১২:২৩ পূর্বাহ্ণ - মঙ্গলবার, ২০ নভেম্বর , ২০১৮
Breaking News
Download http://bigtheme.net/joomla Free Templates Joomla! 3
Home / জরুরী সংবাদ / আমি না বুঝে বলিনি আগামী বছর থেকে রাজধানীতে আর জলাবদ্ধতা থাকবে না : এলজিআরডি মন্ত্রী

আমি না বুঝে বলিনি আগামী বছর থেকে রাজধানীতে আর জলাবদ্ধতা থাকবে না : এলজিআরডি মন্ত্রী

ঢাকা, ২৭ জুলাই, ২০১৭ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): আগামী বছর থেকে রাজধানীতে আর জলাবদ্ধতা থাকবে না- এমন আশ্বাসের পরদিন স্

আজ বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে ‘পানি সম্মেলন-২০১৭’ উপলক্ষ্যে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে থানীয় সরকার উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, আমি না বুঝে এই কথা বলেননি। আমি একজন প্রকৌশলী এবং এই সমস্যার সমাধান জানি ও বুঝি। এ নিয়ে একটি পরিকল্পনাও করা আছে। এটি পাস হয়ে গেলেই কাজ শুরু হবে।

বুধবার রাজধানীর জলাবদ্ধতায় দুর্ভোগ ছিল চরমে। নগরীর একটি বড় অংশেই মূল সড়ক, অলি গলি, আবাসিক ও বাণিজ্যিক এলাকা ছিল পানির নিচে। আগের রাত থেকে টানা ভারী বৃষ্টিতে এই পরিস্থিতির তৈরি হয়। আর এই পরিস্থিতিতে বিকালে সচিবালয়ে এলজিআরডি মন্ত্রী বলেন, ‘প্রমিজ করছি, সামনের বছর ঢাকায় জলাবদ্ধতা থাকবে না।’

বৃহস্পতিবারও একই সুরে কথা বলেন মন্ত্রী মোশাররফ। কীভাবে এত আত্মবিশ্বাসী হচ্ছেন-জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘গতকাল আমি বলেছি আগামী বছর আর জলাবদ্ধতা থাকবে না। সেটিকে অনেকে ভিন্নভাবে নিচ্ছে। কিন্তু আমি একজন প্রকৌশলীও। সেজন্যই আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে এই কথা বলছি। আমি না বুঝে বলিনি। আমাদের প্রস্তুতি আছে।’

রাজধানীতে জলাবদ্ধতা নিরসনে যে কয়টি সংস্থা কাজ করে তার প্রতিটিই স্থানীয় সরকারের অধীনে। কীভাবে এই সমস্যার সমাধান করবেন- জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, ‘ঢাকার জলাবদ্ধতা নিরসনে পরিকল্পনা কমিশনে আমাদের প্রস্তাবনা আছে। আশা করছি এটি খুব শিগগিরই পাস হয়ে আসবে। তারাও ঢাকার দুরাবস্থা গতকাল দেখেছে। এটি হলে আর সমস্যা থাকবে না।’

বুধবার রাজধানীর বিভিন্ন সড়কে পানি জমার কারণ অস্বাভাবিক বৃষ্টিপাত বলে জানান সন্ত্রী। বলেন, ‘এই অস্বাভাবিক বৃষ্টিপাত মোকাবেলার যথেষ্ট প্রস্তুতি আমাদের ছিল না। তবে ভবিষ্যতে অস্বাভাবিক বৃষ্টিপাত হলেও ঢাকার আর জলাবদ্ধতা হবে না।’

মঙ্গলবার রাত থেকে বুধবার দুপুর পর্যন্ত রাজধানীতে যে পরিমাণ বৃষ্টি হয়েছে, সেটি সাম্প্রতিককালের সব রেকর্ড ভেঙে গিয়েছে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

এলজিআরডি মন্ত্রী বলেন, ‘ঢাকা ঘণ্টায় ৪০ থেকে ৫০ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হলে তা সিটি করপোরেশনের আয়ত্বের মধ্যে থাকে। এর বেশি হলে তা সিটির সক্ষমতার বাইরে চলে যায়।’ তিনি বলেন, ‘এই সিজনে যেমন বৃষ্টিপাত হয় সেইরকম নরমাল কনডিশন হলে এমন পরিস্থিতি হতো না। গতকাল যা ঘটছে সেটা একটা নাইটমেয়ার। এর পুনরাবৃত্তি আমরা আর হতে দেবো না।’

মন্ত্রী বলেন, ‘ভবিষ্যতে এমন পরিস্থিতি হলে তিন ঘণ্টার মধ্যে পানি সরে যাবে। সেই প্রস্তুতি আমাদের আছে।’

এ সময় পানিসম্পদ মন্ত্রী আনিসুল ইসলাম মাহমুদ বলেন, ‘গতকাল যে বৃষ্টি হয়েছে সেটি রেকর্ড। আমি এর আগেও মন্ত্রী ছিলাম। কিন্তু সচিবালয়ে কখনও পানি ঢুকতে দেখিনি। গতকাল সচিবালয়ে পানি ঢুকেছে। সুতরাং গতকালের পরিস্থিতি সম্পর্কে কারোই প্রস্তুতি ছিল না। থাকার কথাও না।’

‘তবে সিটি করপোরেশন এবং স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের যথেষ্ট ভাল প্রস্তুতি এবার ছিল। সেকারণেই গতকালের প্রবল বর্ষণের পরও তিন ঘণ্টায় পানি সরে গেছে। সিটির ড্রেনেজ ব্যবস্থাও সচল ছিল। তা নাহলে এতো তাড়াতাড়ি পানি নিষ্কাশন হতো না ‘

জলাবদ্ধতা নিরসনে নগরবাসীর সচেতনতার ওপরও জোর দেন মন্ত্রী। বলেন, ‘আমরা যেহারে পলিথিন এবং ময়লা ড্রেনে ফেলি এতে ড্রেন ব্লকেজ হয়ে যায়। এ থেকে উত্তরণে জনসচেতনাও বড় ভূমিকা পালন করতে পারে।’

এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, ‘ঢাকার পানি সমস্যা সমাধানে আমরা যমুনা থেকে পানি আনার পরিকল্পনা করেছি। এটা বৈজ্ঞানিক উপায়ে সোধন করা হবে।’ ঢাকার বুড়িগঙ্গার পানি পরিষ্কারের বিষয়ে তিনি বলেন, ‘আমরা ট্যানারি সরিয়ে ফেলার কারণে পানির মান কিছুটা উন্নতি হয়েছে।’

অন্যরা য়া পড়ছে...

Loading...



চেক

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওমরাহ পালন

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বৃহস্পতিবার রাতে এখানে পবিত্র …

জনগণ ছেড়ে বিদেশিদের কাছে কেন : ঐক্যফ্রন্টকে ওবায়দুল কাদের

গাজীপুর, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): শুক্রবার বিকেলে গাজীপুরের চন্দ্রায় ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়ক চার লেনে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

My title page contents