছিল এবং বিশ্বে সেই ভাষাকে স্বীকৃতি দেয়া হয়েছে। সুতরাং ভাষার ক্ষেত্রে বাংলাদেশ অনেক সমৃদ্ধ, পশ্চিমবঙ্গেও আমাদের অনেক বলিষ্ঠ লেখক রয়েছেন, ভাষা অনেক সমৃদ্ধ লাভ করেছে। তুলনামূলকভাবে এটা বলা যদিও যাবে না কোনো দেশ সমৃদ্ধ বেশি কোনো দেশ সমৃদ্ধ নয়। তবে পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের মধ্যে সাংস্কৃতিক আদান প্রদান যেটা চলে সেটা বজায় থাকবে।’

বিধানসভার স্পিকার বলেন, ‘যেহেতু বাংলাদেশে আসার আমার সুযোগ হয়েছে তাই পূর্বপুরুষদের স্মরণে বরিশাল টাউনে এসেছি। এত স্মৃতিকথা ওদের কাছ থেকে শুনেছি যে এর আকর্ষণ বা তীব্রতায় এখানে ছুটে আসতে হয়েছে। আমার বয়োজেষ্ঠ্যরা উন্মুখ আমি এখানে কী কী দেখে গেলাম শোনার জন্য। আমার ঠাকুরদা প্রাণতোষ বন্দ্যোপাধ্যায় ও বাবা প্রণতোষ বন্দ্যোপাধ্যায় বরিশাল কোর্টে প্র্যাকটিস করতেন। দুর্ভাগ্যবশত যখন বঙ্গভঙ্গ হলো, একটা দাঙ্গা হয়েছিল তখন বাংলাদেশের সব সম্পত্তি ছেড়ে আমরা কলকাতায় স্থায়ী হওয়ার চেষ্টা করি। তখন আমি খুবই ছোট ছিলাম তাই তখনকার নিজের কোনো স্মৃতিই আমার মনে নেই।’

বিধান বন্দোপাধ্যায় বলেন, ‘বিভিন্ন সময় বিভিন্ন সরকার এসেছে কিন্তু চিরকাল বাংলাদেশের সাথে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক ছিল। এই সম্পর্ক বজায় থাকবে আরও সুদৃঢ় হবে। কিছু কিছু পাওয়ারফুল নেশনস্ আছে তারা দুই দেশের সম্পর্ককে ভাঙন ধরানোর চেষ্টা করছে।’

অন্যরা য়া পড়ছে...

Loading...



চেক

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওমরাহ পালন

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বৃহস্পতিবার রাতে এখানে পবিত্র …

জনগণ ছেড়ে বিদেশিদের কাছে কেন : ঐক্যফ্রন্টকে ওবায়দুল কাদের

গাজীপুর, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): শুক্রবার বিকেলে গাজীপুরের চন্দ্রায় ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়ক চার লেনে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

My title page contents