১১:৫৯ অপরাহ্ণ - সোমবার, ১৯ নভেম্বর , ২০১৮
Breaking News
Download http://bigtheme.net/joomla Free Templates Joomla! 3
Home / রাজনীতি / আওয়ামী লীগ / কুমিল্লা সিটি নির্বাচনে হারের পেছনে দলের অভ্যন্তরীণ কোন্দল রয়েছে : হানিফ

কুমিল্লা সিটি নির্বাচনে হারের পেছনে দলের অভ্যন্তরীণ কোন্দল রয়েছে : হানিফ

ঢাকা, ৩১ মার্চ, ২০১৭ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): আজ শুক্রবার সকালে রাজধানীতে ইউনাইটেড পার্টি আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহাবুব উল আলম হানিফ বলেছেন, কুমিল্লা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে হারের পেছনে দলের অভ্যন্তরীণ কোন্দল রয়েছে।

তিনি বলেন, এই পরাজয়ের জন্য দায়ীদের বিরুদ্ধে অচিরেই ব্যবস্থা নেয়া হবে। তিনি বলেন, ‘দলের মধ্যে শৃঙ্খলা রাখতে হবে। ব্যক্তি স্বার্থে, ব্যক্তি লোভে কাজ করবে এটা মেনে নেওয়া হবে না।’

বৃহস্পতিবার কুমিল্লা সিটি নির্বাচনে বিএনপির প্রার্থী মনিরুল হক সাক্কুর কাছে ১১ হাজার ৮৫ ভোটে হেরেছেন আওয়ামী লীগের আঞ্জুম সুলতানা সীমা। ২০১২ সালের নির্বাচনে সাক্কুর কাছে সীমার বাবা আফজল খান হেরেছিলেন ২৯ হাজারেরও বেশি ভোটে। সে হিসাবে পাঁচ বছরে আওয়ামী লীগ ব্যবধান ২১ হাজার কমিয়ে আনলেও এই পরাজয়কে দল ভালভাবে নেয়নি।

সীমাকে মনোনয়ন দেয়ার পর থেকেই কুমিল্লায় তার বাবা আফজল খানের সঙ্গে স্থানীয় সংসদ সদস্য আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহারের পুরনো দ্বন্দ্বের বিষয়টি আলোচনায় উঠে। আওয়ামী লীগের কেন্দ্র থেকে দ্বন্দ্ব মেটাতে বহু চেষ্টা করা হয়। ভোটের আগে দ্বন্দ্ব মিটেছে বলে প্রচার হলেও পরাজয়ের পর দলের ভেতরের ‘বেইমানদের’ দায়ী করেছেন সীমার বাবা।

বাহার অবশ্য বলেছেন, তিনি সীমাকে জেতাতে চেষ্টার কমতি রাখেননি। আর তার প্রভাবিত এলাকায় নৌকা জিতেছে। তবে হেরেছে মন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল প্রভাবিত এলাকায়।

হানিফ বলেন, ‘যারা দলের মধ্যে থেকে দলের সিদ্ধান্তের বিপক্ষে কাজ করেছে তাদের কাউকে ছাড় দেওয়ার সুযোগ নেই। কুমিল্লার বিষয়ে ইতোমধ্যে সাংগঠনিক সম্পাদকদের বলেছি এ বিষয়ে তথ্য নিয়ে আসতে। এরপর আমরা সাংগঠনিক সিদ্ধান্ত নেবো।’

কুমিল্লার নির্বাচনের ফলাফল সরকারের প্রতি জনগণের অনাস্থার প্রমাণ-বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার এমন বিবৃতিরও জবাব দেন হানিফ। তিনি বলেন, ‘স্থানীয় নির্বাচন আর জাতীয় নির্বাচন এক নয়। স্থানীয় নির্বাচন সিটি মেয়ার, পৌরসভা মেয়র, ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারমান, মেম্বারদের ব্যক্তিগত ইমেজের বিষয় আছে। পারিবারিক সামাজিক ও আঞ্চলিকতার টান থাকে। এই নির্বাচন দিয়ে জাতীয় নির্বাচনের পরিসংখ্যান করার কোনো সুযোগ নেই। এই বোধ যাদের নেই তাদের মাঝে নেই তাদের কাছে সরকার কী আশা করতে পারে?’।

বিএনপির উদ্দেশ্যে আওয়ামী লীগ নেতা বলেন, ‘এই নির্বাচনের পর আপনার যদি মনে করেন থাকেন আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জয়ী হবেন, তাহলে প্রস্তুত হন, ভোটে নামুন, জনগণের আস্থা কার প্রতি আছে তা প্রমাণ হয়ে যাবে। আমাদের দৃঢ় বিশ্বাস আগামী নির্বাচনে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায় আনবে জনগণ।’

সংগঠনের সভাপতি ইসমাঈল হোসাইনের সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য রাখেন খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম।

অন্যরা য়া পড়ছে...

Loading...



চেক

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওমরাহ পালন

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বৃহস্পতিবার রাতে এখানে পবিত্র …

জনগণ ছেড়ে বিদেশিদের কাছে কেন : ঐক্যফ্রন্টকে ওবায়দুল কাদের

গাজীপুর, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): শুক্রবার বিকেলে গাজীপুরের চন্দ্রায় ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়ক চার লেনে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

My title page contents