৪:৫৫ পূর্বাহ্ণ - রবিবার, ২১ জানুয়ারি , ২০১৮
Breaking News
Download http://bigtheme.net/joomla Free Templates Joomla! 3
Home / জরুরী সংবাদ / রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলার খবর

রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলার খবর

সোহেল রানা-বালিয়াকান্দি (রাজবাড়ী), ০৯ নভেম্বর, ২০১৬ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম):

বালিয়াকান্দিতে অসময়ে গড়াই নদীর ভাঙ্গনে কবি দেওয়ানের বাড়ীসহ ৭টি বাড়ী বিলিন

“গড়াই নদীর পাড়ে আমার ছোট্র কুড়ে ঘর, ওপাড় তীরে জুমে আছে, বিশাল বালু চর। গড়াই নদীর পানি মিঠা, নাইকো তাতে লোনা, একে বেঁকে চলছে নদী, মাঝে মাঝে ঘোনা। পদ্মা হতে জন্ম নদী, সাগরের যায় মিশে, নদীর বুকে পাল টেনে মাঝি, যাচ্ছে দেশ-বিদেশে। আষাঢ় শ্রাবণ বর্ষা এসে, ভাঙ্গে দুটো পাড়ি, ঝড়ো হাওয়া ঝাপটা লেগে, ভাঙ্গছে কত বাড়ী। চৈত্র মাসে ধুধু করে ঐ যে বালুচরে, পানির আশায় চাতক পাখি, চেয়ে আকাশ পড়ে। তপ্ত বালুচর পাড়ি দিয়ে, পথিকের চলা দায়, ঘুর্ণি হাওয়া এলে ধুলি, আকাশ পানে ধায়। আবার যখন বর্ষা আসে ডোবে বালুর চর, নুনত বধু সাজে নদী, সঙ্গে জোয়ার বর। এ ধরনের হাজারো কবিতা রচনা করেছেন কবি সাদেক আলী দেওয়ান। সেই গড়াই নদী রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলার নারুয়া ইউনিয়নের নারুয়া গ্রামে অসময়ে গড়াই নদীর ভাঙ্গনে কবি সাদেক আলী দেওয়ানের বাড়ীসহ ৭টি বাড়ী বিলিন হয়েছে।

বুধবার দুপুরে সরেজমিন গড়াই নদীর নারুয়া গ্রামে গিয়ে দেখা যায়, গড়াই নদীর পানি হ্রাসের সাথে সাথে নদীতে ভাঙ্গনের সৃষ্টি হয়েছে। কয়েকদিনের ভাঙ্গনে ৭টি পরিবার সর্বস্ব হারিয়ে নিঃস্ব হয়ে পড়েছে।

নারুয়া গ্রামের বাসিন্ধা শহিদুল ইসলাম, আল মামুন মিঠুসহ অনেকেই জানান, পানি হ্রাসের সাথে সাথে ভাঙ্গন দেখা দিয়েছে। অসময়ে ভাঙ্গনে এক সপ্তাহে নারুয়া গ্রামের খোরশেদ শেখের ছেলে আরজু সেখ, আলিমুদ্দিন সেখের ছেলে আইয়ুব সেখ, আছমত মোল্যার ছেলে শমসের মোল্যা, মকছেদ মোল্যার ছেলে শিমুল মোল্যা, নেওয়াজ সেখের ছেলে কবি সাদেক আলী দেওয়ান, ছবেদ আলীর ছেলে মাছেম সেখ ও হোসেন আলীর ছেলে সিরাজুল ইসলামের বসতবাড়ী ও অনেকের ফসলী জমি নদী গর্ভে বিলীন হয়েছে। তবে নদী শাসনে নেই কোন পদক্ষেপ। দীর্ঘদিন ধরে নদী ভাঙ্গন রোধে পদক্ষেপ গ্রহনের দাবী জানিয়ে আসলেও কোন পদক্ষেপ নেই। এতে প্রতি বছরই ভাঙ্গনের শিকার হতে হচ্ছে।

কবি সাদেক আলী দেওয়ান জানান, আমার বসতবাড়ী শনিবার রাতে নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। এতে আর আমার ভিটা হারিয়ে নিঃস্ব হয়ে গেলাম। তারপরও এখান থেকে মাটির টানে যেতে ইচ্ছে করে না। আমিসহ এলাকার লোকজন দীর্ঘদিন নদী ভাঙ্গন রোধে পদক্ষেপ গ্রহনের দাবী জানিয়ে আসলেও কোন কাজের কাজ কিছুই হচ্ছে না। তার এখন বাড়ী করার মতো কোন জমি নেই। তার বসত ভিটার জন্য সরকারের নিকট খাস জমি বন্দোবস্ত প্রদানের দাবী জানান।

নারুয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ আব্দুস সালাম জানান, গড়াই নদীর ভাঙ্গনে মরাবিলা, জামসাপুর, কোনাগ্রাম, নারুয়া, বাকসাডাঙ্গী, সোনাকান্দর এলাকায় প্রতিবছর ফসলি জমি, ঘর-বাড়ী বিলিন হচ্ছে। কয়েকটি বাড়ী গড়াই নদীর ভাঙ্গণের শিকার হয়েছে বলে শুনেছি। এদের তালিকা তৈরী করে উপজেলা প্রশাসনকে অবগত করা হবে।

বালিয়াকান্দি জনতা ব্যাংকের সেকেন্ড অফিসারের বিরুদ্ধে চেক জালিয়াতির অভিযোগ

রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি জনতা ব্যাংক শাখার সেকেন্ড অফিসার এম,এম তোফাজ্জেল হোসেনের বিরুদ্ধে জালিয়াতির মাধ্যমে দু,টি চেকে ৯লক্ষ ২০ হাজার টাকার চেক ডিজঅনার করে তারিখ পরিবর্তন করে প্রদানের গুরুতর অভিযোগ উঠেছে।

বালিয়াকান্দি উপজেলার বহরপুর ইউনিয়নের পাটুরিয়া গ্রামের অদ্বৈত কুমার দাসের ছেলে অমর কুমার দাস অভিযোগ করে বলেন, আমার নামীয় জনতা ব্যাংক বালিয়াকান্দি শাখার হিসাব নং- ৩২৬৯/৮ এর স্বাক্ষরিত চেক বই এর পাতা নং- ৫৫৫৫৩৯১ হইতে ৫৫৪০০ নং পাতা ও সোনালী ব্যাংক বালিয়াকান্দি শাখার হিসাব নং- ৯৪৪, কম্পিউটার নং- ৩৩০০১২৫৬ এর স্বাক্ষরিত চেক বই এর পাতা নং- ০০৯০১৮১ হইতে ০০৯০১৯০ পাতা হারিয়ে যায়। এব্যাপারে বালিয়াকান্দি থানায় ৭-১০-২০১৬ইং তারিখ জিডি নং- ২৩২ করা হয় । পরদিন ৮ অক্টোবর দৈনিক রাজবাড়ী কন্ঠ পত্রিকায় হারানো সংবাদ প্রকাশিত হয়। গত ১০ অক্টোবর জনতা ব্যাংক বালিয়াকান্দি শাখায় সাবেক ইউপি সদস্য সুফল কুমার দাসকে সাথে করে শাখা ব্যবস্থাপক সাজ্জাদ হোসেন ও সেকেন্ড অফিসার এম এম তোফাজ্জেল হোসেন এবং এম,এল,এস,এস মিন্টুর নিকট জিডির ও পত্রিকার ফটোকপি প্রদান করা হয়। সেসময় তারা প্রকাশ করেন, কেউ চেক ডিজঅনার করেনি। আর নিতেও পারবেনা। পরবর্তীতে দুটি লিগ্যাল নোটিশ পেয়ে জানতে পারি জনতা ব্যাংকের সেকেন্ড অফিসার এম,এম তোফাজ্জেল হোসেন তারিখ পরিবর্তন করে ব্যাক ডেটে ৯ লক্ষ ২০ হাজার টাকার দু,টি চেক ডিজঅনার করে প্রদান করেন। এটি জালিয়াতি বটে। বিষয়টি নিয়ে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

জনতা ব্যাংকের সেকেন্ড অফিসার এম,এম, তোফাজ্জেল হোসেন জানান, ৬ অক্টোবর দুটি চেক ডিজঅনার করা হয়েছে। আর আমি ২৩ অক্টোবর জিডির কপি পেয়েছি। তবে তারিখ পরিবর্তন করে চেক দু,টি ডিজঅনার করা হয়েছে বললে তিনি বলেন, বিষয়টি দেখি বসে মিমাংসা করা যায় কিনা।

বালিয়াকান্দি জনতা ব্যাংক শাখার ব্যবস্থাপক সাজ্জাদ হোসেন জানান, গত ১০ অক্টোবর ব্যাংকে এসে একডি জিডি ও পত্রিকার ফটোকপি প্রদান করে। সেদিন পর্যন্ত কোন চেক ডিজঅনার হয়েছিল না। এখন কিভাবে হয়েছে জানি না। তবে ডিজঅনার করেছে এটি তার ব্যাক্তিগত ব্যাপার।

বালিয়াকান্দিতে পুজা দেখার টাকা না পেয়ে পলিটেকনিক ছাত্রের গলায় ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা

রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলার জঙ্গল ইউনিয়নের পারুলিয়া গ্রামে পুজা দেখার টাকা না পেয়ে মঙ্গলবার রাতে গলায় ফাঁস নিয়ে এক পলিটেকনিকের ছাত্রের মৃত্যু হয়েছে। ওই ছাত্রের নাম দেবব্রত মন্ডল (১৮)। তার পিতার নাম শ্যামল মন্ডল। বাড়ী উপজেলার জঙ্গল ইউনিয়নের পারুলিয়া গ্রামে। সে ফরিদপুর পলিটেকনিক কলেজের দ্বিতীয় সেমিস্টারের ছাত্র।

জানাগেছে, সোমবার তার মায়ের কাছে বাড়ীতে আসার জন্য টাকা চায়। তার মা ২শত টাকা বিকাশের মাধ্যমে দেবব্রত মন্ডলকে প্রদান করে। মঙ্গলবার সে বাড়ীতে আসে। বিকালে বন্ধুদের সাথে ঘুরে বেড়ানোর পর সন্ধ্যা ৭টার দিকে বাড়ীতে গিয়ে মায়ের কাছে পুজা দেখার জন্য টাকা চায়। এসময় তার মা বলে কাল টাকা দিবো আজ টাকা নেই। এ কথা শুনে মনের দুঃখে ও কষ্টে বাড়ীর দেড়শত গজ দুরে আমগাছের সাথে গলায় ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা করে। লোকজন পথ দিয়ে যাওয়ার সময় ঝুলতে দেখে গাছ থেকে নামায়। তবে তার আগেই দেবব্রত মারা যায়।

অন্যরা য়া পড়ছে...

Loading...



চেক

দোষ পড়েছে আওয়ামী লীগের,রিট করেছে বিএনপি : ওবায়দুল কাদের

 নোয়াখালী, ঢাকা, ১৯ জানুয়ারি,২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম):আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতু …

রেকর্ড ব্যবধানে শ্রীলংকাকে হারিয়ে ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে বাংলাদেশ

ঢাকা, ১৯ জানুয়ারি ২০১৮ (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম) : ত্রিদেশীয় ওয়ানডে সিরিজে তৃতীয় ম্যাচে শ্রীলংকাকে ১৬৩ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

My title page contents