১৯৪৫ সালের ৯ অক্টোবর দার্জিলিংয়ে জন্ম সুমিতার। প্রথমে তার নাম ছিল মঞ্জুলা স্যানাল। তবে সে নাম পছন্দ হয়নি পরিচালক বিভূতি লাহার। তাই নাম পরিবর্তন করে রাখেন সুচরিতা। পরবর্তীকালে সেই নামকে আবারও পরিবর্তন করেন পরিচালক কণক মুখোপাধ্যায়। নামকরণ করা হয় সুমিতা। সেই থেকেই এই নামে পরিচিত হন তিনি।‘খোকাবাবুর প্রত্যাবর্তন’ ছবিতে প্রথম অভিনয় করেন। তারপর একাধিক ছবিতে কাজ করেছেন। বাংলা ছবির পাশাপাশি বেশ কয়েকটি হিন্দি ছবিতেও অভিনয় করেছেন তিনি। যার মধ্যে উল্লেখযোগ্য দিলীপ কুমারের সঙ্গে ‘সাগিনা মাহাত’। হিন্দি ছবির মধ্যে উল্লেখযোগ্য ‘গুড্ডি’, ‘আনন্দ’। যেখানে একইসঙ্গে স্ক্রিন শেয়ার করেছিলেন অমিতাভ বচ্চনের সঙ্গে। তবে শুধু বড়পর্দা নয় ছোটপর্দাতেও অভিনয় করেছেন সুমিতা। পাশাপাশি তিনি যুক্ত ছিলেন থিয়েটারের সঙ্গে।

একাধিক ক্লাসিক সিনেমায় তার অভিনয় করা হয়েছে। চলচ্চিত্র সম্পাদক সুবোধ রায়ের সঙ্গে তার বিয়ে হয়। তাদের সংসারে একটি ছেলের জন্ম হয়। এরপর প্রায় আড়ালেই চলে গিয়েছিলেন তিনি। সুমিতার মৃত্যুতে শোকপ্রকাশ করেছেন কলকাতার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সুমিতার মৃত্যুতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে টালিউডে।