৭:০৯ পূর্বাহ্ণ - মঙ্গলবার, ১৩ নভেম্বর , ২০১৮
Breaking News
Download http://bigtheme.net/joomla Free Templates Joomla! 3
Home / জরুরী সংবাদ / খালেদা জিয়ার প্রস্তাব বিষয়ে রাষ্ট্রপতির কাছে লিখিত আবেদন যাচ্ছে : মির্জা ফখরুল

খালেদা জিয়ার প্রস্তাব বিষয়ে রাষ্ট্রপতির কাছে লিখিত আবেদন যাচ্ছে : মির্জা ফখরুল

ঢাকা, ২৩ নভেম্বর, ২০১৬ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): আজ দুপুরে নয়াপল্টনে দলীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, নির্বাচন কমিশন পুনর্গঠন নিয়ে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার প্রস্তাব নিয়ে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে আলোচনা হলে ইতিবাচক ফলাফলের আশা করছে বিএনপি। রাষ্ট্রপতির দেখা পেয়ে মৌলিক আবেদনে সাড়া না পেয়ে এবার লিখিত আবেদন করতে যাচ্ছে দলটি।

রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সাক্ষাৎ হলে বিএনপির প্রস্তাব মেনে নেওয়া হবে বলে কেন ভাবছেন-এমন এক প্রশ্নের জবাবে গণমাধ্যমকর্মীদেরকে সব কিছু ইতিবাচকভাবে দেখার আহ্বান জানান বিএনপি মহাসচিব।

গত শুক্রবার সংবাদ সম্মেলন করে নির্বাচন কমিশন গঠনের রূপরেখা দেন খালেদা জিয়া। তিনি সার্চ কমিটির বদলে সব দলের সঙ্গে আলোচনা করে ঐক্যমতের ভিত্তিতে নির্বাচন কমিশন গঠনের দাবি জানান। বলেন, যতদিন এই ঐক্যমত প্রতিষ্ঠা না হবে, ততদিন চালাতে হবে আলোচনা।

খালেদা জিয়ার এই সংবাদ সম্মেলনের পর পর আওয়ামী লীগ সংবাদ সম্মেলন করে এই প্রস্তাবকে নাকচ করে। বলে, নির্বাচন কমিশন গঠন হবে সংবিধান অনুযায়ী সার্চ কমিটি গঠন করেই।

ক্ষমতাসীন দলের এমন প্রতিক্রিয়ার পরও খালেদা জিয়া এক টুইট বার্তায় বলেন, তার প্রস্তাবের ভিত্তিতে আলোচনা হতে পারে। আর মির্জা ফখরুল বলেছিলেন, তার নেত্রীর প্রস্তাব চূড়ান্ত নয়। এ নিয়ে আলোচনায় বসতে সরকারি দলের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন তিনিও।

বুধবারের সংবাদ সম্মেলনে মির্জা ফখরুল বলেন,  ‘আমরা সংবিধান সামনে রেখেই নির্বাচন কমিশন পুনর্গঠনের লক্ষ্যে প্রস্তাব দিয়েছি। এখানে সংবিধান লংঘন হয়েছে বলে আমরা মনে করে না। বাস্তবতার আলোকেই এই প্রস্তাব দেয়া হয়েছে।’

আওয়ামী লীগকে এই প্রস্তাব নিয়ে আলোচনায় বসতে আহ্বান জানিয়ে ফখরুল বলেন, ‘অহেতুক কালক্ষেপণ না করে একগুঁয়েমি পরিহার করে জাতির মঙ্গলের জন্য আলোচনায় বসুন। একটি নিরপেক্ষ কাঠামো গঠনের লক্ষ্যে প্রতিনিধিত্বশীল সংসদ গঠন অনিবার্য। আর এ জন্য প্রয়োজন একটি নিরপেক্ষ ও শক্তিশালী নির্বাচন কমিশন।’

রাষ্ট্রপতির কাছে আবেদন

মির্জা ফখরুল জানান, খালেদা জিয়ার এই প্রস্তাব নিয়ে আলোচনার জন্য রাষ্ট্রপতির সামরিক সচিবের সঙ্গে টেলিফোনে কথা বলেছেন বিএনপি চেয়ারপারসনের ব্যক্তিগত সচিব। কিন্তু সাড়া না পাওয়ায় এবার রাষ্ট্রপতির সামরিক সচিবের কাছে লিখিত আবেদন করতে যাচ্ছে বিএনপি।

এর আগেও রাষ্ট্রপতির কাছে দেখা করে জানানো প্রস্তাব আমলে নেওয়া হয়নি- এমন এক মন্তব্যের জবাবে ফখরুল বলেন, ‘আমরা এর আগে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে দেখা করেছিলাম, মূল ইস্যু ছিল তত্ত্বাবধায়ক সরকার। কিন্তু এবার আমরা বর্তমান প্রেক্ষাপটে মনে করছি, আগে শক্তিশালী নির্বাচন কমিশন হওয়া দরকার। এ জন্যই তার সঙ্গে কথা বলতে চাই।’

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘আপনারা সব সময় আশাবাদী। আপনারা নেগেটিভ চিন্তা করেন কেন, পজিটিভ চিন্তা করেন।’

এ পর্যায়ে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মওদুদ আহমদ বলেন, ‘তিনি (রাষ্ট্রপতি) হচ্ছেন রাষ্ট্রের সর্বোচ্চ প্রতিষ্ঠান। আমরা মনে করি, তাকে যদি আমরা উদ্যোগী করে তুলতে পারি, তাহলে এর সমাধান সম্ভব।‘

নির্বাচন কমিশন গঠন নিয়ে খালেদা জিয়ার প্রস্তাব সরকার মেনে নিলে দলীয় সরকারের অধীনে বিএনপি নির্বাচনে যাবে কি না- ফখরুলের কাছে জানতে চান সাংবাদিকরা। জবাবে তিনি বলেন, ‘ম্যাডামের প্রস্তাবেই এ বিষয়ে লেখা আছে, এ নিয়ে আর নতুন করে বলার কিছু নেই।‘

খালেদা জিয়া তার প্রস্তাবে বলেছিলেন, নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশন গঠন হলেও নির্বাচনকালী সরকার নিরপেক্ষ না হলে তারা কাজ করতে পারবেন না। নির্বাচনকালীন নির্দলীয় সরকার গঠনে ভবিষ্যতে আরও একটি রূপরেখা দেওয়ার কথাও জানান খালেদা জিয়া।

অন্যরা য়া পড়ছে...

Loading...



চেক

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওমরাহ পালন

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বৃহস্পতিবার রাতে এখানে পবিত্র …

জনগণ ছেড়ে বিদেশিদের কাছে কেন : ঐক্যফ্রন্টকে ওবায়দুল কাদের

গাজীপুর, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): শুক্রবার বিকেলে গাজীপুরের চন্দ্রায় ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়ক চার লেনে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

My title page contents