৭:২৩ পূর্বাহ্ণ - বুধবার, ২১ নভেম্বর , ২০১৮
Breaking News
Download http://bigtheme.net/joomla Free Templates Joomla! 3
Home / রাজনীতি / আওয়ামী লীগ / বঙ্গবন্ধুর হত্যাকারীদের যারা পুরস্কৃত করেছেন তাদের সাথে আওয়ামী লীগের কখনও সংলাপ হতে পারে না : হানিফ

বঙ্গবন্ধুর হত্যাকারীদের যারা পুরস্কৃত করেছেন তাদের সাথে আওয়ামী লীগের কখনও সংলাপ হতে পারে না : হানিফ

ঢাকা, ১৬ জানুয়ারী ২০১৭ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): আজ বিকেলে রাজধানীর মতিঝিলের জনতা ব্যাংক ভবনের সামনে জনতা ব্যাংক কর্মচারী ইউনিয়নের উদ্যোগে বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস ও মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল-আলম হানিফ এমপি বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর হত্যাকারীদের যারা পুরস্কৃত করেছেন তাদের সাথে আওয়ামী লীগের কখনও সংলাপ হতে পারে না।

তিনি বলেন, ‘বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান বঙ্গবন্ধুর খুনীদের পুরস্কৃত করেছিলেন এবং তার স্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া বঙ্গবন্ধুর আত্মস্বীকৃত খুনি কর্নেল রশিদকে সংসদের বিরোধী দলীয় নেতা নির্বাচিত করেছিলেন।’

তিনি আরো বলেন, ‘তাই আওয়ামী লীগের সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে বিএনপি নেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার কোন সংলাপ অনুষ্ঠিত হতে পারে না।’

মাহবুব-উল-আলম হানিফ বলেন, দেশের সুশীল সমাজের কিছু সংখ্যক লোক বেগম খালেদা জিয়ার অপকর্মকে জায়েজ করার জন্য আওয়ামী লীগ সভাপতি এবং বিএনপি নেত্রীর মধ্যে সংলাপের কথা বলছেন।
তিনি বলেন, আইনের শাসনে বিশ্বাসীদের সাথে হত্যা, নাশকতা ও ষড়যন্ত্রকারীদের সাথে কখনও সংলাপ অনুষ্ঠিত হতে পারে না।
জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে রায় নিয়ে করা বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের মন্তব্যের জবাবে মাহবুব-উল-আলম হানিফ বলেন, মির্জা ফখরুল বেগম খালেদা জিয়ার দুর্নীতি সম্পর্কে জানেন বলেই এ মামলার রায় কি হবে তা তিনি জানতে পেরেছেন।

তিনি বলেন, তা না হলে বিচারাধীন এ মামলার রায় কি হবে তা কি করে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল জানতে পারলেন।

নারায়ণগঞ্জের আলোচিত সাত খুন মামলার রায় সম্পর্কে তিনি বলেন, এ মামলার রায়ের মাধ্যমে প্রমাণ হয়েছে দেশে আইনের শাসন বলবৎ রয়েছে। কেননা, মামলার ৩৫ আসামীর মধ্যে ২৬ জনের ফাঁসি হয়েছে এবং বাকীদের বিভিন্ন মেয়াদে কারাদন্ড হয়েছে।

বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস সম্পর্কে হানিফ বলেন, বঙ্গবন্ধুর দেশে ফেরার মধ্য দিয়ে দেশের স্বাধীনতা পূর্ণতা পায়। ১৯৭২ সালের ১০ জানুয়ারী দেশের লাখ লাখ মানুষ তাদের প্রিয় নেতা বঙ্গবন্ধুকে বরণ করে নিয়েছিলেন।

জনতা ব্যাংক কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি মো. রফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন অর্থ প্রতিমন্ত্রী আব্দুল মান্নান, আওয়ামী লীগের শ্রম বিষয়ক সম্পাদক হাবিবুর রহমান সিরাজ, জাতীয় শ্রমিক লীগের সভাপতি শুকুর মাহমুদ ও কার্যকরি সভাপতি ফজলুল হক মন্টু। সভায় প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন জাতীয় শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. সিরাজুল ইসলাম।

অন্যরা য়া পড়ছে...

Loading...



চেক

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওমরাহ পালন

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বৃহস্পতিবার রাতে এখানে পবিত্র …

জনগণ ছেড়ে বিদেশিদের কাছে কেন : ঐক্যফ্রন্টকে ওবায়দুল কাদের

গাজীপুর, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): শুক্রবার বিকেলে গাজীপুরের চন্দ্রায় ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়ক চার লেনে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

My title page contents