৬:৩৫ পূর্বাহ্ণ - বৃহস্পতিবার, ১৫ নভেম্বর , ২০১৮
Breaking News
Download http://bigtheme.net/joomla Free Templates Joomla! 3
Home / জরুরী সংবাদ / ঝালকাঠির খবর

ঝালকাঠির খবর

আজমীর হোসেন তালুকদার, ঝালকাঠি, ০৫ নভেম্বর, ২০১৬ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম):

আকস্মিক সৃষ্ট নিম্মচাপ ॥ সড়ক দূর্ঘটনায় হতাহত-৩
ঝালকাঠিতে নৌ-যান চলাচলে নিষেধাজ্ঞা জেলেদের তীরে অবস্থান নেয়ার নির্দেশ

বঙ্গপসাগরে আকস্মিক সৃষ্ট নিম্মচাপের কারনে ঝালকাঠির সুগন্ধা, বিষখালী ও গাবখান নদীতে ছোট-বড় সকল ধরণের নৌযান চলাচলে নিষেধাজ্ঞা জারী করা হয়েছে। মাছধরার জেলেদের নদী তীরবর্তি নিরাপদ স্থানে অবস্থান নেয়ার নির্দেশ দিয়েছে জেলা প্রশাসন। শনিবার বিকেল ৫ টায় জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনার কমিটির সভায় জেলা প্রশাসক মোঃ মিজানুল হক চৌধুরী এ আদেশ দেন।

জেলা প্রশাসক মোঃ মিজানুল হক চৌধুরী বলেন, জনগণকে সচেতন করতে জেলা ৪ উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা, ইউপি চেয়ারশ্যানদের সাথে যোগাযোগ করা হয়েছে। প্রতিটি মসজিদের মাইকে এবং জেলা তথ্য অফিসের মাইকে ৪ নম্বর সতর্ক সঙ্কেত জানিয়ে জনসাধারণকে নিরাপদ স্থানে থাকার প্রচারনা করা হচ্ছে। এছাড়াও জেলা প্রশাসন, পুলিশ বিভাগ, উপজেলা প্রশাসন, ফায়ারসার্ভিস, পৌরসভা, রেডক্রিসেন্ট, স্কাউট এবং স্বাস্থ্য বিভাগ সবাই দুর্যোগ মোকাবেলায় প্রস্তুত রয়েছে। ত্রাণ প্রদানের জন্য জেলা খাদ্য অধিদপ্তর এবং উপজেলা খাদ্য অধিদপ্তরে পর্যাপ্ত পরিমাণে খাদ্য মজুদ রয়েছে।

সভায় অন্যান্যের মধ্যে পুলিশ সুপার সুভাষ চন্দ্র সাহা, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মোঃ জাকির হোসেন, সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার এমএম মাহমুদ হাসান, পৌর মেয়র লিয়াকত আলী তালুকদার, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মকবুল হোসেন, জেলা বনিক সমিতির সভাপতি মাহবুব হোসেন, রেড ক্রিসেন্ট ইউনিট সভাপতি অ্যাডভোকেট মাহবুবুর রহমান তালুকদার, সিভিল সার্জন (ভারপ্রাপ্ত) ডাঃ মৃণাল কান্তি বন্ধ্যোপাধ্যায়, জেলা মৎস্য কর্মকর্তা প্রীতিষ কুমার মন্ডল, জেলা ইমাম সমিতির সভাপতি মাওলানা আব্দুল হাই নিজামী, জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলী আব্দুস সালাম, জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক মোঃ মশিউর রহমান, ফায়ারসার্ভিস লিডার গোলাম রসুল, জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা নিখিল রঞ্জন চক্রবর্তি ও উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ইসরাত জাহান সোনালী উপস্থিত ছিলেন।

নিম্মচাপের একটানা বৃষ্টিপাতের মধ্যে শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টার বরিশাল-ঝালকাঠি আঞ্চলিক মহাসড়কের ঝালকাঠি থেকে ঢাকাগামী আজমির পরিবহনের সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষে জনি দাস (৩৫) নামে একজন ভাড়ায় চালিত মোটরসাইকেল চালক নিহত হয়েছে। এ দুর্ঘটনা মোটরসাইকেলের আরোহী কবির হোসেন ও খলিলুর রহমান নামে দুইযাত্রী আহত হয়েছে। ঝালকাঠির পল্লী বিদ্যুৎ কার্যালয় সংলগ্ন ঢাপর বাদামতলা এলাকায় ঢাকাগামী যাত্রীবাহী পরিবহনের বাসটি রূপাতলী বাসস্ট্যান্ড থেকে দুইজন যাত্রী নিয়ে আসা মোটরসাইকেলটি চাপা দেয়।

উল্লেখ্য, বঙ্গপসাগরে সৃষ্ট নিম্মচাপের প্রভাবে গত তিন দিন ধরে দখিনের জেলা ঝালকাঠিতে একটানা বৃষ্টিপাত চলছে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা থেকে শুরু হওয়া কখোন ভারী-মাঝারি কখোন গুড়িগুড়ি বৃষ্টিপাত একটানা শনিবার রাত পর্যন্ত অব্যহত আছে। আর অসময়ের এই বৃষ্টিতে ভোগান্তি পড়েছে সব শ্রেণির মানুষ। শ্রমজীবী ও অফিসগামী লোকজন একটু বেশি বিপাকে পড়েছে। টানা বৃষ্টিতে ঝিমিয়ে পড়েছে জনজীবন। রাস্তাঘাট অনেকটা ফাঁকা। বৃষ্টির সাথে বইতে শুরু করেছে শীতল বাতাস। এদিকে ক্ষেতে থাকা শীতকালীন শাক-সবজি ক্ষতির সম্মুখে পড়েছে। চলতি মৌসুমে ক্ষেতের ধান ঝড়ো বাতাসে মাটিতে মিশে ব্যাপক ক্ষতি সাধন করছে বলে স্থানীয় সূত্রগুলো জানিয়েছে।

ডাক দিয়ে যাই এর আয়োজনে ইউপিপির অর্থায়নে
রাজাপুরে প্রশিক্ষন প্রকল্পে প্রশিক্ষনার্থীদের টিএ-ডিএ ভাতার অর্থ অত্মসাতের অভিযোগ

jalokhati2-5-11-16ঝালকাঠির রাজাপুরে ইউরোপিয় ইউনিয়নের অর্থায়নে ইউপিপি-উজ্জিবিত কম্পোনেন্টের আওতায় ইউপিপি সদস্যদের সেলাই প্রশিক্ষনের যাতায়াত ও খাবার ভাতা আত্মসাতের অভিযোগ উঠেছে। ডাক দিয়ে যাই রাজাপুর শাখার আয়োজনে ০১/১০/১৬ ইং তারিখ থেকে ০৭/১১/১৬ ইং তারিখ পর্যন্ত ৩০ দিনের জন্য রাজাপুরের ২৫ জন নারী অংশগ্রহনে এ প্রশিক্ষনের আয়োজন করা হয়। প্রশিক্ষনে প্রত্যেক নারীর জন্য দৈনিক যাতায়াত ভাতা ১০০টাকা ও খাবার ভাতা ১২০ টাকা নির্ধারণ করে ইউপিপি কতৃপক্ষ, কিন্তু সেখানে ডাকদিয়ে যাই কতৃপক্ষ প্রশিক্ষনার্থীদের কোন টাকা না দিয়েই যাতায়াত ভাতা ও খাবার ভাতা শীটে সই নিয়ে নেয় ।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বেশ কয়েকজন প্রশিক্ষনার্থী অভিযোগ করে বলেন, আমরা রাজাপুরের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে এখানে প্রশিক্ষন নিতে আসি এবং প্রতিদিন প্রশিক্ষন শেষে আমরা যাতায়াত ভাতা ও খাবার ভাতা শিটে সই করি অথচ প্রতিদিনের বরাদ্দ থেকে আমাদেরকে কোন টাকা দেয়না। এ নিয়ে আমরা ডাকদিয়ে যাই কতৃপক্ষকে জানালে আমাদেরকে প্রশিক্ষন থেকে বের করে দেওয়ার হুমকি দেয়।

এ বিষয়ে ডাকদিয়ে যাই রাজাপুর শাখার শাখা ব্যাবস্থাপক মো. মিজানুর রহমানের কাছে টেলিফোনে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমরা এ টাকা দিয়ে প্রশিক্ষনার্থীদের সেলাই মেশিন কিনে দেব । আপনার দায়িত্ব শুধু প্রশিক্ষন দেওয়ার মেশিন কিনে দেওয়ার দায়িত্ব আপনার না বললে তিনি কোন সদুত্বর দিতে পারেনি।

 

সংবাদ সম্মেলনে ছেলে হত্যার বিচার চান বাবা
কাঁঠালিয়ায় প্রেমের দায়ে বিএম কলেজের ছাত্র জয়দেবের চোখ তুলে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ

jalokhati3-5-11-16দক্ষিণ পূর্ব ভা-ারিয়া গ্রামের চায়ের দোকানী বাবুল চন্দ্র পাইকের ছেলে বরিশাল বিএম কলেজে অধ্যয়নরত জয়দেব কুমার পাইকের সঙ্গে পার্শ্ববর্তী ঝালকাঠির কাঁঠালিয়া উপজেলার ছোনাউটা গ্রামের শাহেদ আলী খানের মেয়ে খাদিজা আক্তারের সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠেছিল। এই অপরাধে স্থানীয় একটি মহল পরিকল্পিত ভাবে জয়দেবের চোখ তুলে নিয়ে নির্মমভাবে পিটিয়ে হত্যা করে। পরে তাকে গ্রামবাসির হাতে ডাকাত আটকের পর গণ পিটুনীতে নিহত বলে প্রচারণা চালানো হয়। কাঁঠালিয়া উপজেলার ছোনাউটা গ্রামের গ্রামপুলিশ সোহেল খলিফা বাদি হয়ে গত ৭ অক্টোবর কাঁঠালিয়া থানায় একটি এজাহার দায়ের করে। এতে অজ্ঞাত ৭০/৮০জনকে আসামী করা হয়।

তবে নিহত জয়দেবের পরিবারের দাবি, জয়দেব পাইকের সাথে মাদ্রাসা ছাত্রী খাদিজা আক্তারের হৃদয় ঘটিত সম্পর্কের অপরাধে গত ৬ অক্টোবর সন্ধ্যায় ডেকে নিয়ে তার চোখ তুলে নৃশংসভাবে হত্যার পর গ্রামবাসির হাতে ডাকাত নিহত হওয়ার  মিথ্যা প্রচারণা চালানো হয়। স্থানীয় গ্রামপুলিশ সোহেল খলিফা, খাদিজার পরিবাবের সদস্যসহ স্থানীয় কয়েকজন মিলে পরিকল্পিতভাবে এ নৃশংস হত্যাকা- চালায় বলে নিহত জয়দেবের পরিবার অভিযোগ। এ ঘটনায় নিহত জয়দেবের বাবা চায়ের দোকানী বাবুল চন্দ্র পাইক বাদি হয়ে ছেলে হত্যার অভিযোগে ১৬জনকে অভিযুক্ত করে গত ২৭ অক্টোবর ঝালকাঠি সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন ।

এদিকে গতকাল শুক্রবাবার সকালে নিহত জয়দেবের পরিবার ভা-ারিয়ায় প্রেস ক্লাবে একটি সংবাদ সম্মেলন করে অভিযোগ করেন, জয়দেব মেধাবী শিক্ষার্থী সে কখনই ডাকাত নয়। তার ছেলে জয়দেব পাইক বরিশাল বিএম বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের রাষ্ট্র বিভাগ বিভাগে এম.এ শ্রেণীতে লেখা পড়া করছিল। লেখা পড়ার পাশাপাশি সে ভা-ারিয়ায় গ্রাম আদালতের মাঠকর্মী ও আরএফএল কোম্পানীতে পার্টটাইম চাকুরীও করত। এমন অবস্থায় খাদিজা আক্তার নামে একটি মুসলিম মেয়ের সাথে তার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এই অসম প্রেমের অপরাধে পরিকল্পিত ভাবে ডেকে নিয়ে জয়দেবের চোখ তুলে পিটিয়ে হত্যা করা হয়। এরপর অভিযুক্ত আসামীরা এ হত্যাকা- গণপিটুণীতে ডাকাত নিহত বলে মিথ্যা প্রচারণা চালায়।

সংবাদ সম্মেলনে নিহত জয়দেবের বাবা লিখিত বক্তব্যে অভিযোগ করেন, জয়দেবের সাথে পার্শ্ববর্তী সোনাউটা গ্রামের মো. শাহেদ আলী খানের ছেলে ফোরকান খানের সাথে বন্ধুত্ব সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এ সম্পর্কের সুবাদে জয়দেব ও ফোরকান উভয়ই একে অপরের বাড়িতে যাতায়ত করত। এ কারনে জয়দেবের সাথে ফোরকানের ছোটবোন খাদিজা আক্তারের সাথে আত্মীক সম্পর্ক গড়ে ওঠে। একসময় তা প্রেমে রূপ নেয়।

এ ঘটনা এলাকায় জানাজানি হলে খাদিজার পরিবার স্থানীয় গ্রাম পুলিশসহ পাড়া প্রতিবেশী মানুষের চাপের মধ্যে পড়েন। এরপর গ্রামপুলিশ সোহেল খলিফা, রহিম খান, সিদ্দিক খান ও শাহজাহান মিলে খাদিজার ভাই ফোরকানকে ডেকে নিয়ে গালমন্দ করে। এসময় তারা ফোরকানকে হিন্দু ছেলের সাথে খাদিজার প্রেমের সর্ম্পক কেন হল, এতে সমাজে মুসলমানের ধর্ম ও সম্মানহানী হয়েছে এ মর্মে ফোরকানকে শাসানো হয়।
নিহত জয়দেবের বাবা অভিযোগ করেন, গত ৬ অক্টোবর সন্ধ্যায় বরিশাল থেকে জয়দেব পাইক ভা-ারিয়ার বাড়িতে আসে। সন্ধ্যায় সে ভা-ারিয়া শহরের ভূবনেশ্বর সেতুর কাছে বাবার চায়ের দোকানে বসে। এসময় রাত আটটার দিকে গ্রামপুলিশ সোহেল খলিফা, খাদিজার ভাই ফোরকান ও নিকট আত্মীয় টিভি মেকানিক আব্দুল কাদের দুটি ভাড়ায় চালিত মোটরসাইকেলযোগে ওই দোকানে আসে। কথা আছে বলে আব্দুল কাদের তার মোটরসাইকেলে জয়দেবকে তুলে নিয়ে যায়। এরপর জয়দেব আর বাড়িতে ফেরেনি।

পরদিন সকাল অনুমান সাতটার দিকে জয়দেবের সঙ্গে থাকা মোবাইল ফোন দিয়ে তার মা আলো রানীর  মোবাইলে একজন কল দিয়ে জানায় জয়দেব অসুস্থ হয়ে কাঁঠালিয়া হাসপাতালে ভর্তি আছে। এর কিছুক্ষণ পর কাঁঠালিয়া থানা থেকে মোবাইল করে জয়দেবের পরিবারকে জানানো হয় জয়দেব থানায়  আছে। এরপর তার পরিবারের সদস্য কাঁঠালিয়া থানায় গিয়ে পুলিশের হেফাজতে তার লাশ দেখতে পায়। এসময় পরিবারকে জানানো হয় জয়দেব ডাকাত । সে পালানোর সময় বিক্ষুব্দ গ্রামবাসির গণপিটুনিতে মারা গেছে। এরপর নিহত জয়দেবের লাশ ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করে।

নিহত জয়দেবের বাবা বাবুল চন্দ্র পাইক অভিযোগ করেন, তার বিশ্ববিদ্যালয় পড়–য়া ছেলে ডাকাত নন। তাকে পরিকল্পিতভাবে ডেকে নিয়ে চোখ তুলে নৃশংসভাবে হত্যা করে ডাকাত বলে মিথ্যা প্রচারণা চালানো হযেছে। তিনি আরও দাবি করেন, মুসলিম মেয়ে সাথে প্রেমের সম্পর্কের কারনেই তাকে নৃশংসভাবে হত্যা করা হয়েছে। খাদিজার নিকট আত্মীয় আব্দুল কাদের চাকু দিয়ে জয়দেবের চোখ উপড়ে ফেলে এরপর অভিযুক্তরা লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে তাকে হত্যা করে।

পরে লাশের গলায় রশি লাগিয়ে টেনে হিচড়ে ছোনাউটা গ্রামের একটি মাদ্রাসার সামনে লাশ ফেলে রেখে গ্রামবাসির হাতের ডাকাত নিহত বলে পুলিশকে খবর দেওয়া হয়। পুলিশ ঘটনাস্থল হতে জয়দেবের লাশ উদ্ধার করে। এ ঘটনার পরদিন স্থানীয় গ্রাম পুলিশ সোহেল খলিফা পরিকল্পিত হত্যা- ধামাচাপা দিতে কাঁঠালিয়া থানায় একটি মিথ্যা ডাকাতী এজাহার দায়ের করা হয়েছে।

এদিকে নিহত জয়দেবের বাবা বাবুল চন্দ্র পাইক ছেলে হত্যার বিচার দাবি করে গত ২৭ অক্টোবর ঝালকাঠি জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। (মামলা নং জিআর-১৩৪/১৬)। মামলায় খাদিজার নিকট আত্মীয় কাঁঠালিয়ার ছোনাউটা গ্রামের টিভি মেকানিক আব্দুল কাদের হাওলাদার, খাদিজার ভাই ফোরকান খান ও গ্রাম পুলিশ সোহেল খলিফাসহ ১৬ জনকে আসামী করা হয়েছে।

আদালত মামলাটি কাঁঠালিয়া থানার অফিসার ইনচার্জকে তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেন।

এ ব্যাপারে কাঁঠালিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মো. জাহিদ হোসেন বলেন, জয়দেব এর বাবার আদালতের  দায়ের করা মামলার কোন কাগজপত্র তার কাছে আসেনি। আদালতের নিদের্শনা আসলে আইন অনুযায়ী দু’টি মামলারই একত্রে তদন্ত করা হবে।

অন্যরা য়া পড়ছে...

Loading...



চেক

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওমরাহ পালন

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বৃহস্পতিবার রাতে এখানে পবিত্র …

জনগণ ছেড়ে বিদেশিদের কাছে কেন : ঐক্যফ্রন্টকে ওবায়দুল কাদের

গাজীপুর, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): শুক্রবার বিকেলে গাজীপুরের চন্দ্রায় ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়ক চার লেনে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

My title page contents