৫:০৯ অপরাহ্ণ - সোমবার, ১৯ নভেম্বর , ২০১৮
Breaking News
Download http://bigtheme.net/joomla Free Templates Joomla! 3
Home / জরুরী সংবাদ / যথাযোগ্য মর্যাদা ও নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে শহীদ নূর হোসেন দিবস পালিত

যথাযোগ্য মর্যাদা ও নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে শহীদ নূর হোসেন দিবস পালিত

noor hossain   10.11.15ঢাকা, ১০ নভেম্বর ২০১৫ (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): আজ মঙ্গলবার নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে স্বৈরাচার বিরোধী গণআন্দোলনের নায়ক শহীদ নূর হোসেন দিবস পালিত হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে সকালে বিভিন্ন রাজনৈতিক সামজিক সংগঠন রাজধানীর জিরো পয়েন্টে শহীদ নূর হোসেন স্কয়ারে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করে।

দিবসটি উপলক্ষে সকালে আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে নূর হোসেন স্কায়ারে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানানো হয়। এ সময়ে সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক এ্যাডভোকেট আফজাল হোসেন, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক ফরিদুন্নাহার লাইলী, দফতর সম্পাদক ড. আবদুস সোবহান গোলাপ, কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য সুজিত রায় নন্দী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এ ছাড়াও জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জাসদ), ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগ, আওয়ামী যুবলীগ, আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, ছাত্রলীগ ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ও উত্তর, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ, বাংলাদেশের বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টি, বাংলাদেশ যুব মৈত্রী, ছাত্রদল, যুবমৈত্রী, ছাত্রমৈত্রী, বিপ্লবী ছাত্রসংহতি, শহীদ নূর হোসেন ফাউন্ডেশন, বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট, বাংলাদেশ আওয়ামী মটর চালক লীগসহ বিভিন্ন সংগঠন নূর হোসেন স্কায়ারে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করে।

রাজধানীর জিরো পয়েন্ট মোড়ে ‘শহীদ নূর হোসেন স্কয়ার’-এ সকাল ৭টায় ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান নূর হোসেনের বড় ভাই আলী হোসেন।

পরে রাজধানীর জুরাইন কবরস্থানে নূর হোসেনের বড় ভাই আলী হোসেন ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান ও দোয়া পাঠ করেন। দিবস উপলক্ষে ‘শহীদ নূর হোসেন ফাউন্ডেশন’ সকাল ৯ টায় জুরাইন কবরস্থানে পূষ্পমাল্য অর্পণ এবং বঙ্গবন্ধু এভিনিউস্থ সংগঠনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে মিলাদ ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করে।

এছাড়াও সহ-দফতর সম্পাদক শামীমুর রহমান শামীম ও নির্বাহী কমিটির সদস্য রফিক শিকদারের নেতৃত্বে বিএনপি, দিলীপ বড়ুয়ার নেতৃত্বে সাম্যবাদী দল, রুহিন হোসেন প্রিন্সের নেতৃত্বে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টিসহ বিভিন্ন সংগঠন ফুল দিয়ে নূর হোসেনের প্রতি শ্রদ্ধা জানায়।

১৯৮৭ সালের ১০ নভেম্বর ১৫ দল, ৭ দল ও ৫ দলের সচিবালয়ের সামনে অবস্থান ধর্মঘট কর্মসূচি ছিলো। সেই কর্মসূচির সাথে স¤পৃক্ত ছাত্র সংগঠনগুলোর সমর্থনে অবস্থান ধর্মঘট ঘেরাও কর্মসূচিতে রূপ লাভ করে। স্বৈরশাসকের সকল বাধাকে উপেক্ষা করে ১০ নভেম্বর সকাল থেকেই সচিবালয়ের চারদিকে আন্দোলনকারী ছাত্র-জনতার মিছিল সমবেত হয়। তখন তোপখানা রোডের মুখে পুলিশ বক্স পেরিয়ে শুরু হয় নূর হোসেনদের সাহসী মিছিল, সাহসী যুবক খালি গায়ে লিখেছিল ‘গণতন্ত্র মুক্তিপাক-স্বৈরাচার নিপাত যাক’।

সমাবেশ শুরুর সাথে সাথে শুরু হয় পুলিশের বেধড়ক লাঠিচার্জ, টিয়ারগ্যাস নিক্ষেপ। পল্টন তখন রণক্ষেত্র। এরই মধ্যে খবর আসে পুলিশের গুলির্বষণে শহীদ হয়েছেন নূর হোসেন। আহত হয়েছেন অসংখ্য।

নূর হোসেন আত্মদানের মাধ্যমে সেদিন গণতন্ত্রের নতুন সংগ্রাম শুরু হয়। সেই সংগ্রামের ধারায় ১৯৯০ সালের ৪ ডিসেম্বর স্বৈরাচারী শাসক পদত্যাগের ঘোষনা দেন।

অন্যরা য়া পড়ছে...

Loading...



চেক

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওমরাহ পালন

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বৃহস্পতিবার রাতে এখানে পবিত্র …

জনগণ ছেড়ে বিদেশিদের কাছে কেন : ঐক্যফ্রন্টকে ওবায়দুল কাদের

গাজীপুর, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): শুক্রবার বিকেলে গাজীপুরের চন্দ্রায় ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়ক চার লেনে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

My title page contents