৫:১১ অপরাহ্ণ - সোমবার, ১৯ নভেম্বর , ২০১৮
Breaking News
Download http://bigtheme.net/joomla Free Templates Joomla! 3
Home / রাজনীতি / আওয়ামী লীগ / ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করতে নেতাকর্মীদের সতর্ক থাকতে হবে : জেলহত্যা দিবসের জনসভায় বক্তারা

ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করতে নেতাকর্মীদের সতর্ক থাকতে হবে : জেলহত্যা দিবসের জনসভায় বক্তারা

hasina4   02.11.15ঢাকা, ০২ নভেম্বর ২০১৫ (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): আজ সোমবার বিকেলে রাজধানীর ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে জেলহত্যা দিবস উপলক্ষে আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভায় বক্তারা বিএনপি-জামায়াত জোটের সকল ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করতে দলীয় নেতাকর্মীদের সতর্ক থাকার আহ্বান জানিয়েছেন।

তারা বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা’র নেতৃত্বে দেশ যখন এগিয়ে যাচ্ছে তখন ষড়যন্ত্রকারিরা দেশের বিরুদ্ধে একের পর এক ষড়যন্ত্র করছে। তাই সবাইকে ঐক্যবদ্ধ ভাবে ষড়যন্ত্রকারিদের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে হবে।

আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য আমির হোসেন আমু বলেন, বাংলাদেশে যখন এগিয়ে যায় তখনই দেশি-বিদেশি ষড়যন্ত্র শুরু হয়। তারা বাংলাদেশের উপর আঘাত হানে। এখন আবার তারা সেই রকম ষড়যন্ত্র করছে। স্বাধীনতা বিরোধীরা এখনও বাংলাদেশকে পাকিস্তানের ভাব ধারায় ফিরিয়ে নিয়ে যেতে চায়। তাদের নেতৃত্ব দিচ্ছেন বেগম খালেদা জিয়া। কিন্তু তার সেই ষড়যন্ত্র কখনও সফল হবে না।

আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য ও কৃষিমন্ত্রী বেগম মতিয়া চৌধুরী বলেন, যারা মুক্তিযুদ্ধের সময় বাংলাদেশের যুদ্ধকে সিভিল ওয়ার বলেছিলো, তাদের কথায় বাংলাদেশ উঠবে না, বসবে না। তিনি বলেন, যখন আমরা দেশ গড়ার কাজে ব্যস্ত তখন স্বাধীনতার পরাজিত শক্তি ঐ খালেদা জিয়া দেশে-বিদেশে ষড়যন্ত্র করে বেড়াচ্ছে। ধর্মকে অপব্যবহার করে খালেদা জিয়া কোন দিন সফল হতে পারবে না। স্বাধীনতা বিরোধীরাও ধর্মকে অপব্যবহার করে বাঁচতে পারবে না।

মানবতার কথা বলে মানবাধিকার সংগঠন অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল মানুষের সঙ্গে ভন্ডামি ও প্রতারণা করছে মন্তব্য করে আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য মোহাম্মদ নাসিম বলেন, যুদ্ধাপরাধীদের বিচার নিয়ে অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল প্রথম থেকেই ষড়যন্ত্র করে আসছে। তারা যুদ্ধাপরাধীদের বাঁচানোর জন্য বিশেষ অ্যাজেন্ডা নিয়ে মাঠে নেমেছে। অ্যামেনেস্টি মুক্তিযুদ্ধের নৈতিক চেতনা নিয়েও প্রশ্ন তুলে দুঃসাহসিকতার পরিচয় দিয়েছে। ৭৫ সালে যখন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যা করা হয়েছিল তখন আপনাদের মানবতা কোথায় ছিল? যারা আমাদের মুক্তিযোদ্ধাদের বিচার চেয়ে অপমানিত করেছে তাদের বিচারও দাবি করেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম বলেন, বাংলাদেশে যত খুন হয়েছে তার নেতৃত্ব দিচ্ছেন খালেদা জিয়া। এর আগে, এ সব খুনের নেতৃত্ব দিয়েছেন তার স্বামী জিয়াউর রহমান। ৫ জানুয়ারী নির্বাচনে খালেদা জিয়া গণতন্ত্রকে প্রতিহত করতে, নির্বাচন বানচাল করতে পুলিশ হত্যা করেছিল। তারা কখনও জঙ্গী, কখনও হেফাজত, কখনও আইএস বলে মানুষকে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করছে। বাংলাদেশে কোন আইএস নেই।

ষড়যন্ত্র মোকাবেলায় দলীয় নেতাকর্মীদের সতর্ক থাকার আহ্বান জানিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম বলেন, ৭৫ সালের ১৫ আগস্ট এবং ৩ নভেম্বর দলের মধ্যে ঘাপটি মেরে থাকা বিশ্বাসঘাতকরাই নৃশংসতা চালিয়েছিল। এর ধারাবাহিকতা এখনো বিরাজমান। বঙ্গবন্ধুকে যে কারণে হত্যা করা হয়েছিল, একই কারণে জেলহত্যা করা হয়েছিল। তাদের কি অপরাধ ছিল? যারা স্বাধীনতায় বিশ্বাস করে না, বাংলাদেশকে স্বাধীন দেখতে চায় নাই, তারাই বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় ৪ নেতাকে হত্যা করেছিল।

তিনি বলেন, তারা ভেবেছিল বঙ্গবন্ধুর অবর্তমানে জাতীয় চার নেতাই বাংলাদেশকে নেতৃত্ব দেবে। তাই তাদের হত্যার মধ্য দিয়ে বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে নিশ্চিহ্ন করে দেয়া যাবে। কিন্তু খুনীদের সেই স্বপ্ন বাস্তবায়ন হয়নি।

সভায় আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সভাপতিত্ব করেন। এছাড়াও জনসভায় আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক, ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এম এ আজিজ, সাধারণ সম্পাদক মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীর বিক্রম, আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন ও খালিদ মাহমুদ চৌধুরী প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ।

অন্যরা য়া পড়ছে...

Loading...



চেক

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওমরাহ পালন

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বৃহস্পতিবার রাতে এখানে পবিত্র …

জনগণ ছেড়ে বিদেশিদের কাছে কেন : ঐক্যফ্রন্টকে ওবায়দুল কাদের

গাজীপুর, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): শুক্রবার বিকেলে গাজীপুরের চন্দ্রায় ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়ক চার লেনে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

My title page contents