১১:৫৬ অপরাহ্ণ - শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর , ২০১৮
Breaking News
Download http://bigtheme.net/joomla Free Templates Joomla! 3
Home / রাজনীতি / অন্যান্য দলের খবর / আমাদের দেশে এখনও গণতন্ত্রের মধ্যে স্বৈরতন্ত্র নিহিত : সুজন সভাপতি এম হাফিজ উদ্দিন খান

আমাদের দেশে এখনও গণতন্ত্রের মধ্যে স্বৈরতন্ত্র নিহিত : সুজন সভাপতি এম হাফিজ উদ্দিন খান

ঢাকা, ২০ ডিসেম্বর, ২০১৬ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): আজ মঙ্গলবার রাজধানীর ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাগর রুনি মিলনায়তনে ‘আসন্ন জেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী চেয়ারম্যান প্রার্থীদের তথ্য উপস্থাপন’ শীর্ষক সংবাদ সম্মেলনে সুশাসনের জন্য নাগরিকের (সুজন) সভাপতি এম হাফিজ উদ্দিন খান বলেছেন, আমাদের দেশে এখনও গণতন্ত্রের মধ্যে স্বৈরতন্ত্র নিহিত।

তিনি বলেছেন, আমরা গণতন্ত্রের পথে অনেকটা অগ্রসর হয়েছি। গণতন্ত্রের শর্ত হচ্ছে সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন। তবে আমাদের দেশে তা কতটুকু আছে তা গণমাধ্যমে দেখছি।

১৮৮৫ সালে দি বেঙ্গল সেলফ গভর্নমেন্ট অ্যাক্টের আওতায় তিন স্তর বিশিষ্ট স্থানীয় সরকারের গোড়াপত্তন হয়, এর মধ্যে ‘জেলা বোর্ড’ নামে আজকের জেলা পরিষদ যাত্রা শুরু করে। ১৯৮৮ সালে এরশাদ সরকার জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নিয়োগ দেয়। পরে বিএনপি এসে তা বাতিল করে। পরবর্তী সময়ে আওয়ামী লীগ সরকারের ২০০০ সালের প্রণীত আইনে ২০১১ সালে জেলা পরিষদের প্রশাসক নিয়োগ দেয়া হয়। এই আইনের আওতায় আগামী ২৮ তারিখ জেলা পরিষদ নির্বাচন হতে যাচ্ছে।

সংবাদ সম্মেলনে হাফিজ উদ্দিন বলেন, ‘আমাদের বড় ধরনের সংস্কার দরকার। সংসদ সদস্যরা প্রতিটি স্থানীয় সরকারের উপদেষ্টা। এর মাধ্যমে স্থানীয় প্রশাসনকে কুক্ষিগত করে রাখা হয়েছে। যা গণতন্ত্র বিকাশে প্রধান অন্তরায়। এতে করে জনপ্রতিনিধিদের দায়বদ্ধতা থাকে না।’

সুজনের তথ্য অনুযায়ী, নির্বাচনে অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে ১ দশমিক ২৬ শতাংশের বিরুদ্ধে বর্তমানে ৩০২ ধারায় মামলা রয়েছে। আর ২ ভাগ প্রার্থীর বিরুদ্ধে আগেই মামলা ছিল। প্রায় ২৫ ভাগ প্রার্থীর বিরুদ্ধে কোনো না কোনো সময় মামলা ছিল বা আছে। প্রায় ৯ ভাগ প্রার্থী এখনও ঋণ গ্রহীতা। এরমধ্যে ৩৫ ভাগ প্রার্থী কোটি টাকার বেশি ঋণের বোঝায় ডুবে আছেন।

প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের মধ্যে প্রায় ৯ ভাগ কৃষক, ৫৬ ভাগ ব্যবসায়ী ও প্রায় ১৫ ভাগ আইন পেশার সঙ্গে জড়িত। প্রার্থীদের ৩০ ভাগের সম্পদ পাঁচ লাখের নিচে আর কোটি টাকার উপরে সম্পদের মালিক রয়েছেন ১৪ ভাগ প্রার্থী।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন সুজনের কেন্দ্রীয় সমন্বয়কারী দিলীপ কুমার সরকার। লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, ‘আসন্ন জেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী ১৪৯ চেয়ারম্যান প্রার্থীর মধ্যে তিনজনের কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি। বাকি ১৪৬ জন প্রার্থীর মধ্যে ১০ ভাগ প্রার্থীই হাইস্কুলের গণ্ডি পার হতে পারেননি। এদের মধ্যে ৫ ভাগ প্রার্থী মাত্র এসএসসি পাস করেছে। তবে স্নাতক বা স্নাতকোত্তর পাস করা প্রার্থীর সংখ্যা ৭০ ভাগ।’

দিলীপ কুমার বলেন, ‘জেলা পরিষদের নির্বাচকমণ্ডলীর বেশির ভাগ ক্ষমতাশীন দল থেকে নির্বাচিত হওয়ায় অন্য দলের প্রার্থীদের জয়ের সম্ভাবনা কম থাকায় তারা প্রার্থী হতে আগ্রহ দেখাননি। সুতরাং এই নির্বাচনকে ব্যাপক প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ বলার কোনো সুযোগ নেই।’ ইতোমধ্যেই ২২ জেলার চেয়ারম্যান বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

ভবিষ্যতে জেলা পরিষদ নির্বাচনের জন্য সুজনের পক্ষ থেকে কিছু সুপারিশও করা হয়। সেগুলো হলো- নির্বাচকমণ্ডলীর পরিবর্তে সরাসরি জনগণের ভোটে জেলা পরিষদ নির্বাচনের ব্যবস্থ্যা করা; সংসদ সদস্যদের জেলা পরিষদের উপদেষ্টার বিধান পরিবর্তন করা; চেয়ারম্যানসহ জেলা পরিষদের সদস্যদের আদালত কর্তৃক দোষী সাব্যস্ত হওয়ার পূর্বেই সাময়িক বরখাস্ত করার বিধান বাতিল করা ইত্যাদি।

অন্যরা য়া পড়ছে...

Loading...



চেক

বিকল্পের সন্ধানে কোটা বাতিলের প্রজ্ঞাপনে দেরি হচ্ছে : ওবায়দুল কাদের

ঢাকা, ১৩ মে ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঘোষণা অনুযায়ী সরকারি চাকরিতে কোটা …

স্যাটেলাইট মহাকাশে ঘোরায় বিএনপির মাথাও ঘুরছে : মোহাম্মদ নাসিম

ফেনী, ১৩ মে ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ মহাকাশে উৎক্ষেপণ হওয়ায় বিএনপির মাথাও ঘুরছে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

My title page contents