এরপর ‘বয়স্ক’ বলার কারণও ৩৭ বছর ধরে অভিনয় করা এ অভিনেতা ব্যাখা দিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘তাঁর প্রতি সম্মান জানাতেই বয়স্ক বলেছি। অন্য কিছু নয়। মানে, তিনি অনেক সিনিয়র অভিনেত্রী। সেই ১৯৯২ সালে ‘কেয়ামত থেকে কেয়ামত’ ছবি দিয়ে শুরু করেছেন। অনেক দিন ধরেই ইন্ডাস্ট্রিতে কাজ করছেন। ফলে তিনি সব বিষয়েই জানেন, বোঝেন। তিনি বয়স্ক অভিনেত্রী, তাই তাঁকে আমরা সম্মান করি।’এদিকে আজ ৯ জুলাই বিকাল তিনটার পরে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুক এর লাইভে আসেন মৌসুমীর স্বামী ও জনপ্রিয় অভিনেতা ওমর সানি। তিনি রাজধানীর উত্তরায় ৭ নম্বর সেক্টর লেকপাড়ে ১৮ নম্বর সড়কের ৩৯ নম্বর বাড়িতে নতুন রেস্তোরাঁ ‘মেরি মন্টানা’ থেকে এ লাইভে আসেন। সেসময় তিনি বিভিন্ন বিষয় নিয়েই কথা বলেন।

বাংলা চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় অভিনেতা সানি প্রসঙ্গ টেনে বলেন,‘অনেক কিছু দেখছি,অনেক কিছু শুনছি। চলচ্চিত্রে আসার বয়স প্রায় ২৮-২৯ হয়ে গেল। (তখন তিনি নিজেকে দাঁড়িতে হাত বুলিয়ে বলেন) বয়স্ক মনে হচ্ছে? আর বলেন, না না। শিল্পীদের কোন বয়স নাই। আমি এখনও মনে করি পৃথিবীতে সবচেয়ে হ্যান্ডসাম পুরুষ হচ্ছেন অমিতাভ বচ্চন। আমি কি ঠিক বলছি?’ এরপর অন্য প্রসঙ্গে চলে যান তিনি।

ওমর সানি আরও বলেন, ‘আমি কিন্তু খুব সাধারণ মধ্যবিত্ত পরিবারের একটি ছেলে। স্বীকার করে নিচ্ছি। আপনাদের ভালোবাসায় আমি ওমর সানি। আপনারাই আমাকে একসময় নম্বর ওয়ান হিরো বানিয়েছিলেন। গতকাল (৮ জুলাই) একটি জায়গায় মিশা সওদাগর মৌসুমীকে বয়স্ক বলেছে। ও (মিশা) সবসময় বলে যে, ও ইউনিভার্সিটি থেকে পড়াশুনা করে তারপর আর্টিস্ট হয়েছে। মিশা তুমি কোন জায়গা থেকে এসেছো, তোমার ফ্যামিলি ব্যাকগ্রাউন্ড, সবই আমি জানি।’

‘তো মিশা তুমি মৌসুমীকে বয়স্ক বলেছো, এটাকে শিক্ষা বলে? তুমি কোন ক্লাসে পড়েছো, এটা আমার জানতে হবে। মৌসুমী যদি বয়স্ক হয়, তাহলে রোজিনা, অঞ্জনা, চম্পা আপার অবস্থান কোথায়? ববিতা বা শাবানা আপার কথা নাই বা বললাম। এই তোমার মানসিকতা?’ একথাও বললেন ওমর সানি।