৪:৫৮ অপরাহ্ণ - রবিবার, ১৮ নভেম্বর , ২০১৮
Breaking News
Download http://bigtheme.net/joomla Free Templates Joomla! 3
Home / অন্যান্য সংবাদ / আইন-আদালত / বাংলাদেশে স্টার জলসা, স্টার প্লাস ও জি বাংলার সম্প্রচারে বাধা নেই

বাংলাদেশে স্টার জলসা, স্টার প্লাস ও জি বাংলার সম্প্রচারে বাধা নেই

ঢাকা, ২৯ জানুয়ারী ২০১৭ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): আজ রবিবার বিচারপতি মইনুল ইসলাম চৌধুরী ও বিচারপতি জেবিএম হাসানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ নিজস্ব সংস্কৃতি হারিয়ে যাওয়া ও পারিবারিক সহিংসতা ছড়িয়ে পড়ার অভিযোগ এনে ভারতীয় তিন টিভি চ্যানেল স্টার জলসা, স্টার প্লাস ও জি বাংলার সম্প্রচার বন্ধ চেয়ে করা রিট খারিজ করে দিয়েছেন। এর ফলে বাংলাদেশের অভ্যন্তরে ভারতীয় এই তিন টিভি চ্যানেল সম্প্রচারে আরো কোনো বাধা নেই।

আবেদনের পক্ষে আদালতে উপস্থিত ছিলেন রিটকারী আইনজীবী মো. একলাছ উদ্দিন ভূইয়া। ভারতীয় তিন টিভি চ্যানেলের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী আব্দুল মতিন খসরু। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মোতাহার হোসেন সাজু।

রিটকারী আইনজীবী একলাছ উদ্দিন জানান, ‘দেশের স্বার্থে ও বিদেশি সংস্কৃতির অগ্রাসন বন্ধে রিট আবেদনটি করেছিলাম। কিন্তু আদালত আমাদের আবেদনটি খারিজ করে দিয়েছেন। এতে আমরা সংক্ষুব্ধ। এ রায়ের বিরুদ্ধে আমরা উচ্চ আদালতে (আপিল) যাব।’

মোতাহার হোসেন সাজু বলেন, ভারতীয় তিন টিভি চ্যানেল বন্ধ চেয়ে করা রিট আবেদনে যে রুল জারি করা হয়েছিল, সেই রুল ডিসচার্জ করে রিটকারীর বিপক্ষে রায় দিয়েছেন আদালত।

রিট খারিজের বিষয়ে তিনি বলেন, সম্প্রচারের ক্ষেত্রে কোনো অশ্লীল কোনো দৃশ্য থাকে, অথবা রাষ্ট্রীয় ও সামাজিক কোনো বিরোধ সৃষ্টি হলে সেই সমস্ত ক্ষেত্রে এই বিরোধী নিষ্পত্তির জন্য অভিযোগ কোথায় দায়ের হবে সেই বিষয়ে ক্যাবল নেটওয়ার্ক-২০০৬ আইনের  সেকশন-৭ ধারা অনুযায়ী আবেদন করতে পারে। ওই আইনের ৭ (২) ধারায় সাত দিনের মধ্যে তা নিষ্পত্তির জন্য বলা হয়েছ। যদি সুষ্পষ্টভাবে প্রমাণ হয় সেক্ষেত্রে সাজার বিধান রয়েছে। কিন্তু রিটকারী এই সব বিষয়ে কোনো ধরনের পদক্ষেপ না নিয়ে সরাসরি রিট আবেদন করেছেন। সেই কারণে রুল ডিসচার্জ হয়েছে। এছাড়া রিটকারীর রিটটি ইতিপূর্বে খারিজ হয়েছিল সেই বিষয়টি তিনি তার রিটে উল্লেখ করেন নাই।

আদালতের পর্যবেক্ষণের বিষয়ে রাষ্ট্রপক্ষের এই আইনজীবী বলেন, আদালত বলেছেন, আমাদের সংস্কৃতি, আমাদের ঐতিহ্য,আমাদের মাঝে বিদ্বেষ ছড়াতে পারে এই সব বিষয় সম্প্রচার করা যাবে না।

২০১৪ সালের ১৯ অক্টোবর এ রিট আবেদনের প্রাথমিক শুনানি নিয়ে ভারতীয় এই তিন টিভি চ্যানেল বন্ধে নির্দেশ কেন দেওয়া হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেন হাইকোর্টের ওই বেঞ্চ। রুলে তথ্যসচিব, স্বরাষ্ট্র সচিব, বিটিআরসি চেয়ারম্যান, বাংলাদেশ টেলিভিশনের মহাপরিচালকসহ সংশ্লিষ্টদের এ বিষয়ে জবাব দিতে বলা হয়।

এর আগে ডাক ও রেজিস্ট্রি যোগে এ বিষয়ে একটি আইনি নোটিশ পাঠানো হয়।

২০১৪ সালের ২ আগস্ট দৈনিক আমাদের সময় পত্রিকায় ‘পাখি প্রেমে প্রাণ বিসর্জন’ শিরোণামে একটি প্রতিবেদনও প্রকাশিত হয়। ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, ‘দেশের ঘরে-ঘরে বাড়ছে ভারতীয় ধারাবাহিক নাটকের জনপ্রিয়তা। এসব সিরিয়াল-প্রীতির কারণে দেশের টেলিভিশন চ্যানেলগুলো ক্রমেই দর্শক হারাচ্ছে, দেশ হারাচ্ছে নিজস্ব সংস্কৃতি। কিশোরি-তরুণীদের ফ্যাশনেও এর মারাত্মক নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে। সর্বশেষ, ভারতীয় টেলিভিশন চ্যানেল স্টার জলসার ‘বোঝে না সে বোঝে না’ সিরিয়ালের ‘পাখি’র প্রেমে প্রাণ গেল এক যুবক ও মেয়ে শিশুর।’ ‘পাখি চরিত্রে রূপদানকারী তরুণীর পোশাকের অনুকরণে এবার ‘পাখি’ নামের একটি পোশাক দেশের ঈদবাজারে জমজমাট ব্যবসা করেছে। ঈদে চড়া মূল্যের এ জামা নতুন স্ত্রীকে কিনে দিতে না পারার ব্যর্থতায় আত্মহত্যা করেছে প্রান্তিক শ্রেণির এক যুবক।

ঈদের আগের দিন বগুড়ার শেরপুর উপজেলার ভবানীপুর ইউনিয়নের নন্দতেঘরী গ্রামে শাহীন নামের ওই যুবক আত্মঘাতী হয়।

পাখির মরণকামড় থেকে ছাড় পায়নি দশ বছরের শিশুও। পাখি নামের পোশাক না পেয়ে অভিমানে ঈদের দু’দিন আগে গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে নূরজাহান নামে দ্বিতীয় শ্রেণীর এক স্কুল শিক্ষার্থী আত্মহত্যা করেছে। এ কারণেই সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে জনস্বার্থে ভারতীয় চ্যানেলে বন্ধ চেয়ে রিট করা হয় বলে জানিয়েছেন রিটকারী আইনজীবী।

অন্যরা য়া পড়ছে...

Loading...



চেক

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওমরাহ পালন

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বৃহস্পতিবার রাতে এখানে পবিত্র …

জনগণ ছেড়ে বিদেশিদের কাছে কেন : ঐক্যফ্রন্টকে ওবায়দুল কাদের

গাজীপুর, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): শুক্রবার বিকেলে গাজীপুরের চন্দ্রায় ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়ক চার লেনে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

My title page contents