৫:২৬ পূর্বাহ্ণ - শুক্রবার, ১৬ নভেম্বর , ২০১৮
Breaking News
Download http://bigtheme.net/joomla Free Templates Joomla! 3
Home / রাজনীতি / আওয়ামী লীগ / নাসিরনগরের ঘটনায় মন্ত্রী ছায়েদুল হকের পদত্যাগ চাইলেন মাহবুব উল আলম হানিফ

নাসিরনগরের ঘটনায় মন্ত্রী ছায়েদুল হকের পদত্যাগ চাইলেন মাহবুব উল আলম হানিফ

ঢাকা, ০৪ নভেম্বর, ২০১৬ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): আজ শুক্রবার দুপুরে শাহবাগে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার হিন্দু সম্প্রদায়ের ওপর হামলা ও লুটপাটের প্রতিবাদে বিভিন্ন সংগঠনের অবরোধের মুখে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকদের বাড়িঘরে হামলা ও লুটপাটের ঘটনায় প্রাণিসম্পদ মন্ত্রীর নিস্পৃহ ভূমিকা এবং হিন্দু সম্প্রদায়ের নেতাদেরকে ছোট ঘটনাকে বড় করে দেখানো হয়েছে বলে শাসানোর অভিযোগে মন্ত্রী ছায়েদুল হকের পদত্যাগ দাবি করেছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ।

নাসিরনগরে মন্দির ও বাড়িঘরে ভাঙচুর, লুটপাটের প্রতিবাদে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ‘সাধারণ শিক্ষার্থীবৃন্দ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়’–এর ব্যানারে বিক্ষোভ মিছিল বের করা হয়। মিছিলকারীরা জাতীয় প্রেসক্লাব হয়ে শাহবাগ এলাকায় গিয়ে শাহবাগ মোড় অবরোধ করেন। দুপুর সাড়ে বারোটা থেকে বেলা একটা পর্যন্ত তারা শাহবাগ মোড় অবরোধ করে রাখেন। এর আগে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন করেন বিভিন্ন সংগঠনের নেতা-কর্মীরা। সেখান থেকেও কয়েকটি সংগঠনের নেতা-কর্মীরা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের কর্মসূচিতে যোগ দেন। এ সময় মাহবুব উল আলম হানিফ এই এলাডকায় এলে অবরোধের মুখে পড়েন। এ সময় তিনি অবরোধকারীদের সঙ্গে একাত্মতা ঘোষণা করে মন্ত্রীর পদত্যাগ দাবি করেন।

ফেসবুকে ইসলাম অবমাননার অভিযোগ তুলে গত রবিবার ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে ১৫টি হিন্দু মন্দির ও শতাধিক ঘরবাড়িতে হামলা হয়। পাশের জেলা হবিগঞ্জের মাধবপুরেও দুটি মন্দিরে হামলা হয়। এই ঘটনার তিনদিন পর স্থানীয় সংসদ সদস্য ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রী ছায়েদুল হক এলাকায় গিয়ে বলেন, ‘বিষয়টি নিয়ে মালাউনরা বাড়াবাড়ি করছে। আর সাংবাদিকরা উস্কানি দিচ্ছে।’ নাসিরনগর হামলার পর মন্ত্রীর এই ধরনের বক্তব্য আরও ক্ষুব্ধ করে তোলে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়কে। এর প্রতিবাদে শুক্রবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বিক্ষোভ করে বাংলাদেশ হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ। বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদসহ বিভিন্ন সংগঠন এ কর্মসূচির সঙ্গে সংহতি জানায়। এ সময় বক্তারা অবিলম্বে হামলাকারীদের খুঁজে বের করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির আওতায় আনার দাবি জানান।

অবরোধের মুখে হানিফ বলেন, ‘হামলাকারী যে দলেরই হোক তাদের কোনোভাবেই ছাড় দেয়া হবে না। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কখনোই সাম্প্রদায়িকতায় বিশ্বাস করেনি, করবেও না।’

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘যারা বাংলাদেশের স্বাধীনতার বিরোধিতা করেছে তারা দেশে অরাজকতা সৃষ্টির লক্ষে বারবার অপচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। আমরা সব সময়ই তাদের এসব অপচেষ্টাকে প্রতিহত করার লক্ষে কাজ করে যাচ্ছি এবং ভবিষ্যতেও প্রহরীর মতো কাজ করে যাবো।’

অন্যরা য়া পড়ছে...

Loading...



চেক

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওমরাহ পালন

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বৃহস্পতিবার রাতে এখানে পবিত্র …

জনগণ ছেড়ে বিদেশিদের কাছে কেন : ঐক্যফ্রন্টকে ওবায়দুল কাদের

গাজীপুর, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): শুক্রবার বিকেলে গাজীপুরের চন্দ্রায় ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়ক চার লেনে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

My title page contents