৫:০৩ অপরাহ্ণ - বৃহস্পতিবার, ১৫ নভেম্বর , ২০১৮
Breaking News
Download http://bigtheme.net/joomla Free Templates Joomla! 3
Home / রাজনীতি / আওয়ামী লীগ / আমাদের মধ্যে কোনো কোনো বিষয়ে মতান্তর হতে পারে, কিন্তু মনন্তর হবে না : ওবায়দুল কাদের

আমাদের মধ্যে কোনো কোনো বিষয়ে মতান্তর হতে পারে, কিন্তু মনন্তর হবে না : ওবায়দুল কাদের

ঢাকা, ২৪ অক্টোবর, ২০১৬ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): আজ ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক ব্রিফিংয়ে আওয়ামী লীগের নতুন সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিদায়ী সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের সঙ্গে কোনো ধরনের বিভেদে জড়ানোর কারণ নেই, আশরাফের অভিজ্ঞতা কাজে লাগাতে চান তিনিও।

আওয়ামী লীগের সম্মেলনে পরদিন সচিবালয়ে মন্ত্রিসভার বৈঠকে দুই নেতার সঙ্গে দেখা হয়। এ সময় আশরাফকে জড়িয়ে ধরেন ওবায়দুল কাদের। নতুন সাধারণ সম্পাদককে অভিনন্দন জানান অন্য নেতারাও।

মন্ত্রিসভার বৈঠকের পর ওবায়দুল কাদের যান ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে। এই সংবাদ সম্মেলনে জাতীয় সম্মেলনের শৃঙ্খলা, আগামী জাতীয় নির্বাচনে দলের পরিকল্পনা, মন্ত্রিত্বে থেকে সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন, সাবেক সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের সঙ্গে সম্পর্ক নিয়ে কথা বলেন ওবায়দুল কাদের।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘আমার পূর্বসূরি, আমার অগ্রদূত সাধারণ সম্পাদক, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী, আমার পার্টিও প্রেসিডিয়ার সদস্য সৈয়দ আশরাফুল ইসলামকে আন্তরিকভাবে ধন্যবাদ জানাই। সাধারণ সম্পাদক হিসেবে তার সাত বছরের অভিজ্ঞতা সুচিন্তিত পরামর্শ আমার দায়িত্ব পালনে অনুপ্রেরণা যোগাবে।’ আশরাফের সঙ্গে আলোচনার ভিত্তিতে কাজ করার ঘোষণা দিয়ে কাদের বলেন, ‘আমরা পারস্পরিক সহযোগিতার ভিত্তিতে কাজ করবো।’

মন্ত্রিসভায় সৈয়দ আশরাফের সঙ্গে দেখা হওয়ার পর সেখানাকর ঘটনা বর্ণনা করে ওবায়দুল কাদের বলেন,  ‘আজও কেবিনেটে তার সঙ্গে আমার আলাপ হয়েছে। আমার কাছে অবাক লাগলো, তিনি সবকিছু ইজিলি নিয়েছেন। এতে তার মধ্যে বিচলিতভাব বা কোনো ধরনের হতাশা তার মুখম-লে আমি দেখিনি। … বরং আজ তাকে আরও বেশি প্রাণবন্ত বলে আমার মনে হয়েছে। এটাই আওয়ামী লীগ। এটাই আওয়ামী লীগের রাজনীতির বিউটি। ’

আশরাফের সঙ্গে কোনো রকম দ্বন্দ্বে জড়ানোর কারণ নেই জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আমাদের মধ্যে কোনো কোনো বিষয়ে মতান্তর হতে পারে, কিন্তু মনন্তর হবে না।’

শেখ হাসিনাই দলের ঐক্যের প্রতীক জানিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘শেখ হাসিনা যেখানে আছেন, সেখানে পার্টিতে মধ্যে কোনো অনৈক্য বিভেদ প্রশ্রয় পাবে না। তার নির্দেশনার বাইরে কেউ কিছু করবে না।’

‘মন্ত্রী হওয়ায় দলের দায়িত্ব পালন আরও সহজ হবে’
সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রীর দায়িত্বেও আছেন আওয়ামী লীগের নতুন সাধারণ সম্পাদক। এই বিষয়টি নিয়েও কথা বলেন তিনি। ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আপনারা হয়ত আমাকে বলতে পারেন, আপনি সড়কের দায়িত্বে আছেন আবার পরিবহনের দায়িত্বেও আছেন। আপনি কীভাবে দল চালাবেন? আমি বলি আমি এর আগেও রাস্তায় যেতাম, রাস্তার কাজ করতাম। আমাদের কর্মীরা আমাকে নানা কথা বলতো। আমি শুনতাম, কিন্তু সমাধান দিতে পারতাম না। কিন্তু এখন আমার সুবিধা হবে, আমি রাস্তায় যাবো-তৃণমূলে যাবো। একদিকে রাস্তায় যাবো অন্য দিকে দলের কাজ করবো।’ সৌজন্যে ঢাকাটাইমস

অন্যরা য়া পড়ছে...

Loading...



চেক

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওমরাহ পালন

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বৃহস্পতিবার রাতে এখানে পবিত্র …

জনগণ ছেড়ে বিদেশিদের কাছে কেন : ঐক্যফ্রন্টকে ওবায়দুল কাদের

গাজীপুর, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): শুক্রবার বিকেলে গাজীপুরের চন্দ্রায় ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়ক চার লেনে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

My title page contents