৭:০৬ পূর্বাহ্ণ - সোমবার, ১৯ নভেম্বর , ২০১৮
Breaking News
Download http://bigtheme.net/joomla Free Templates Joomla! 3
Home / অপরাধ / ঝালকাঠিতে তৌহিদুল হত্যা মামলা পুজি করে নিরীহজনকে হয়রানি ও ফায়দা লোটার অভিযোগ

ঝালকাঠিতে তৌহিদুল হত্যা মামলা পুজি করে নিরীহজনকে হয়রানি ও ফায়দা লোটার অভিযোগ

আজমীর হোসেন তালুকদার, ঝালকাঠি, ১২ অক্টোবর, ২০১৬ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): ঝালকাঠির চাঞ্চল্যকর বিনয়কাঠি ইউনিয়ন কথিত যুবলীগের নেতা তৌহিদুল সিকদার ওরফে তৌহিদুল হত্যা মামলা কে পুজি করে বিভিন্ন নিরীহজনকে হয়রানির অভিযোগ উঠেছে। নিহত তৌহিদুলের কতিপয় আত্মীয় হত্যাকান্ডের এলাকার কয়েকজন ও ঢাকায় বসবাসকারী দুএক ব্যবসায়ীর নাম জড়িয়ে দেয়ার এ প্রচেষ্টা চালাচ্ছে। গত ৫ অক্টোবর সিআইডি এ হত্যা মামলার আসামী হিসাবে শওকত সিকদারকে ঢাকার থেকে গ্রেফতার করলে ‘তার স্বীকারোক্তির ধূয়া তুলে’ ভয় দেখিয়ে আর্থিক ফায়দা লোটার উদ্দেশ্যে হত্যার জড়িত মর্মে অপপ্রচার করা হচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

আওয়ামীলীগ-বিএনপির সিনিয়র কয়েক নেতা সহ এলাকার গন্যমান্য একাধিক ব্যক্তি জানায়, যুবলীগের কথিত নেতা তৌহিদুল সিকদার ওরফে তৌহিদুল মৃত্যুর পূর্ব পর্যন্ত এলাকায় বহু সহিংসতায় জড়িত ছিল। সে তার সমর্থক কিছূ যুবক এলাকায় তৌহিদুল বাহিনী গড়ে তুলে। একারনে স্থানীয় আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীসহ বহু মানুষের সাথে তার শত্রুতা সৃষ্টি হয়েছিল। এছাড়া ঝালকাঠি ও বরিশাল বিমানবন্ধর থানা পুলিশের কাছে তৌহিদুল তথা তৌহিদুল বাহিনীর বিরুদ্ধে কয়েক ডজন মামলা সহ অসংখ্য অভিযোগ ছিলো। এক পর্যায় পূর্ব বিরোধের জের ধরে গত বছর ৪ জুন রাতে তৌহিদুলকে তার প্রতিপক্ষরা নৃশংস ভাবে কুপিয়ে হত্যা করে। এ বিষয়ে ৬জুন তার স্ত্রী নুরুনাহার বেগম বাদি হয়ে ১১জনকে আসামী করে হত্যা মামলা দায়ের করে। উক্ত মামলায় সিআইডি পুলিশ শওকত সিকদারকে ঢাকা থেকে গ্রেফতার করে ৬অক্টোবর আদালতে সোপর্দ করলে বিচারক তাকে জেলহাজতে প্রেরন করেন।

ভূক্তভুগীদের অভিযোগে জানা যায়, নিহত তৌহিদুলের কতিপয় স্বজনরা এ হত্যা মামলাকে পুজি করে প্রতিপক্ষ দমন ও আর্থিক ফায়দা হাসিলের হীন প্রচেষ্টায় মেতে উঠেছে। এজন্য তারা এজাহারে নাম না থাকলেও বিনয়কাঠি ইউনিয়নের স্থানীয় ও ঢাকায় ব্যবসা-বানিজ্যে জড়িত কতিপয় ব্যক্তিকে টার্গেট নিত্যনতুন প্রচার করেছে। সর্বশেষ গ্রেপ্তারকৃত শওকত সিকদার ‘স্বীকারোক্তি দিয়েছে ধূয়া তুলে’ এলাকার নিত্যনতুন নাম প্রকাশ করতে শুরু করে। এরমধ্যে কয়েক যুগ ধরে ঢাকার বসবাসকারী স্বজ্জন-পরোপকারী ব্যক্তি হিসাবে পরিচিত গার্মেন্টেস ব্যবসায়ী এমএ কুদ্দুস হাওলাদারের নামেও তারা প্রপাগন্ডা চালায়। এনিয়ে এলাকাবাসীর সাধারন মানুষের মধ্যে চাপা ক্ষোভ ও বিরুপ প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়।

এ ব্যাপারে ব্যবসায়ী এমএ কুদ্দুস হাওলাদার জানায়, সে দীর্ঘ দুই যুগের বেশী সময় ধরে ঢাকায় ব্যবসা করেন ও বছরে দুএক বার বাড়ীতে যান। তার গ্রামের বাড়ীর সামনে একটি পাকা ঘর ভাড়া দিলে উক্ত ভাড়াটিয়ার সাথে নিহত তৌহিদুলে বিরোধ-সংঘর্ষ ও মামলার ঘটনা ঘটে। কিন্তু তার সাথে তৌহিদুলে কোন বিরোধ ছিলনা বরং উক্ত ঘর ভাড়াই দেইনি সরি। এলাকার অনেককে সে ঢাকায় চাকুরি-ব্যাবসায় সহযোগীতা করেছেন উল্লেখ করে বলেন বর্তমানেও তৌহিদুলের ভগ্নিপতি ইউপি চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলামের ভাই রনি খান, বড়ভাই মহিদুলের শ্যালক মেহেদী হাসান তার অফিসে চাকুরী করে। চেয়ারম্যান সাইফুল তার বাল্যবন্ধু উল্লেখ করে বলেন কে বা কারা হয়রানি ও আর্থিক ক্ষয়ক্ষতি করতে এসব প্রচার করছে তিনি জানিনা।

এ ব্যাপারে পুলিশের একটি সূত্র জানায়, বাদী পক্ষ মৌখিক ভাবে কুদ্দুস হাওলাদারের নাম বললেও গ্রেফতারকৃত শওকত সিকদার পুলিশের কাছে কোন জবানবন্দি দেয়নি বা এখোন পর্যন্ত ১৬৪ ধারায় কোন স্বীকারোক্তিও দেয়নি। যেহেতু মামলাটি ‘ষ্পর্শকাতর ও তদন্তাধীন’ তাই এপর্যায়ে সকলের দায়িত্বশীল ভূমিকা পালন করা উচিত বলে সূত্র জানান।#

অন্যরা য়া পড়ছে...

Loading...



চেক

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওমরাহ পালন

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বৃহস্পতিবার রাতে এখানে পবিত্র …

জনগণ ছেড়ে বিদেশিদের কাছে কেন : ঐক্যফ্রন্টকে ওবায়দুল কাদের

গাজীপুর, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): শুক্রবার বিকেলে গাজীপুরের চন্দ্রায় ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়ক চার লেনে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

My title page contents