আইনি নোটিস পাওয়ার পর ইউটিউব থেকে ওই ভিডিও সরিয়ে দেওয়া হয়েছে বলে জানান কুমার। এমনকী সেই ভিডিও থেকে যে ৩২ টাকা আয় করেছেন, তা অমিতাভকে দিয়ে দেওয়ার কথা বলেন তিনি।জানা গেছে, ‘তর্পণ’ শিরোনামের কবিতাটি অমিতাভের বাবার লেখা ‘নীড় কা নির্মাণ’ কবিতা থেকে নেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে। ভিডিও প্রকাশ্যে আসার পরই শুরু হয় বিতর্ক। অমিতাভ ওই ভিডিও দেখার পরই কুমারকে একটি আইনি নোটিস পাঠান। এর পাশাপাশি ওই ভিডিওটি যাতে ইউটিউব থেকে সরিয়েও দেওয়া হয় সে কথাও বলেন তিনি। মঙ্গলবার টুইট করে অমিতাভ বলেন, ‘কপিরাইট লঙ্ঘন করা হয়েছে। এর বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

এ প্রসঙ্গে কুমার বলেন, আসলে এই কবিতার মাধ্যমে তিনি প্রত্যেক কবিকে সম্মান জানাতে চেয়েছিলেন। আর এই ভিডিও দেখার পর প্রায় প্রতিটি কবি পরিবারের কাছ থেকে যথেষ্ট সম্মান পেয়েছেন। একমাত্র অমিতাভের কাছ থেকেই তিনি এইরকম প্রতিক্রিয়া পান। এবং তার কাছে আইনি নোটিস পাঠানো হয়।

এদিকে অনেকেই বলছেন, হরিবংশ রাই বচ্চন ভারতের সম্পদ। কারও ব্যক্তিগত সম্পত্তি নয়। একজন কবি আরেক প্রখ্যাত কবিকে সম্মান জানিয়েছিলেন – তার সঙ্গে অর্থের বিষয়টা যোগ করা উচিত হয়নি। অপরদিকে কেউ বলছেন, সামান্য কয়েকটা টাকার জন্য অমিতাভ বচ্চন এত নীচে নামতে পারলেন – এটা অবিশ্বাস্য! তবে অমিতাভ বচ্চনের অবস্থানকেও সমর্থন করেছেন অনেকেই।