রিজভী বলেন, সরকার সমর্থিত নির্বাচন কমিশনার দিয়ে সাধারণ মানুষের ভোটের অধিকার রক্ষা পাবে না। অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনও হবে না। তাই আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদার দ্রুত পদত্যাগ চায় বিএনপি।

তিনি বলেন, এ সরকারের নিয়ন্ত্রণে বিচারিক আগ্রাসন চলছে। বিএনপি চেয়ারপারসনসহ প্রতিটি নেতাকর্মী এ আগ্রাসনের শিকার। মামলা দিয়ে হয়রানি করা হচ্ছে প্রতিটি নেতাকর্মীকে।

সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন-বিএনপি নির্বাহী কমিটির স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক মীর সরাফত আলী সপু, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুস সালাম আজাদ, শহিদুল ইসলাম বাবলু, সহ-প্রচার সম্পাদক আমিরুল ইসলাম খান আলিম।

জেলা ছাত্রদল সভাপতি খন্দকার রাশেদুল আলম রাশেদের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক শফিকুর রহমান খান শফিকের সঞ্চালনায় সভায় প্রধান বক্তা ছিলেন জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক শামসুল আলম তোফা, সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট ফরহাদ ইকবাল, ছাত্রদল কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম-সম্পাদক মিয়া মো. রাসেল, করিম সরকার, নিহত আবু রায়হান জগলুর ছোট ভাই মির্জা রফিক প্রমুখ।