১১:৫৯ পূর্বাহ্ণ - রবিবার, ১৮ নভেম্বর , ২০১৮
Breaking News
Download http://bigtheme.net/joomla Free Templates Joomla! 3
Home / জরুরী সংবাদ / বদলে গেছে ঢাকার চিরচেনা দৃশ্য : রাস্তাঘাট একেবারে ফাঁকা

বদলে গেছে ঢাকার চিরচেনা দৃশ্য : রাস্তাঘাট একেবারে ফাঁকা

ঢাকা, ২৩ জুন, ২০১৭ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): বদলে গেছে ঢাকার চিরচেনা দৃশ্য। নাড়ির টানে মানুষ গ্রামমুখী হওয়ায় ফাঁকা হতে শুরু করেছে কর্মব্যস্ত ঢাকার পথ-ঘাট। প্রিয়জনের টানে বাড়ি ফেরা মানুষের স্রোত এখন রেল স্টেশন, লঞ্চ ও বাস টার্মিনালের দিকে। এ কারণে যানজট কমতে শুরু করেছে আর হুড়োহুড়ি করে বাসে উঠার দৃশ্যও চোখে পড়ছেন না।

শুক্রবার রাজধানীর বিভিন্ন স্থান ঘুরে দেখা গেছে, কয়েকদিন আগেও যে বাসে তিল ধারণের জায়গা থাকতো না, সেই বাস আজ অনেকটা খালি। প্রায় প্রতিটি বাসেরই এমন চিত্র দেখা গেছে।

পরিবহন সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠানগুলোর সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, ঈদের বাড়ি ফেরা মানুষের ঢল দুই তিনদিন আগে থেকে শুরু হলেও আজ থেকেই বেশিরভাগ মানুষ বাড়ি ফিরতে শুরু করেছেন। এ কারণে ঢাকায় অভ্যন্তরে চলা বাসের সংখ্যা কমে গেছে। ঈদের কয়েকদিন পরেও এই অবস্থা থাকবে বলে জানা গেছে।

বেলা একটা থেকে আড়াইটা পর্যন্ত রাজধানীর শাহবাগ, বাংলামোটর, ফার্মগেট, আসাদ গেট, শ্যামলী শিশু মেলা, কল্যাণপুরে গিয়ে এমন চিত্র লক্ষ্য করা গেছে।

মোটরসাইকেল করে ঘোরার সময় দেখা গেছে, অতিরিক্ত যানজটের কারণে বেলা আড়াইটার দিকে আগে শাহবাগ থেকে ফার্মগেটে আসতে আগে যখন ৩০ মিনিট সময় লাগতো, আজকে সেখানে সময় লাগছে আট থেকে ১০ মিনিটের মতো। আগে বাসগুলোতে যাত্রীতে ঠাসা থাকলেও আজ বাংলামোটর মোড়ে তেমন ভিড় চোখে পড়েনি।

আড়াইটার দিকে বাংলামোটর মোড়ে সিগন্যালে মিনিট দুয়েক আটকে থাকার পর পান্থপথ পাড়ি দেয়া গেলো আটকে না থেকেই। তবে ফার্মগেট এলাকায় দিকে অনেক যাত্রীকে বাসের জন্য অপেক্ষা করতে দেখা গেছে। সেখানে যাওয়াও পর বাসগুলো যাত্রীতে ভরে যায়।

খামারবাড়ি গোলচক্করে সামান্য জটলা পেরিয়ে আসাদগেট মোড়ে আবারও সিগন্যালের অপেক্ষা। তবে সেখানেও বেশিক্ষণ দাঁড়িয়ে থাকতে হলো না। এরপর সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালের সামনে কিছুটা জটলা, তবে সেটাকেও যানজট বলা যাবে না। যাত্রী ডাকাডাকির চেষ্টায় রত লোকাল বাসের জন্য পেছনের গাড়িগুলো নির্বিঘ্নে চলতে না পেরে কিছুটা সময় ধীরে চলতে হয়েছে। শ্যামলীতেও একই চিত্র দেখা গেলো।

খানিকটা এগিয়ে কল্যাণপুরে বাসস্ট্যান্ডে গিয়েই দেখা গেলো আরেক চিত্র। বাড়ি যাওয়ার জন্য যাত্রীরা এসে ভিড় করে আছেন কল্যাণপুরে। দূরপাল্লার বাসে কাউন্টারগুলোতে আর যাত্রী ধরার জায়গা নেই। তাই বাকিরা দাঁড়িয়ে বা বসে আছেন বাইরে।

শুধু এই পথই নয়, রাজধানীর প্রতিটি সড়কের চিত্র ছিল এমনই। ঈদের ছুটিতে বাড়িতে না গিয়ে যারা ঢাকায় থাকছেন ফাঁকা রাস্তায় তাদের অনেককে ঘুরতে দেখা গেছে।

খিলক্ষেত থেকে মগবাজারে এসেছেন সহকর্মী শহিদুল ইসলাম শ্যামল। বেলা দুইটার দিকে এই পথ আসতে তার সময় লেগেছে ২৫ মিনিটের মত। অথচ অন্যান্য দিন এই পথ আসতে তার সময় লাগতো দেড় ঘণ্টার মতো।

আরেক সহকর্মী তানিম আহমেদ মিরপুর থেকে এসেছন বাংলামোটরে। তানিম জানালেন, যানজটের কারণে আগে মিরপুর থেকে বাংলামোটরে আসতে প্রায় ঘণ্টাখানেকের মতো সময় লাগতো। আজ আসতে সময় লেগেছে মাত্র ১৫ মিনিটের মতো।

অন্যরা য়া পড়ছে...

Loading...



চেক

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওমরাহ পালন

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বৃহস্পতিবার রাতে এখানে পবিত্র …

জনগণ ছেড়ে বিদেশিদের কাছে কেন : ঐক্যফ্রন্টকে ওবায়দুল কাদের

গাজীপুর, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): শুক্রবার বিকেলে গাজীপুরের চন্দ্রায় ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়ক চার লেনে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

My title page contents