৬:৩০ অপরাহ্ণ - শুক্রবার, ১৬ নভেম্বর , ২০১৮
Breaking News
Download http://bigtheme.net/joomla Free Templates Joomla! 3
Home / জরুরী সংবাদ / সরকারি দল ঢাকাঢোল পিটিয়ে সভা সমাবেশ করলেও বিরোধী দলের বেলায় যত বিপত্তি : রিজভী

সরকারি দল ঢাকাঢোল পিটিয়ে সভা সমাবেশ করলেও বিরোধী দলের বেলায় যত বিপত্তি : রিজভী

ঢাকা, ০৬ জানুয়ারী ২০১৭ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): আজ শুক্রবার নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রুহুল কবির রিজভী আহমেদ বলেছেন, সরকারি দল যেকোনো স্থানে সমাবেশের অনুমতি চাইলে পুলিশ তা দেয়। কিন্তু বিএনপিকে সমাবেশের অনুমতি দিচ্ছে না।

তিনি বলেছেন, সরকার বিরোধী দলের গণতান্ত্রিক অধিকার হরণ করে দেশকে একদলীয় শাসনের দিকে নিয়ে যাচ্ছে। ‘গণতন্ত্র হত্যা দিবস’ উপলক্ষে শনিবার বিএনপি সমাবেশ করতে চেয়েছিল। সমাবেশের প্রস্তুতিও চূড়ান্ত করেছে। কিন্তু পুলিশ এখন পর্যন্ত অনুমতি দেয়নি বলে জানান রিজভী।

২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নেয়নি বিএনপিসহ নিবন্ধিত ৩০টি রাজনৈতিক দল। এ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থীরা ১৫৪টি আসনে বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়ে সরকার গঠন করে দলটি। এরপর থেকে এ দিনটিকে ‘গণতন্ত্র হত্যা দিবস’ বলে আখ্যা দিয়ে কর্মসূচি পালন করছে বিএনপি। তবে, ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ প্রতিবছর এ দিনটিকে ‘গণতন্ত্রের বিজয় দিবস’ হিসেবে পালন করে আসছে।

গত দুই বছর অনুমতি না পেয়ে ‘গণতন্ত্র হত্যা দিবস’ পালন করতে গিয়ে পুলিশি বাধার মুখে সংঘর্ষে জড়ায় বিএনপির নেতাকর্মীরা। একই ধারাবাহিকতায় এ বছরও রাজধানীতে ‘গণতন্ত্র হত্যা দিবস’ পালন করার জন্য পুলিশের অনুমতি চেয়ে এখন পর্যন্ত সমাবেশের অনুমতি পায়নি বিএনপি।

‘সরকার এক চোখা নীতিতে চলছে’ অভিযোগ করে রিজভী আহমেদ বলেন, ‘সরকারি দল ঢাকাঢোল পিটিয়ে সভা সমাবেশ করলেও বিরোধী দলের বেলায় যত বিপত্তি। সরকারি দল কোনো প্রোগ্রাম করলে ডিএমপি অনুমতি দেয়। কিন্তু বিএনপি করতে গেলেই যত সমস্যা তৈরি করে।’

বড় সমাবেশ করতে গেলে অনেক প্রস্তুতির বিষয় থাকে উল্লেখ করে রিজভী বলেন, ‘২৪-৩২ ঘণ্টা সময় না দিলে একটা প্রোগ্রাম ভালোভাবে করা যায় না। কিন্তু সরকারদলীয় প্রোগ্রামে তাড়াতাড়ি অনুমতি দিলেও বরাবর বিএনপির জন্য সময়ক্ষেপণ করে আসছে প্রশাসন।’ এসময় এই মুহূর্তে বিএনপি’র সমাবেশের জন্য অনুমতি দেয়ার আহ্বান জানান দলটির এই মুখপাত্র।

সমাবেশের অনুমতি না দেয়া হলে পরবর্তী কর্মসূচি কী হবে এমন প্রশ্নের জবাবে রিজভী আহমেদ বলেন, ‘৭ জানুয়ারি ডিএমপি থেকে অনুমতি না দিলে নেতারা বৈঠকের মাধ্যমে সে বিষয়ে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেবেন।’

গাইবান্ধার সাংসদ লিটন হত্যাকাণ্ডের অভিযোগ বিরোধী দলের ওপর চাপানোর সমালোচনা করে বিএনপির এ নেতা বলেন, ‘সম্প্রতি ক্ষমতাসীন দলের সংসদ সদস্য মঞ্জুরুল ইসলাম লিটনের ভাই ও বউয়ের কথায় অন্য কিছু বোঝাচ্ছে। কিন্তু তদন্ত ছাড়াই সরকার বিরোধী দলের ওপর দোষারোপ করার অভ্যাস হয়ে গেছে তাদের। হত্যার দায় তদন্ত ছাড়াই সরকারের পক্ষ থেকে বিরোধীদলের ওপর চাপানো হচ্ছে।’

গুলশানে ডিএনসিসি মার্কেটে আগুন লাগানো হয়েছে পরিকল্পিতভাবে এমন অভিযোগ করে রিজভী বলেন, ‘ডিএনসিসি মার্কেটে আগুনের ঘটনায় সরকার জড়িত। ডিএনসিসি মার্কেটের ব্যবসায়ীসহ সব মহলের দাবিকে পাশ কাটিয়ে এবং কোনো ধরনের তদন্ত ছাড়াই ডিএনসিসি মেয়র বলছেন আগুন লাগার ঘটনা নাশকতা নয়, একটি দুর্ঘটনা, পরে তিনি এই বক্তব্য প্রত্যাহার করে নেন।’ দুর্ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত বাধাগ্রস্ত করতে এই বক্তব্য দেয়া হয়েছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

ডিএনসিসি মার্কেটের অগ্নিকাণ্ডের সঙ্গে শাসকদলের যোগসূত্র আছে দাবি করে বিএনপির এ নেতা বলেন, ‘সরকারের অপকর্ম বা ব্যর্থতাকে আড়াল করতেই অপরের ওপর দোষ চাপানো হচ্ছে। মার্কেটটি আত্মসাৎ করার জন্য ডিএনসিসি মার্কেটে আগুন লাগার ঘটনা একটি পরিকল্পিত নাশকতা।’

অন্যরা য়া পড়ছে...

Loading...



চেক

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওমরাহ পালন

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বৃহস্পতিবার রাতে এখানে পবিত্র …

জনগণ ছেড়ে বিদেশিদের কাছে কেন : ঐক্যফ্রন্টকে ওবায়দুল কাদের

গাজীপুর, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): শুক্রবার বিকেলে গাজীপুরের চন্দ্রায় ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়ক চার লেনে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

My title page contents