৭:৩৫ পূর্বাহ্ণ - বৃহস্পতিবার, ১৫ নভেম্বর , ২০১৮
Breaking News
Download http://bigtheme.net/joomla Free Templates Joomla! 3
Home / আন্তর্জাতিক / মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রীকে ধমকালেন

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রীকে ধমকালেন

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক, ০৩ ফেব্রুয়ারী ২০১৭ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): একটি শরণার্থী চুক্তি নিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী ম্যালকম টার্নবুলের  উত্তপ্ত বাক্যবিনিময় হয়েছে। বলা হচ্ছে, ট্রাম্প ক্ষমতাগ্রহণের পর কোনো রাষ্ট্রনায়কের সঙ্গে এটিই তার প্রথম সবচেয়ে বাজে আচরণ। খবর এনডিটিভির।

যুক্তরাষ্ট্রের এক জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা জানান, সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার সঙ্গে চুক্তিটি করেছিলেন অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী টার্নবুল। গত শনিবার তার সঙ্গে ফোনালাপকালে ট্রাম্পের বিরোধ বাধে এ চুক্তিকে কেন্দ্র করেই। দু নেতার ফোনালাপ এক ঘণ্টা স্থায়ী হওয়ার কথা থাকলেও মাত্র ২৫ মিনিটের মাথায় ট্রাম্প রেগে গিয়ে টার্নবুলকে এক প্রকার ধমক দিয়েই ফোন রেখে দেন।

কথা বলার একপর্যায়ে ট্রাম্প টার্নবুলকে বলেন, তিনি একইদিনে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনসহ চারজন বিশ্ব নেতার সঙ্গে কথা বলেছেন। কিন্তু এ পর্যন্ত এটিই হচ্ছে তার কাছে সবচেয়ে ‘জঘন্য’ ফোনালাপ।

ট্রাম্পের এই আচরণে মনে হচ্ছে, তিনি যুক্তরাষ্ট্রের ঘনিষ্ঠ মিত্রসহ বিশ্ব নেতাদের দমন করতে সক্ষম। রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ এবং গণমাধ্যমকে তিনি তার কথায় ও টুইটারে প্রায়ই তুলোধুনা করে ছাড়েন। অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ট্রাম্পের এ আচরণ তারই বহিঃপ্রকাশ।

তাদের ফোনালাপের মাত্র একদিন আগে যুক্তরাষ্ট্রে শরণার্থী প্রবেশে নিষেধাজ্ঞার পাশাপাশি সাতটি মুসলিম প্রধান দেশের নাগরিকদের ওপর ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞার নির্বাহী আদেশ দেন। অস্ট্রেলিয়ার বন্দিশালা থেকে এক হাজার ২৫০ জন শরণার্থী মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী গ্রহণ করবে কিনা তা নিশ্চিত হতে চেয়েছিলেন টার্নবুল। ট্রাম্প এ চুক্তিকে ‘এ যাবতকালের সবচেয়ে বাজে চুক্তি’  আখ্যা দিয়ে বলেন, অস্ট্রেলিয়া আগামী দিনের বোস্টন বোমা হামলাকারীদেরকে যুক্তরাষ্ট্রে পাঠানোর চেষ্টা করছে।

বৃহস্পতিবার এক টুইট বার্তায় ট্রাম্প  বলেন, ‘আপনাদের বিশ্বাস হয়? অস্ট্রেলিয়া থেকে হাজার হাজার অবৈধ অভিবাসী নিতে রাজি হয়েছিল ওবামা প্রশাসন। কেন? এই নির্বোধ চুক্তিটি আমি পড়ে দেখব।’

মার্কিন ঐ কর্মকর্তা আরও জানান, মেক্সিকোর প্রেসিডেন্টের এনরিক পেনা নিয়েতোসহ অন্যান্য বিশ্ব নেতাদের যেরকম আচরণ করেছেন অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে একই ধরনের আচরণ করেছেন। তবে টার্নবুলের সঙ্গে ট্রাম্পের এই আচরণ অবশ্য উল্লেখযোগ্য। কারণ এতে দু’দেশের দীর্ঘদিনের সম্পর্কে নেতিবাচক প্রভাব পড়বে। অস্ট্রেলিয়া-আমেরিকা একে অপরের সঙ্গে গোয়েন্দা তথ্য বিনিময়, কূটনৈতিকভাবে সমর্থন করে থাকে। ইরাক ও আফগানিস্তান যুদ্ধেও দুটি দেশ একসঙ্গে লড়াই চালিয়েছে।

ট্রাম্পের এই মেজাজ তার চরিত্রেরই বৈশিষ্ট্য। এভাবেই তিনি একটি প্রভাবশালী দেশের রাষ্ট্রপ্রধান হিসেবে কূটনৈতিক বিষয়গুলো সামলাবেন। রিয়েল এস্টেট ব্যবসায় পরিচালনা ও টেলিভিশনের রিয়েলিটি শোতে তিনি যেমন অনমনীয় আলোচনা কৌশল অবলম্বন করতেন এখন তাই করছেন।

অন্যরা য়া পড়ছে...

Loading...



চেক

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওমরাহ পালন

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বৃহস্পতিবার রাতে এখানে পবিত্র …

জনগণ ছেড়ে বিদেশিদের কাছে কেন : ঐক্যফ্রন্টকে ওবায়দুল কাদের

গাজীপুর, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): শুক্রবার বিকেলে গাজীপুরের চন্দ্রায় ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়ক চার লেনে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

My title page contents