১:২৭ অপরাহ্ণ - সোমবার, ১৯ নভেম্বর , ২০১৮
Breaking News
Download http://bigtheme.net/joomla Free Templates Joomla! 3
Home / জরুরী সংবাদ / জনগণের ভোটের অধিকার রক্ষা ও প্রতিষ্ঠার জন্য নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেছি : সাখাওয়াত

জনগণের ভোটের অধিকার রক্ষা ও প্রতিষ্ঠার জন্য নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেছি : সাখাওয়াত

নারায়ণগঞ্জ, ২০ ডিসেম্বর, ২০১৬ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনের প্রচার শেষ পর্যায়ে। আজ মধ্যরাতে শেষ হচ্ছে প্রচার। প্রার্থীরা ঘুরছেন ভোটারদের দুয়ারে দুয়ারে। দম ফেলানোর সুযোগ নেই। সোমবার বিএনপি প্রার্থী সাখাওয়াত হোসেন খানের সঙ্গে সারাবেলা কাটিয়েছেন এই প্রতিবেদক।

এদিন সাখাওয়াত হোসেন নগরীর ৮,৯ ও ১০নং ওয়ার্ডে গণসংযোগ করেন। ভোটারদের দুয়ারে দুয়ারে গিয়ে ধানের শীষ প্রতীকে ভোট চান ও দোয়া চান। রাস্তায় যাকে পেয়েছেন তাকেই জড়িয়ে ধরেছেন।পরিবর্তনের পক্ষে রায় দিতে অনুরোধ জানিয়েছেন।

ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে জয়ী হবেন এমন আশাবাদ ব্যক্ত করে সাখাওয়াত হোসেন বলেন, ‘জনগণের ভোটের অধিকার রক্ষা ও প্রতিষ্ঠার জন্য নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেছি। জনগণ পরিবর্তনের জন্য মুখিয়ে আছে।’

নির্বাচনের আনুষ্ঠানিক প্রচার শুরু হওয়ার পর থেকে বিরামহীন গণসংযোগ করে যাচ্ছেন ধানের শীষের এই প্রার্থী। প্রতিদিন খুব সকালে ঘুম থেকে উঠেন। দ্রুত সারাদিনের ব্যস্ত শিডিউলে একটু চোখ বুলিয়ে নেন। নাস্তা খেতে খেতে  তিনি  প্রয়োজনীয় ফোন সারেন। সকাল আটটায় দুই চারজনকে সঙ্গে নিয়ে শুরু করেন সারাদিনের কর্মব্যস্ত দিন। তবে আস্তে আস্তে বাড়তে থাকে তার সঙ্গী। এ সময় দলীয় নেতাকর্মীদের বেষ্টনীর মধ্যে পড়ে যান তিনি।

সোমবার সকাল থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত সাখাওয়াত হোসেন ৮, ৯ ও ১০ নং ওয়ার্ডের  গোদনাইল, ২নং ঢাকেশ্বরী,  মীরপাড়া, কুলুপাড়া, আরামবাগ,  পাঠানঠুলি, লক্ষ্মীনারায়ণ কটন মিলস কলোনিসহ এনায়েতনগরে একটানা গণসংযোগ করেন। এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন বিএনপি’র থানা ও জেলার নেতারা।

সাখাওয়াত হোসেন খান ৮নং ওয়ার্ডে গণসংযোগকালে গণমাধ্যমকর্মীদের সঙ্গে কথা বলেন। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘জনগণ ভোট দিতে পারলে ধানের শীষ জয়ী হবে। এই এলাকা বিএনপি অধ্যুষিত। এখানে মানুষ ধানের শীষকে ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করবে। আমরাও চাই অবাধ-শান্তিপূর্ণ একটি নির্বাচন।’

৮নং ওয়ার্ডে মেয়র প্রার্থীর আসায় প্রচুর বিএনপি সমর্থক ও কর্মী ভিড় জমায়। এক দুইজন করে আসতে আসতে এক সময় সাখাওয়াতের পেছনে জনস্রোত বাড়তে থাকে।

আরামবাগ বাজারের পাশেই ডা. গাজী আরফানুল হকের ছোট ওষুধের দোকান। এখানে সাখাওয়াত হোসেন যখন গণসংযোগ করছিলেন তখন কথা হয় তার সঙ্গে। ঢাকাটাইমসকে তিনি বলেন, ‘আমরা মার্কা-টার্কা বুঝতে চাই না। উন্নয়নের রাজনীতিতে যে ভালো কাজ করবেন,  তাকেই বেছে নেবে জনগণ।’

গণসংযোগের পেছনের সারিতে হাঁটতে হাঁটতে কথা হলো বিএনপি সর্মথক আশফাক মাহমুদের সাথে। তার প্রত্যাশার কথা জনতে চাইলে তিনি বলেন, এ এলাকার শান্তি প্রতিষ্ঠা ও মাদকমুক্ত করা জরুরি। এজন্যই সিটি করপোরেশনে জনপ্রতিনিধি  পরিবর্তনও প্রয়োজন। তিনি জানালেন, বিএনপির নেতাকর্মীরা সাখাওয়াত হোসেনের সঙ্গে ঐক্যবদ্ধভাবেই আছেন। তাকে জেতাতে সবাই কাজ করছেন।

৮, ৯ ও ১০ নং ওয়ার্ডে বিরতিহীনভাবে একটানা গণসংযোগ করে দুপুর আড়াইটায় সাখাওয়াত হোসেন সোজা নির্বাচনী মিডিয়া সেলে আসেন। এখানেই বেলা তিনটায় সংবাদ সম্মেলনে তাঁর ২৫ দফার নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা করেন।

নারায়ণগঞ্জ সিটি নির্বাচনে আনুষ্ঠানিক প্রচার শেষ হচ্ছে আজ মধ্যরাতে। রাত ১২টার পর আর কোনো প্রচার চালাতে পারবেন না কোনো প্রার্থী বা তার সমর্থকেরা। বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত হবে ভোটগ্রহণ। ইতোমধ্যে ভোটগ্রহণের প্রস্তুতি নিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। সৌজন্যে ঢাকাটাইমস

অন্যরা য়া পড়ছে...

Loading...



চেক

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওমরাহ পালন

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বৃহস্পতিবার রাতে এখানে পবিত্র …

জনগণ ছেড়ে বিদেশিদের কাছে কেন : ঐক্যফ্রন্টকে ওবায়দুল কাদের

গাজীপুর, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): শুক্রবার বিকেলে গাজীপুরের চন্দ্রায় ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়ক চার লেনে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

My title page contents