১২:০৬ পূর্বাহ্ণ - রবিবার, ১৮ নভেম্বর , ২০১৮
Breaking News
Download http://bigtheme.net/joomla Free Templates Joomla! 3
Home / রাজনীতি / আওয়ামী লীগ / নেত্রীকে হাসিনা, হাসিনা বলবেন না, পুরো নাম বলুন : খালেদা জিয়াকে ওবায়দুল কাদের

নেত্রীকে হাসিনা, হাসিনা বলবেন না, পুরো নাম বলুন : খালেদা জিয়াকে ওবায়দুল কাদের

মেহেরপুর, ১৭ এপ্রিল, ২০১৭ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে সম্বোধন করার ক্ষেত্রে পুরো নাম বলতে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার প্রতি অনুরোধ করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, বিএনপি নেত্রী প্রধানমন্ত্রীকে হাসিনা, হাসিনা বলে সম্বোধন করেন। এটা খুব বাজে ভাষার ‘অ্যাড্রেস’ মন্তব্য করে ওবায়দুল কাদের বলেন, এতে আওয়ামী লীগ অপমানিত হয়।

১৯৭১ সালের ১৭ এপ্রিল স্বাধীন বাংলাদেশের প্রবাসী সরকারের শপথগ্রহণের স্মরণে মেহেরপুরের মুজিবনগরে এক সমাবেশে এই কথা বলেন ওবায়দুল কাদের। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে রাষ্ট্রপতি, তাজউদ্দীন আহমেদকে প্রধানমন্ত্রী করে মুজিবনগরের যে আমবাগানে প্রবাসী বাংলাদেশ সরকার শপথ নিয়েছিল সেখানেই অনুষ্ঠান করে ক্ষমতাসীন দল।

বিএনপিকে উদ্দেশ্য করে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘তাদের আজ কোনো চেতনা নেই, তাদের কাছে আজ মূল্যবোধ নেই, তাদের কাছে আজ সৌজন্যবোধ নেই।…শেখ হাসিনার জন্যই বাংলাদেশ আজ সারা বিশ্বের বিশ্বয়। সেই শেখ হাসিনাকে তিনি (খালেদা জিয়া) শেখ হাসিনাও বলেন না, হাসিনা বলেন।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘খুব বাজে ভাষায় নামটা অ্যাড্রেস করেন। …কিন্তু কোনদিন তো আমরা আপনার নামটা বাজেভাবে উচ্চারণ করি না, আপনাকে আমরা বেগম খালেদা জিয়া বলে উচ্চারণ করি। অথচ আপনি আমাদের নেত্রীকে, বাংলাদেশের ১৬ কোটি মানুষের প্রিয় নেত্রীকে বঙ্গবন্ধু কন্যাকে, তিনি বিশ্বের ১০ জন গ্রেট লিডারের একজন, শেখ হাসিনাকে আপনি আপনি হাসিনা, হাসিনা বলে সম্বোধন করেন।’

প্রধানমন্ত্রীকে শুধু হাসিনা বললে কষ্ট হয় জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘এটা আমাদেরকে অপমান করা হয়, আমাদের পার্টিকে অপমান করা হয়, আমাদের চেতনাকে অপমান করা হয়, আমাদের নেতৃত্বকে অপমান করা হয়।’

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, বিএনপির নিজেরাই ভুল করে নির্বাচনে যায়নি। এখন চোরাবালিতে আটকে গেছে। পেট্রল দিয়ে পুড়িয়ে হত্যা করে জনগণের শুধু ঘৃণা কুড়িয়েছে। তাদের এখন আর কিছুই নেই, এখন একটার পর একটা ইস্যু তুলছে। সব শেষ ইস্যু হচ্ছে ভারত জুজু।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘শেখ হাসিনা ইন্ডিয়া গেল, কেন এত সম্মান, নরেন্দ্র মোদি সর্বোচ্চ সম্মান আমাদের প্রধানমন্ত্রীকে দিলেন, এটাই তাদের গাত্রদাহের কারণ। তিস্তা তাদের অন্তরে নাই।’

গঙ্গা চুক্তির মত আওয়ামী লীগই তিস্তার চুক্তি করবে বলে আশ্বাস দেন দলের সাধারণ সম্পাদক। তিনি বলেন, ‘গঙ্গা যাদের অন্তরে আছে, তিস্তা তাদেরই অন্তরে আছে। গঙ্গা চুক্তি যারা করেছে, তিস্তা তারাই তারাই করবে। এটা তাদের চেতনা, এটা তাদের আদর্শ, এটা তাদের অন্তরে।’

বিএনপির ইস্যু মেকিং একটা ফ্যাক্টরি আছে মন্তব্য করে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘একেকবার একেকটা ছাড়ে। কিন্তু এর আউটপুট দেশের জনগণের কোনো কাজে আসে না। ইস্যু মাঠে মারা যায়। এ বছর না, ওই বছর, আন্দোলন হবে কোন বছর। দেখতে দেখতে আট বছর হয়ে গেছে।’

বিএনপির মরা গাঙে জোয়ার আর আসে না মন্তব্য করে আওয়ামী লীগ নেতা বলেন, ‘আন্দোলনের ডাক নিয়ে মানুষ বলে আসলে তর্জন-গর্জনেই সার। মানুষ সাড়া না দিলে আন্দোলন কীসের? নিজের দলের লোকেরাই মাঠে যায় না ভয়ে। আন্দোলনে ডাক দিয়ে ঘরে বসে হিন্দি সিরিয়াল দেখে নেতারা। তো আন্দোলন হবে কেমনে? ৫৯৬ জনের কমিটি, এই কিমিটির ৫০ জনও তো মাঠে নামতে পারতো, তাও নামে না।’

‘যাক বাবা তাদের আন্দোলন তারা করুক, আমরা নির্বাচনের প্রস্তুতি নিচ্ছি। কর্মীদেরকে বলছি সব ঠিক আছে’- বলেন ওবায়দুল কাদের।

অন্যরা য়া পড়ছে...

Loading...



চেক

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওমরাহ পালন

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বৃহস্পতিবার রাতে এখানে পবিত্র …

জনগণ ছেড়ে বিদেশিদের কাছে কেন : ঐক্যফ্রন্টকে ওবায়দুল কাদের

গাজীপুর, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): শুক্রবার বিকেলে গাজীপুরের চন্দ্রায় ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়ক চার লেনে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

My title page contents