৭:০৫ অপরাহ্ণ - সোমবার, ১৯ নভেম্বর , ২০১৮
Breaking News
Download http://bigtheme.net/joomla Free Templates Joomla! 3
Home / জরুরী সংবাদ / আয়নাবাজি সত্যিই সুপার-ডুপার হিট

আয়নাবাজি সত্যিই সুপার-ডুপার হিট

ayna-bazi-2-11-10-16বিনোদন ডেস্ক, ১১ অক্টোবর, ২০১৬ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): সপরিবারে আয়নাবাজি সিনেমা দেখবেন চাকুরে মশিউর রহমান। গত ৮ অক্টোবর শনিবার বিকেল পাঁচটার দিকে ফোন করলেন রাজধানী ঢাকার শ্যামলী সিনেমা হলে। রোববার বেলা ১২টার আগাম টিকিট নিয়ে কথা হয় হলের তথ্যদাতার সঙ্গে। তিনি বললেন, ‘৮৫ ভাগ টিকিট বিক্রি হয়ে গেছে। রাত আটটার মধ্যে আসলে হয়তো টিকিট পাবেন।’ মশিউর সাড়ে সাতটায় গেলেন শ্যামলী। টিকিট কাউন্টার গুটিয়ে নিচ্ছিলেন কর্মীরা। তারা জানালেন, ১০ অক্টোবর পর্যন্ত বেশিরভাগ অগ্রিম টিকিট বিক্রি হয়ে গেছে। আগাম টিকিট পেতে হলে সকাল নয়টায় এসে লাইনে দাঁড়াতে হবে।

দ্বিতীয় সপ্তায়ও হাউসফুল যাচ্ছে অমিতাভ রেজা চৌধুরীর প্রথম চলচ্চিত্র আয়নাবাজি। রাজধানী ঢাকার বলাকা, স্টার সিনেপ্লেক্স, আনন্দ ও শ্যমলী হল ঘুরে জানা গেল তা।

নিউমার্কেট এলাকার বলাকা হলের ফটকের সামনেই হৈ-হল্লা। সবার চোখে মুখে ক্লান্তির ছাপ। টিকেট পাবেনতো! কাজের ব্যস্ততার মধ্যেও খোশ মেজাজে আছেন হলকর্মীরা। তারা বললেন, ‘আয়নাবাজি বাজিমাত করেছে। এত ভিড় অনেকদিন দেখিনি।’

‘গান, চঞ্চল চৌধুরীর অভিনয়, পুরান ঢাকার নানা দৃশ্য- এসব কারণেই আয়নাবাজি সুপার হিট।’ বললেন পাশে দাঁড়ানো একজন দর্শক।

ফার্মগেটের আনন্দ সিনেমা হলে ভিড় তেমন নেই। এখানে তরুণরা আসছে বেশি।

এরমধ্যে অনেকেই স্টার সিনেপ্লেক্স, বলাকা, শ্যামলীতে টিকিট না পেয়ে এসেছেন। এখানে কালোবাজারিতেও মিলছে টিকিট। এমনি মধ্যবয়স্ক একজন ব্ল্যাকার এসে বললেন, ‘টিকেট লাগবে , আয়নাবাজির টিকেট লাগবে, টিকেট লাগবে!’ একটু বেশি দামে তার কাছ থেকেই কেউ কেউ টিকিট নিচ্ছিলেন।

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী আলিফুজ্জামান অনিক বলেন, ‘আয়নাবাজি দেখে আমি অভিভূত। টোটাল সিনেমার গল্প যে কোন বয়সের মানুষের ভালো লাগবে। আমি এরমধ্যে দুইবার দেখেছি। আবার দেখতে এসেছি। এবার আমি একা না, ছয় বন্ধু মিলে এসেছি।’

ইমন নামের আরেক দর্শক বললেন, ‘আয়নাবাজি সত্যিই অসাধারণ একটা ছবি। পুরো ছবিতে পুরান ঢাকার দৃশ্যগুলো এত নিখুঁতভাবে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে। যা অবাক হওয়ার মতোই।’

আনন্দ হলের টিকেট বুকিং ক্লার্ক নাজিম উদ্দিন বলেন, ‘অন্যান্য সিনেমা হলে অনেক ভিড় হলেও আমাদের এখানে কিন্তু পর্যাপ্ত টিকিট আছে। তারপরও অন্যান্য ছবির তুলনায় আয়নাবাজি দেখার দর্শক অনেক।’

গতকাল সোমবার বসুন্ধরা সিটি শপিং কমপ্লেক্সের স্টার সিনেপ্লেক্সে আয়নাবাজি দেখতে এসেছিলেন ডিপ্লোমা প্রকৌশল শিক্ষার্থী মামুন। তিনি বললেন, ‘আমি বুঝতে পারিনি এ সিনেমা দেখার জন্য এতো ভিড় হবে। সেই সকাল থেকে লাইনে দাঁড়িয়ে কালকের বিকালের টিকিট পেয়েছি। আজকের কোনো টিকিট নেই।’

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী হাসান ক্ষোভ প্রকাশ করে বললেন, ‘আয়নাবাজি ছবি দেখার জন্য কয়েকদিন ধরেই ঘুরছি। কিন্তু সিনেপ্লেক্সে  কিছুতেই টিকিট পাচ্ছি না।’

মঙ্গলবার বসুন্ধরা সিটি শপিং কমপ্লেক্সের সাপ্তাহিক ছুটি। তাই পূজার আগাম ছুটি ছিলো সোমবার। তারপরও গতকাল এই বিপণি বিতানের নিচে উপচে পড়া জনতা। কারণ কী- জানতে চাইলে এখানকার একজন কর্মী বললেন, ‘মার্কেট বন্ধ, কিন্তু হল খোলা, আয়নাবাজির দেখার জন্য এই ভিড়।’ সকাল থেকেই থাকে দীর্ঘ লাইন তৈরি হয়েছে বলে তিনি জানালেন।

স্টার সিনেপ্লেক্সের কর্মকর্তা ফারহানা ইসলাম বললেন, ‘আমাদের আসন সংখ্যার চেয়ে দর্শকের চাহিদা বেশি। আয়নাবাজির কারণেই এই অবস্থা। দর্শক চাহিদা থাকায় ছবিটি অন্তত এক মাস চালানো হবে।’ আয়নাবাজি বলাকায়ও চলবে এক মাস। আয়নাবাজি সত্যিই সুপার-ডুপার হিট! সৌজন্যে ঢাকাটাইমস

অন্যরা য়া পড়ছে...

Loading...



চেক

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওমরাহ পালন

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বৃহস্পতিবার রাতে এখানে পবিত্র …

জনগণ ছেড়ে বিদেশিদের কাছে কেন : ঐক্যফ্রন্টকে ওবায়দুল কাদের

গাজীপুর, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): শুক্রবার বিকেলে গাজীপুরের চন্দ্রায় ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়ক চার লেনে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

My title page contents