ভারতীয় সংবাদ মাধ্যমের বরাতে জানা গেছে, বিসিসিআই প্রশাসনের সংখ্যাগরিষ্ঠ সদস্যই ৭২ বছর বয়সী শ্রীনিবাসনের পক্ষেই মত দিয়েছেন। কারণ হিসেবে তারা বলেছে, ‘আইসিসির সাথে শ্রীনিবাসনের পুরানো সম্পর্ক আছে।’ আর সে কারণেই আবারও আইসিসিতে শ্রীনিবাসনকে পাঠাতে চায় বিসিসিআই। তবে সেক্ষেত্রে তাদের বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কার সমর্থণ হারাতে হবে।

এসম্পর্কে বিসিসিআইয়ের এক মুখপাত্র প্রেস ট্রাস্ট অব ইন্ডিয়াকে (পিটিআই) বলেন, ‘বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) শ্রীনিবাসনকে নিয়ে দুশ্চিন্তায় আছে। তারা এখনো ২০১৫ সালের অস্ট্রেলিয়াতে অনুষ্ঠিত বিশ্বকাপে সাবেক আইসিসি সভাপতি মোস্তফা কামালের অপমান ভুলতে পারেনি। বিসিসিআই যদি আবারও শ্রীনবাসনকে আইসিসিতে প্রতিনিধি হিসেবে পাঠায়, তবে বাংলাদেশ আর ভারতীয় বোর্ডের সাথে সম্পর্ক রাখবে না।’

শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ডও চায় না শ্রীনিবাসন আবারও আইসিসির কোন প্রকার দায়িত্বে আসুক। এমনকি তারা জিম্বাবুয়েকেও এর বিপক্ষে ভোট দেওয়ার জন্য রাজী করাতে চাইছে। বিসিসিআইয়ের ওই মুখপাত্র বলেন, ‘যদি এই গুঞ্জন সত্যিই হয়ে যায়, তবে অবাক হওয়ার কিছু থাকবে না যে বিসিসিআই তার অনেক সমর্থন হারাবে।’ সূত্র: ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস