৬:২৮ অপরাহ্ণ - শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর , ২০১৮
Breaking News
Download http://bigtheme.net/joomla Free Templates Joomla! 3
Home / অর্থনীতি / ভারতের পর্যাপ্ত বিদ্যুৎ রয়েছে, বাংলাদেশ চাইলে তা নিতে পারে : ভারতের অর্থমন্ত্রী

ভারতের পর্যাপ্ত বিদ্যুৎ রয়েছে, বাংলাদেশ চাইলে তা নিতে পারে : ভারতের অর্থমন্ত্রী

ঢাকা, ০৩ অক্টোবর, ২০১৭ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): মঙ্গলবার রাজধানীর হোটেল সোনারগাঁয়ে ভারত ও বাংলাদেশের উচ্চ পর্যায়ের ব্যবসায়ীদের সভায় বাংলাদেশকে আরও বিদ্যুৎ দেয়ার প্রস্তাব দিয়েছে ভারত। ঢাকায় সফররত দেশটির অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি বলেছেন, ভারতের পর্যাপ্ত বিদ্যুৎ রয়েছে, বাংলাদেশ চাইলে তা নিতে পারে। তিন দিনের সফরে মঙ্গলবার ঢাকায় আসেন ভারতের অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি।

বাংলাদেশ বিদ্যুৎ খাত উন্নয়নের যে দীর্ঘমেয়াদি মহাপরিকল্পনা নিয়ে অগ্রসর হচ্ছে তাতে আঞ্চলিক ও উপ-আঞ্চলিক সহযোগিতার মাধ্যমে বিদ্যুৎ আমদানি একটি গুরুত্বপূর্ণ খাত। ২০৩০ সালের মধ্যে ৪০ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদনের মহাপরিকল্পনায় শেষ পর্যন্ত প্রায় ১০ হাজার মেগাওয়াটই হতে পারে আমদানি করা বিদ্যুৎ। ইতোমধ্যে কয়েক দফায় ভারত থেকে বিদ্যুৎ আমদানি করেছে বাংলাদেশ।

দুই দেশের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক অর্থনৈতিক উন্নয়নে কাজে লাগানোর তাগিদ দিয়ে ভারতীয় মন্ত্রী বলেন, ভারত ও বাংলাদেশের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ ইস্যুর সমাধান হয়েছে। এখন সময় এসেছে অর্থনৈতিকভাবে সম্পর্ক নতুন মাত্রায় নেয়ার।

অরুণ জেটলি বলেন, বাংলাদেশ বাণিজ্যিক হিসেবেও ভারতে বড় বন্ধু। গবেষণা, উদ্ভাবন, কৃষি, ওষুধ, আইটি ও স্বাস্থ্যখাতে বাংলাদেশ-ভারত যৌথভাবে কাজ করতে পারে। এতে যু্ক্ত হলে বাংলাদেশ উপকৃত হবে।

ভারতের মন্ত্রী বলেন, সীমান্তের কাছে বাংলাদেশের দুটি ইকোনোমিক জোন রয়েছে। এখান থেকে ভারত ট্রেড করা গেলে বাণিজ্য আরও বাড়বে।

অরুণ বলেন, আমাদের দুই দেশের সুসম্পর্ক ও সম্ভাবনার সর্বোচ্চটা কাছে লাগাতে পারলে সামাজিক, অর্থনৈতিক ও সরকারি পর্যায়ে এর সুফল পাওয়া যাবে।

সুন্দরবন ও সমুদ্র সৈকতকে কাছে লাগিয়ে ভারত ও বাংলাদেশ পর্যটনের ক্ষেত্রে একসঙ্গে কাজ করতে পারে বলেও মনে করেন তিনি।

অরুণ জেটলি বলেন, দুই দেশই ওভার পপুলেট। তাদের জন্য চাকরির নিশ্চয়তা করা একটা ইস্যু হয়ে দাঁড়ায়। ভারত তাদের জনসংখ্যাকে দক্ষ করার জন্য প্রকল্প হাতে নিয়েছে। বাংলাদেশ চাইলে এ ব্যাপারে সহায়তা দিতে পারে।

অনুষ্ঠানে বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে বাংলাদেশ অর্থনৈতিকভাবে দৃঢ হচ্ছে। বাংলাদেশ এখন দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে অর্থনৈতিক উদীয়মান দেশ। আমরা আগামী ২০২১ সালের মধ্যে মধ্য আয়ের দেশ উন্নীত হবো।’

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন এফবিসিসিআই সভাপতি শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন, ফেডারেশন অব ইন্ডিয়ান চেম্বার্স অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্টির (এফআইসিসিআই) সভাপতি পঙ্কজ প্যাটেল, এফবিসিসিআই প্রথম সহ-সভাপতি শেখ ফজলে ফাহিম, সহ-সভাপতি মুনতাকিম আশরাফ, এফআইসিসিআই নেতৃবৃন্দ এবং দেশের বিশিষ্ট শিল্পপতি ও ব্যবসায়ী নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

অন্যরা য়া পড়ছে...

Loading...



চেক

বিকল্পের সন্ধানে কোটা বাতিলের প্রজ্ঞাপনে দেরি হচ্ছে : ওবায়দুল কাদের

ঢাকা, ১৩ মে ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঘোষণা অনুযায়ী সরকারি চাকরিতে কোটা …

স্যাটেলাইট মহাকাশে ঘোরায় বিএনপির মাথাও ঘুরছে : মোহাম্মদ নাসিম

ফেনী, ১৩ মে ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ মহাকাশে উৎক্ষেপণ হওয়ায় বিএনপির মাথাও ঘুরছে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

My title page contents