২:০৪ পূর্বাহ্ণ - মঙ্গলবার, ১৩ নভেম্বর , ২০১৮
Breaking News
Download http://bigtheme.net/joomla Free Templates Joomla! 3
Home / জরুরী সংবাদ / টাকায় অ্যাপস কেনা গেলে আমাদের দেশেও অ্যাপস স্টোরের একটি ভালো বাজার হবে

টাকায় অ্যাপস কেনা গেলে আমাদের দেশেও অ্যাপস স্টোরের একটি ভালো বাজার হবে

ঢাকা, ০২ ফেব্রুয়ারী ২০১৭ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): আজ শুক্রবার বেসিস সফটএক্সপোর তৃতীয় দিনে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রের মিডিয়া বাজার হলে ‘ডিজিটাল সার্ভিস ডেলিভারি: প্রসপেক্টস অ্যান্ড চ্যালেঞ্জেস’ শীর্ষক সেমিনারে জাতীয় সংসদের তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ক সংসদীয় স্থায়ী কমিটির চেয়ারম্যান ইমরান আহমেদ এমপি বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশের যে স্বপ্ন প্রধানমন্ত্রী দেখেছিলেন তা এখন বাস্তবায়নের পথে। ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়ন আমরা এখন দিবালোকের মতো দেখতে পারি। টিএন্ডটি ফোন থেকে মোবাইল ফোন, কম্পিউটার, স্মার্টফোন, ইন্টারনেট দিয়ে আমরা এখন নিজেদের প্রতিষ্ঠিত করেছি। বাংলাদেশকে এখন কেনিয়ায় থাকা মানুষও চেনে। যুব সমাজের মধ্যে আইটির আগ্রহ সৃষ্টি হয়েছে। চাকরি করার চেয়ে নিজেরাই উদ্যোক্তা হতে আগ্রহী হচ্ছে। এটা বাংলাদেশের জন্য পজেটিভ সাইন। সংসদীয় কমিটি থেকে আমরা সবসময় ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে সব ধরণের সহযোগিতা দেবো। আমাদের ডাকেন, আমরা পাশেই আছি।

বেসিস সভাপতি মোস্তাফা জব্বার বলেন, আমাদের এপিআই এর জন্য ন্যাশনাল এক্সচেঞ্জ দরকার। তাহলে আমরা সহজেই অ্যাপস ডেভেলপারদের সহজেই সংযুক্ত করতে পারবো। সরকার ইন্টারনেট ব্যান্ডউইথের দাম ৫২৫ টাকা করে দিলেও মোবাইল অপারেটরদের কোন অফার ব্যান্ডউইথ স¤পর্কিত থাকে না। যা গ্রাহকদের জন্য দুঃখজনক। আমরা মোবাইল অপারেটরদের ইস্ট ইন্ডিয়া কো¤পানি হওয়া পছন্দ করবো না।

মাহবুবুল মতিন বলেন, গার্মেন্টসের বাজার ৪০০ বিলিয়ন ডলারের যেখানে বাংলাদেশে মাত্র ২৬ বিলিয়ন ডলারের বাজার। এই বাজার একসময় ৫০ বিলিয়ন ডলার হবে। কিন্তু সারা পৃথিবীতে ৩ হাজার ৫০০ বিলিয়ন ডলারের আইটি বাজার। এই বাজারে  সহজেই ৫ বিলিয়ন ডলার উপার্জন করা সম্ভব। আমরা অতিসত্ত্বর আমাদের লক্ষে পৌঁছে যাবো। আমরা দক্ষ নেতৃত্ব পেয়েছি। কাজ করার জন্য দক্ষ লোকও আমাদের রয়েছে। শুধুমাত্র আমলাতান্ত্রিক সহায়তা থাকলেই ডিজিটাল বাংলাদেশ ভিশন ২০২১ এর আগেই বাস্তবায়িত হবে।

কায়মুন আমিন বলেন, পৃথিবীতে এখন ডিজিটাল সার্ভিসকে ছোট করে দেখার সুযোগ নেই। ডিজিটাল সার্ভিস এখন অর্থনীতির অংশ নয় নিজেই অর্থনীতি। অর্থনীতিতে বিশ্বে সবচেয়ে বেশি ডিজিটাল সার্ভিসে কন্ট্রিবিউশন আছে যুক্তরাজ্যের, যার পরিমাণ ১২.৪ শতাংশ। জি২০ দেশের মধ্যে সর্বনি¤œ স্থানে আছে ভারত। যার পরিমাণ ১.৫ শতাংশ। ডিজিটাল সার্ভিসের প্রভাব সবচেয়ে বেশি মিডিয়াতে পরিলক্ষিত হয়। ৭২ শতাংশ ডিজিটাল সার্ভিসের সঙ্গে সংযুক্ত হয় মিডিয়া।

বক্তারা বলেন, ডিজিটাল মার্কেটিং থেকে শুরু করে গুগল অ্যাপস স্টোরে কোন পেইড সার্ভিস উপভোগ করতে চাইলে তা ডলারে কিনতে হয়। আমাদের দেশের কয়জন মানুষের ডলারে লেনদেনের সুযোগ রয়েছে? যদি আমাদের দেশের অ্যাপস ডেভেলপারসরা এপিআই এক্সচেঞ্জ ব্যবহার করে ডলারে অ্যাপস কেনার সুযোগকে টাকায় রুপান্তর করে দিতে পারে তাহলে আমাদের দেশেও অ্যাপস স্টোরের একটি ভালো বাজার হবে। এতে সমৃদ্ধ হবে আমাদের অর্থনীতি।

সিস্টেম সল্যিউশন অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট টেকনোলজিসের প্রধান কার্যনির্বাহী মাহবুবুল মতিনের সঞ্চালনায় সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ভিইউ মোবাইলের প্রধান কার্যনির্বাহী এবং ব্যবস্থাপনা পরিচালক কায়মুন আমিন।

অন্যরা য়া পড়ছে...

Loading...



চেক

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওমরাহ পালন

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বৃহস্পতিবার রাতে এখানে পবিত্র …

জনগণ ছেড়ে বিদেশিদের কাছে কেন : ঐক্যফ্রন্টকে ওবায়দুল কাদের

গাজীপুর, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): শুক্রবার বিকেলে গাজীপুরের চন্দ্রায় ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়ক চার লেনে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

My title page contents