৭:০৭ অপরাহ্ণ - সোমবার, ১৯ নভেম্বর , ২০১৮
Breaking News
Download http://bigtheme.net/joomla Free Templates Joomla! 3
Home / জরুরী সংবাদ / অর্থনৈতিকভাবে সাবলম্বী করার মধ্য দিয়ে নারীর ক্ষমতায়নকে আরো সম্প্রসারণ করতে হবে : ডেপুটি স্পিকার

অর্থনৈতিকভাবে সাবলম্বী করার মধ্য দিয়ে নারীর ক্ষমতায়নকে আরো সম্প্রসারণ করতে হবে : ডেপুটি স্পিকার

fazlay rabbi    04.11.15ঢাকা, ০৫ নভেম্বর ২০১৫ (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): আজ বিকেলে রাজধানীর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে আয়োজিত দু’দিনব্যাপী সম্মেলন শেষ হয়েছে। সমাজভিত্তিক সংগঠনসমূহের জাতীয় সম্মেলনের সমাপনী দিনে প্রধান অতিথির ভাষণে  ডেপুটি স্পিকার মো. ফজলে রাব্বী মিয়া বলেছেন, অর্থনৈতিকভাবে সাবলম্বী করার মধ্য দিয়ে নারীর ক্ষমতায়নকে আরো সম্প্রসারণ করতে হবে।

তিনি বলেন, বিশেষ করে হাওর, চর ও উপকূলীয় অঞ্চলের বসবাসরত দরিদ্র নারীদের অধিকার ও প্রাপ্তি নিশ্চিত করা প্রয়োজন। এ ক্ষেত্রে জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন বর্তমান সরকার কাজ করছে।

তিনি প্রত্যন্ত অঞ্চলের দরিদ্র মানুষের অধিকার নিশ্চিত করতে জাতীয় পর্যায়ে এলাকাভিত্তিক উন্নয়ন পরিকল্পনা প্রণয়নের আশ্বাস দিয়েছেন।

অক্সফ্যাম ইন বাংলাদেশের কান্ট্রি ডিরেক্টর স্নেহাল ভি সোনাজীর সভাপতিত্বে সমাপনী অধিবেশনে আরো বক্তৃতা করেন জাতীয় আদিবাসী পরিষদের সভাপতি রবীন্দ্রনাথ সরেন, নারী প্রগতি সংঘের নির্বাহী পরিচালক রোকেয়া কবীর এবং সিবিও প্রতিনিধি রাশিদা বেগম, জয়া রাণী ও কোরবান আলী।

ডেপুটি স্পিকার বলেন, রাষ্ট্রীয়ভাবে অতিদরিদ্র জনগোষ্ঠীর জীবনধারণে সহযোগিতা করতে বিভিন্ন ধরণের উন্নয়নমূলক কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। সরকারের পাশাপাশি সমাজভিত্তিক সংগঠনসমূহ উন্নয়নের অংশ হিসেবে জলবায়ু পরিবর্তনে অভিযোজন, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা, অর্থনৈতিক ক্ষমতায়ন, নারীর নেতৃত্ব বিকাশ ও ক্ষমতায়ন, কৃষি বিষয়ক সেবা, কারিগরী সহায়তা নিশ্চিত করার উদ্যোগ নিয়েছে।

তিনি বলেন, কৃষকের ফসল উৎপাদন বাড়াতে ও ফসলের বিপনন নিশ্চিত করতে ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ পৌছে দিতে ও যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন করতে বাংলাদেশ সরকার নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে।

ফজলে রাব্বী মিয়া বলেন, উন্নয়ন প্রক্রিয়ায় বিপদাপন্ন প্রান্তিক নারী পুরুষের অংশগ্রহণ ব্যতিরেকে কার্যকর ও টেকসই উন্নয়ন সম্ভব নয়। এক্ষেত্রে সম্মেলনে যে উন্নয়ন উদ্যোগ ও সফলতার দৃষ্টান্ত উপস্থাপন করেছে তা সত্যিই প্রসংশার দাবিদার।

তিনি বলেন, বিশেষ করে দুর্গম ও পিছিয়ে পড়া অঞ্চলে তৃণমূল সমাজভিত্তিক গণসংগঠনসমূহের কাজের অভিজ্ঞতা ও অর্জিত সফলতা আগামীতে বিশেষ কাজে আসবে। আর পারস্পরিক আলোচনার মাধ্যমে গৃহীত সুপারিশ জাতীয় পরিকল্পনা প্রণয়নে বড় ধরণের ভূমিকা রাখবে। তিনি এই সুপারিশ বাস্তবায়নে জাতীয় সংসদের পক্ষ থেকে প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণের আশ্বাস দেন।

এরআগে সম্মেলনের তিনটি অধিবেশনে, সংশ্লিষ্ট বিশেষজ্ঞ, সরকারী-বেসরকারী কর্মকর্তা ও বিভিন্ন অঞ্চলের প্রতিনিধিদের উপস্থিতিতে দীর্ঘ আলোচনার মাধ্যমে ১৬ দফা সুপারিশমালা প্রণয়ন করা হয়। সুপারিশে কৃষিখাতে সংশ্লিষ্ট নারীদের কৃষক হিসেবে স্বীকৃতি প্রদান ও তাদের সক্ষমতা বৃদ্ধি, খাসজমি ও জলা-জঙ্গলে নারীদের প্রবেশাধিকার বাড়ানো, হাওর ও উপকূল অঞ্চলে স্কুলে যাতায়াতের জন্য বিশেষ নৌ ব্যবস্থা চালু এবং কৃষি উৎপাদন, পশুপালন ও মৎস্য চাষকে উৎসাহিত করতে স্বল্প সুদে ঋণের ব্যবস্থা করার দাবি জানানো হয়।

অন্যরা য়া পড়ছে...

Loading...



চেক

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওমরাহ পালন

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বৃহস্পতিবার রাতে এখানে পবিত্র …

জনগণ ছেড়ে বিদেশিদের কাছে কেন : ঐক্যফ্রন্টকে ওবায়দুল কাদের

গাজীপুর, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): শুক্রবার বিকেলে গাজীপুরের চন্দ্রায় ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়ক চার লেনে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

My title page contents