৯:২৪ পূর্বাহ্ণ - বুধবার, ১৪ নভেম্বর , ২০১৮
Breaking News
Download http://bigtheme.net/joomla Free Templates Joomla! 3
Home / রাজনীতি / অন্যান্য দলের খবর / নির্বাচন কমিশন গঠন নিয়ে রাষ্ট্রপতিকে মোট নয়টি প্রস্তাব দিয়েছে ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বাধীন গণফোরাম

নির্বাচন কমিশন গঠন নিয়ে রাষ্ট্রপতিকে মোট নয়টি প্রস্তাব দিয়েছে ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বাধীন গণফোরাম

ঢাকা, ০৮ জানুয়ারী ২০১৭ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): নির্বাচন কমিশন গঠন নিয়ে রাষ্ট্রপতিকে মোট নয়টি প্রস্তাব দিয়েছে ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বাধীন গণফোরাম। নির্বাচন কমিশনের পাশাপাশি নির্বাচনকালীন সরকার ও প্রশাসনের নিরপেক্ষতা নিশ্চিতের তাগিদও দিয়েছে দলটি।

নির্বাচন কমিশন গঠন নিয়ে বিভিন্ন দলের সঙ্গে রাষ্ট্রপতির ধারাবাহিক সংলাপের অংশ হিসেবে বিকালে বঙ্গভবনে গণফোরামের সঙ্গে বৈঠক করেন রাষ্ট্রপতি। বিকাল পৌনে চারটার দিকে গণভবনে ঢুকেন কামাল হোসেনের নেতৃত্বে গণফোরামের প্রতিনিধি দল। প্রায় এক ঘণ্টা বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন কামাল হোসেন। নির্বাচনকালীন প্রশাসনের নিরপেক্ষতা নিশ্চিত করার তাগিদ দিয়ে গণফোরাম নেতা বলেন, ‘আম্পায়ার যদি নিরপেক্ষ না থাকে তাহলে খেলা হয়?’ তিনি বলেন, ‘নির্বাচনকালীন সরকার ও প্রশাসন নিরপেক্ষ ভূমিকায় থাকতে হবে। ২০০৮ সালের মতো জনগণের ভোটাধিকার প্রতিষ্ঠা করতে হবে। আমরা যে জনগণের শাসন প্রতিষ্ঠা করতে পারি।’

রাষ্ট্রপতিকে কী বলেছেন, জানতে চাইলে কামাল হোসেন বলেন, ‘নির্বাচন কমিশন আইনে কী কী বিধান করা প্রয়োজন সে বিষয়ে আমরা বলেছি। সার্চ কমিটি গঠনে আমরা কোন নাম প্রস্তাব করিনি। তবে ক্যাটাগরি বলেছি।’

সংবিধানের ১১৮ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী আইন ছাড়া এতদিন নির্বাচন কমিশন গঠন করা সংবিধানের লংঘন হয়েছে কি না, জানতে চাইলে সংবিধানের অন্যতম প্রণেতা বলেন, ‘যদি তারা অবাধ, নিরপেক্ষভাবে সাংবিধানিক দায়িত্ব পালন না করে থাকে তাহলে অবশ্যই ব্যতয় ঘটেছে। সেটা জনগণ বিচার করুক।’

প্রতিনিধি দলে আরও ছিলেন গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফা মোহসীন মন্টু, নির্বাহী সভাপতি সুব্রত চৌধুরী, সভাপতি পরিষদ সদস্য তোবারক হোসেন, জগলুল হায়দার আফ্রিক, আ ও ম শফিক উল্ল্যা, সগীর আনোয়ার, মোশতাক আহমেদ, অধ্যাপক বিলকিস বানু, মহিউদ্দিন কাদের, মফিজুল ইসলাম খান কামাল, এস এম আলতাফ হোসেন, শান্তিপদ ঘোষ, নৃপেন  ঘোষ।

গণফোরামের নয় প্রস্তাব

১. নির্বাহী বিভাগের প্রভাব ও হস্তক্ষেপমুক্ত স্বাধীন, শক্তিশালী ও কার্যকর নির্বাচন কমিশন গঠনকল্পে প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও নির্বাচন কমিশনার নিয়োগের পাশাপাশি নির্বাচন কমিশন গঠনে আইন করতে হবে।

২. সততা, দক্ষতা, নিরপেক্ষতা ও আইনি জ্ঞানসম্পন্ন ব্যক্তিদের মধ্য হতে প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও কমিশনারদেরকে নিয়োগ করতে হবে। প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও কমিশনার নিয়োগের ক্ষেত্রে যোগ্যতার অগ্রাধিকার যাচাই বাছাইয়ের জন্য পাঁচ সদস্যের অনুসন্ধান কমিটি গঠন। প্রধান বিচারপতি কর্তৃক মনোনীত আপিল বিভাগের একজন বিচারপতিকে কমিটির সভাপতি কওে শিক্ষাবিদ, একজন নারী, সংখ্যালঘু সম্প্রদায় এবং গণমাধ্যমের একজন প্রতিনিধিকে এই কমিটিতে রাখা।

৩. নির্বাচন কমিশন আর্থিকভাবে স্বাধীন রাখতে জাতীয় বাজেটে নির্বাচন কমিশনের জন্য বরাদ্দ নিশ্চিত করা।

৪. নির্বাচন কমিশন সচিবালয় নির্বাহী বিভাগ থেকে আলাদা করা। কমিশনই সচিবালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারী নিয়োগ দেবে।

৫. নির্বাচন কমিশন নিরপেক্ষতা যাচাই-বাছাই করে রির্টানিং অফিসার, প্রিজাইডিং অফিসার ও পোলিং অফিসার নিয়োগ করবেন। এদের কর্মকান্ডে কোন প্রকার ব্যতয় ঘটলে, নির্বাচন কমিশন তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারবে এবং নির্বাচন কমিশনের সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত বলে গণ্য হবে।

৬. নির্বাচন কমিশন আইন শৃঙ্খলা বাহিনী ও প্রতিরক্ষা বাহিনীর সদস্যদের নিয়োগের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবে।

৭. নির্বাচনী বিধি প্রণয়ন ও বাস্তবায়নের পূর্ণ ক্ষমতা নির্বাচন কমিশনের উপর ন্যস্ত থাকবে।

৮. মনোনয়নপত্রের সাথে হলফনামা সহকারে প্রার্থীর দাখিল করা তথ্য নির্বাচন কমিশন ওয়েবসাইটে প্রকাশ ও সংশ্লিষ্ট নির্বাচনী এলাকার ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে টানিয়ে দেয়। কোন প্রার্থী ভুল ও মিথ্যা তথ্য প্রদান করলে, প্রার্থী হওয়ার যোগ্যতা, ক্ষেত্রমত সদস্য পদ বাতিল করা।

৯. নির্বাচন কমিশন কর্তৃক নির্ধারিত সময়সীমার মধ্যে প্রার্থীরা নির্বাচনী ব্যয়ের বিবরণ দাখিল না করলে এবং আইনে নির্ধারিত ব্যয় সীমা অতিক্রম করেছেন প্রমাণ হলে সংসদ সদস্য পদ বাতিল হবে।

অন্যরা য়া পড়ছে...

Loading...



চেক

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওমরাহ পালন

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বৃহস্পতিবার রাতে এখানে পবিত্র …

জনগণ ছেড়ে বিদেশিদের কাছে কেন : ঐক্যফ্রন্টকে ওবায়দুল কাদের

গাজীপুর, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): শুক্রবার বিকেলে গাজীপুরের চন্দ্রায় ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়ক চার লেনে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

My title page contents