৫:৫৬ পূর্বাহ্ণ - রবিবার, ১৮ নভেম্বর , ২০১৮
Breaking News
Download http://bigtheme.net/joomla Free Templates Joomla! 3
Home / জরুরী সংবাদ / আ.লীগের সম্মেলন: ভয়াবহ যানজটের আশঙ্কায় পুলিশ, আগাম দুঃখ প্রকাশ

আ.লীগের সম্মেলন: ভয়াবহ যানজটের আশঙ্কায় পুলিশ, আগাম দুঃখ প্রকাশ

ঢাকা, ২১ অক্টোবর, ২০১৬ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): ক্ষমতাসীন দলের জাতীয় সম্মেলন উপলক্ষে শনি ও রবিবার রাজধানীর শাহবাগ মোড় ব্যবহার করে চার দিকেই যান চলাচল বন্ধ থাকবে। বন্ধ থাকবে কাকরাইল মোড় থেকে মৎস্য ভবন হয়ে জাতীয় প্রেসক্লাব পর্যন্ত সড়কও। ফলে নগরীর উত্তরা, গুলশান, মহাখালী, মিরপুর, মোহাম্মদপুরের যাত্রীরা মতিঝিল, গুলশান বা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় যেতে ভোগান্তিতে পড়বেন।

পরিস্থিতি মোকাবেলায় আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলনের দুই দিন সড়কে যান চলাচলের ব্যবস্থাপনায় থাকা ট্রাফিক পুলিশকে সহযোগিতা করতে পুলিশের অন্যান্য শাখাকেও মোতায়েনের সিদ্ধান্ত হয়েছে। তবে এতে কোনো কাজ কবে কি না, সে নিয়ে শঙ্কিত খোদ পুলিশ বাহিনী। আর ঢাকা মহানগর পুলিশ কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া আগেভাগেই সম্ভাব্য যানজটের জন্য দুঃখ প্রকাশ করে গণমাধ্যমে বিজ্ঞপ্তি দিয়েছেন।

এর আগের অভিজ্ঞতায় দেখা গেছে রাজধানীর গুরুত্বপূর্ণ কোনো একটি সড়ক সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্য বন্ধ থাকলেও এর প্রভাব পড়ে আশেপাশের এলাকাতেও। আর শাহবাগ মোড় কখনও কোনো কারণে বন্ধ থাকলে পুরো শহরই কার্যত অচল হয়ে পড়ে দীর্ঘ যানজটে। এই পরিস্থিতিতে শনি ও রবিবার কী হবে সে নিয়ে রীতিমতো আতঙ্কিত পুলিশ।

গত শুক্রবার চীনের রাষ্ট্রপ্রধান শি জিনপিং এর বাংলাদেশ সফরে ঢাকা ময়মনসিংহ মহাসড়কে অল্প কিছুক্ষণের জন্য যান চলাচল নিয়ন্ত্রণ করেছিল পুলিশ। এর প্রভাবে মধ্যরাত পর্যন্ত রাজপথে ভুগতে হয় নগরবাসীকে।

পরদিন সকালে জিনপিং ঢাকা ছাড়ার আগে সকাল ১০টা পর্যন্ত যান চলাচল নিয়ন্ত্রণ করা হয় বিমানবন্দর সড়কে। এর প্রভাব গিয়েও পড়ে রাজধানীর অন্যান্য এলাকাতেও।

জিনপিং এর সফওে সাপ্তাহিক ছুটির দুই নগরীর একটি ছোট অংশে যান চলাচল নিয়ন্ত্রণের এই প্রভাবের কারণে আওয়ামী লীগের সম্মেলনের বিশেষ করে দ্বিতীয় দিন স্বাভাবিক কর্মদিবসে পরিস্থিতি কী দাঁড়ায় সে নিয়ে রীতিমত শংকিত পুলিশ।

ভয়াবহ যানজটের আশঙ্কায় পুলিশ

আইনশৃঙ্খলার পাশাপাশি রাজধানীর যান চলাচল নিয়ন্ত্রণে দায়িত্বে থাকা বাহিনীটির একাধিক কর্মকর্তা বলেছেন, সেদিন রাজধানী যানজট হবে ভয়াবহ।

আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলন শুরুর তিন দিন আগেই ঢাকা মহানগর পুলিশ নগরবাসী সমস্যার কথা মাথায় রেখে ট্রাফিক বিভাগের যান চলাচলে একটি নির্দেশনা দিয়েছেন। ওই নির্দেশনায় বলা হয়েছে কোন রাস্তা দিয়ে গাড়ি চলবে আর কোন রাস্তা দিয়ে গাড়ি চলতে পারবে না এবং কোথায় গাড়ি পাকিং করতে হবে।

তবে এই নির্দেশনা আদৌ কোনো কাজে আসবে বলে মনে করেন না খোদ পুলিশ কর্মকর্তারাই। কারণ তারা বিকল্প সড়কের কথা বললেও নির্দেশিত এসব সড়ক বন্ধ থাকা সড়কে যত গাড়ি চলবে সেগুলো ধারণ করতে পারবে না। যেমন শাহবাগ মোড় থেকে মৎস্য ভবন পর্যন্ত সড়ক যত গাড়ি চলতো তত গাড়ি রূপসী বাংলা হোটেলের পাশ দিয়ে হেয়ার রোড দিয়ে কাকরাইল হয়ে চলছে দীর্ঘ যানটজ অবশ্যম্ভাবী। কারণ এই সড়কটি শাহবাগ থেকে মৎস্য ভবনের দিকে যাওয়া সড়কের চেয়ে অনেক সরু। আবার কাটাবন থেকে মৎস্য ভবন হয়ে চলা গাড়িগুলোকে পলাশীর মোড় হয়ে চলতে গেলেও একই সমস্যায় পড়তে হবে।

আবার হেয়ার রোড থেকে গাড়িগুলো মৎস্য ভবনের দিকে যেতে পারবে না। এগুলোকে যেতে হবে কাকরাইল মোড় হয়ে নাইটিঙ্গেল মোড় দিয়ে পল্টন হয়ে। উত্তরা থেকে আসা গাড়িগুলোও মহাখালী দিয়ে সোজা হয়ে ঢুকবে কাকরাইল দিয়ে। ফলে এত গাড়ির চাপে রাজধানীতে সড়কগুলো কার্যক অচল হয়ে পড়বে-সে বিষয়ে কোনো সন্দেহ নেই বলেই মনে করছেন পুলিশ কর্মকর্তারা।

অতিরিক্ত পুলিশ থাকবে সড়কে

ডিএমপির ট্রাফিক বিভাগের সহকারী কমিশনার আবু ইউসুফ (হাতিরঝিল জোন) বলেন, ‘আওয়ামী লীগের ২০ তম জাতীয় সম্মেলনে যানজটের কথা মাথায় রেখে রাজধানীর সাড়ে হাজার ট্রাফিক পুলিশ সদস্য কাজ করবেন। এর সঙ্গে অপরাধ নিয়ন্ত্রণে দায়িত্ব পালনকারী অতিরিক্ত পুলিশ সদস্যদের ট্রাফিক পুলিশকে সহযোগিতা করতে বলা হয়েছে।’

এই কর্মকর্তা জানান, ঢাকা মহানগর পুলিশের ট্রাফিক বিভাগের চারজন উপ-কমিশনার, দুইজন যুগ্ম কমিশনার ও একজন অতিরিক্ত কমিশনার মাঠে থেকে যানজট নিয়ন্ত্রণে দায়িত্ব পালন করবেন।

তবে ডিএমপির আরেক কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেছেন, ‘অতিরিক্ত ফোর্স আর কর্মকর্তা মাঠে থাকলে কি হবে। যেহেতু যানবাহন চলাচল করতেই পারবে না। সেহেতু অতিরিক্ত ফোস আর কর্মকর্তা কী করবেন?’

ডিএমপি কমিশনারের আগাম দুঃখ প্রকাশ

ডিএমপির গণমাধ্যম শাখা থেকে পাঠানো একটি সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে ঢাকা মহানগর পুলিশের কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া বলেছেন, ‘ঢাকা শহরে যানজট সহনশীল রাখা এবং বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের ২০ তম জাতীয় সম্মেলন সুশৃঙ্খল ও নিরাপদে অনুষ্ঠিত হওয়ার স্বার্থে সম্মানিত নাগরিকবৃন্দকে প্রদত্ত পরামর্শসমূহ প্রতিপালন এবং পুলিশকে সহযোগিতা প্রদানের জন্য বিনীত অনুরোধ করা হচ্ছে। কোন কোন ক্ষেত্রে সম্মানিত নাগরিকবৃন্দের সাময়িক অসুবিধা হতে পারে। এই সাময়িক অসুবিধার জন্য ডিএমপি আন্তরিকভাবে দুঃখিত।’ সৌজন্যে ঢাকাটাইমস

অন্যরা য়া পড়ছে...

Loading...



চেক

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওমরাহ পালন

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বৃহস্পতিবার রাতে এখানে পবিত্র …

জনগণ ছেড়ে বিদেশিদের কাছে কেন : ঐক্যফ্রন্টকে ওবায়দুল কাদের

গাজীপুর, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): শুক্রবার বিকেলে গাজীপুরের চন্দ্রায় ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়ক চার লেনে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

My title page contents