সভায় বেশকিছু গুরুত্ব পূর্ন সিদ্ধান্ত গৃহীত হয় । সভায় অনলাইন মিডিয়া সমুহের মধ্যে মতবিনিময় ও যোগাযোগ বৃদ্ধির উপর গুরুত্ব আরোপ করা হয়। সে লক্ষ্যকে সামনে রেখে আগামী ১২ই জানুয়ারী ২০১৭ তারিখে জাতীয় প্রেসক্লাবে ‘অনলাইন মিডিয়া জাতীয় সন্মেলন’ অনুষ্ঠানের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। বর্তমান সরকারের ডিজিটাল বাংলাদেশ বির্নিমানের র্কমসূচীর সাথে একাত্ব প্রকাশ করে বলা হয়, সরকারের উদার মনোভাবের জন্য স্বল্প মূলে ইন্টারনেট সেবাসহ পাচ্ছি। মিডিয়া বান্ধব পরিবেশের জন্য অনলাইন মিডিয়ার সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। মতপ্রকাশের স্বাধীনতা ও গনতন্ত্রের র্চচার ক্ষেত্র্র সম্প্রসারিত হচ্ছে। তার পরও অনলাইন মিডিয়ার সমস্যার অন্ত নাই। মতপ্রকাশের স্বাধীনতা ও গনতন্ত্রের র্চচার সুযোগে চলছে হলুদ সাংবাদিকতা। আমরা বাংলাদেশের স্বাধীনতার চেতনা ও মূল্যবোধকে ধারন করেই অনলাইন মিডিয়াকে অগ্র্রসর করতে চাই। ব্যক্তি কিংবা ক্ষুদ্র্র রাজনেতিক স্বার্থে যারা ব্যবহার করতে চায় তাদের বিষয়ে সর্তক থাকতে হবে। উপস্হিত বক্তারা অনলাইন মিডিয়া সমূহের প্রতিনিধিত্বকারী সংগঠন বাংলাদেশ অনলাইন মিডিয়া এসোসিয়েশন-বিওএমএ জাতীয় সন্মেলনের সকল উদোগের সাথে সম্পৃক্ত হওয়ার জন্য অনলাইন মিডিয়া সমূহের প্রতি আহবান জানান।

জনাব আলতাফ মাহমুদ বলেন, প্রথম অনলাইন মিডিয়া সন্মেলনের নামে চাঁদা তোলে ও রেজিষ্টেশন ফির নামে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেওয়া হচ্ছে। এ বিষয়ে সরকার ও যথাযথ কর্তপক্ষকে ব্যবস্হা নেওয়ার জোড় দাবী জানাচ্ছি। বহিস্কৃত ও চিন্হিত ব্লগারের স্বার্থে কোন সন্মেলন অনুষ্ঠিত হতে পারে না। সকলকে এ জঘন্য কর্মকান্ড থেকে বিরত থাকার জন্য অনুরোধ করছি ।