৫:২০ অপরাহ্ণ - শুক্রবার, ১৬ নভেম্বর , ২০১৮
Breaking News
Download http://bigtheme.net/joomla Free Templates Joomla! 3
Home / অন্যান্য সংবাদ / আইন-আদালত / ভরণপোষণ চেয়ে ফরিদপুরের আদালতে ছেলের বিরুদ্ধে বৃদ্ধা মায়ের মামলা

ভরণপোষণ চেয়ে ফরিদপুরের আদালতে ছেলের বিরুদ্ধে বৃদ্ধা মায়ের মামলা

ফরিদপুর, ১৭ এপ্রিল, ২০১৭ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): আজ সোমবার ফরিদপুরের চার নম্বর আমলি আদালতে ভরণপোষণ চেয়ে ছেলের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন মা।

বৃদ্ধ বাবা-মাকে ঘর থেকে বের করে দিয়েছেন ছেলে। অথচ তাদেরকে দেখবেন-এমন আশ্বাস দেয়ার পর ছেলেকে বাড়ি লিখে দিয়েছিলেন তারা।  মামলার বাদী জহুরা বেগম। আর আসামি, তার ছোট ছেলে সেলিম সরদার ওরফে মধু। জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম সুমন হোসেন মামলাটি আমলে নিয়ে একমাত্র আসামিকে আদালতে হাজির হতে সমন জারি করেছেন।

আদালত সুত্রে জানা যায়, ২০১৩ সালের পিতা-মাতার ভরণ পোষণ আইনে এ মামলাটি দায়ের করা হয়। ফরিদপুরে এ আইনে এটিই প্রথম মামলা।

মামলার বাদী জহুরা বেগমের বয়স ৬০। তাঁর স্বামী পাচু সরদারের বয়স ৭৫। তাঁরা মধুখালী উপজেলার গাজনা ইউনিয়নের ব্যাসদী গাজনা গ্রামে থাকেন। তাদের দুই ছেলে। বড় ছেলে মুরাদ সরদার অনেক আগেই আলাদা হয়ে যায়। তারা ছোট ছেলে সেলিমের সঙ্গে থাকতেন।

বৃদ্ধা মা জহুরা বেগম জানান, তাদের যে বসত ভিটা ছিল সে জমি তাদের ভরণ-পোষণের শর্তে ছোট ছেলে সেলিম সরদারকে লিখে দেন। কিন্তু সেলিম সরদার গত ১৪ জানুয়ারি শনিবার বিকেলে বাড়ি থেকে জোর করে তার মা ও বাবাকে তাড়িয়ে দেন। বর্তমানে তারা অনাহারে অর্ধাহারে মানবেতর জীবন-যাপন করছেন।

বাদীর আইনজীবী মানিক মজুমদার জানান, গত ১৪ এপ্রিল ওই বৃদ্ধ দম্পতি এলাকার কয়েকজন ব্যাক্তিকে নিয়ে তার ছেলের কাছে তাদের ভরণ-পোষণ বাবাদ প্রতিদিন ৫০ টাকা করে মোট একশ টাকা দাবি করেন। কিন্তু তার ছেলে সে প্রস্তাবও নাকচ করে দেন। এমতাবস্থায় ছেলের কাছে ২০১৩ সালের পিতা-মাতার ভরণ পোষণ আইনে এ মামলাটি করেন বৃদ্ধা জহুরা বেগম।

অন্যরা য়া পড়ছে...

Loading...



চেক

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওমরাহ পালন

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বৃহস্পতিবার রাতে এখানে পবিত্র …

জনগণ ছেড়ে বিদেশিদের কাছে কেন : ঐক্যফ্রন্টকে ওবায়দুল কাদের

গাজীপুর, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): শুক্রবার বিকেলে গাজীপুরের চন্দ্রায় ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়ক চার লেনে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

My title page contents