১:৩৩ অপরাহ্ণ - বুধবার, ১৪ নভেম্বর , ২০১৮
Breaking News
Download http://bigtheme.net/joomla Free Templates Joomla! 3
Home / জরুরী সংবাদ / ‘লাভ অ্যান্ড গড’ ছবি তৈরিতে সময় লেগেছিল ২৩ বছর

‘লাভ অ্যান্ড গড’ ছবি তৈরিতে সময় লেগেছিল ২৩ বছর

বিনোদন ডেস্ক, ০৫ জানুয়ারী ২০১৭ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): হিন্দির ছবির ইতিহাসে এমন ছবি রয়েছে যেটি বানাতে সময় লেগেছিল প্রায় আড়াই দশকের কাছাকাছি সময়। এমনকী ছবিটি মুক্তি পাওয়ার আগেই মারা গিয়েছিলেন ছবির দুই নায়ক।

ছবির কাজ শুরু হয়েছিল যে নায়ককে নিয়ে তিনি হঠাৎই মারা যান। তার জায়গায় নেওয়া হয় অন্য আরেকজনকে। তিনিও ছবি মুক্তি পাওয়ার আগেই মৃত্যুবরণ করেন। ছবির কাজ শেষ হওয়ার আগে প্রয়াত হয়েছিলেন পরিচালক নিজেই। সেই ছবিটির নাম ‘লাভ অ্যান্ড গড’।

পরিচালক কে আসিফ ১৯৬৩ সালে লায়লা এবং কাইসের বিখ্যাত আরবি প্রেম-কাহিনি নিয়ে ‘লাভ অ্যান্ড গড’ নামে একটি ছবি তৈরি করা শুরু করেন।

ছবির প্রথম নায়ক ছিলেন গুরু দত্ত। আর নায়িকা ছিলেন নিম্মি।

শুটিং চলাকালীন ১৯৬৪ এর ১০ অক্টোবর প্রয়াত হন ছবির নায়ক গুরু দত্ত। বন্ধ হয়ে যায় ছবির কাজ।

ছবিটি অন্য নায়ককে দিয়ে ফের শুরু করার সিদ্ধান্ত নেন আসিফ। নায়ক খোঁজা শুরু হয়। ১৯৭০ সালে নায়কের চরিত্রের জন্য সঞ্জীব কুমারকে রাজি করানো হয়। আবার শুরু হয় শুটিং।

ছবির কাজ ভালই এগোচ্ছিল। তবে ছবির কাজ অসমাপ্ত রেখেই ১৯৭১ সালের ৯ মার্চ মারা যান ছবির পরিচালক কে আসিফ।

তার মারা যাওয়ার ১৫ বছর পর পরিচালকের স্ত্রী আখতার আসিফ ‘লাভ অ্যান্ড গড’ ছবিটির কাজ শেষ করার ক্ষেত্রে উদ্যোগী হন।

পরিচালক, প্রযোজক এবং চিত্র-পরিবেশক কে সি বোকাড়িয়াকে সঙ্গে করে শুট হওয়া ভিডিও নিয়ে পোস্ট প্রোডাকশন শুরু করেন আখতার।

ছবি মুক্তি পাওয়ার আগেই ১৯৮৫ সালে মারা যান ছবির নায়ক সঞ্জীব কুমার। ছবির কাজ শুরু হওয়ার ২৩ বছর পর ‘লাভ অ্যান্ড গড’ মুক্তি পায় ১৯৮৬ সালে। সৌজন্যে ঢাকাটাইমস

অন্যরা য়া পড়ছে...

Loading...



চেক

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওমরাহ পালন

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বৃহস্পতিবার রাতে এখানে পবিত্র …

জনগণ ছেড়ে বিদেশিদের কাছে কেন : ঐক্যফ্রন্টকে ওবায়দুল কাদের

গাজীপুর, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): শুক্রবার বিকেলে গাজীপুরের চন্দ্রায় ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়ক চার লেনে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

My title page contents