৩:৪৩ অপরাহ্ণ - মঙ্গলবার, ১৮ জুন , ২০১৯
Breaking News
Download http://bigtheme.net/joomla Free Templates Joomla! 3
Home / অপরাধ / বালিয়াকান্দিতে শিক্ষকের মারপিটে ছাত্রী হাসপাতালে : চিকিৎসার খোঁজ নিলেন ইউএনও

বালিয়াকান্দিতে শিক্ষকের মারপিটে ছাত্রী হাসপাতালে : চিকিৎসার খোঁজ নিলেন ইউএনও

সোহেল রানা-বালিয়াকান্দি (রাজবাড়ী), ০৩ অক্টোবর, ২০১৬ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলার বহরপুর উচ্চ বিদ্যালয়ে শুক্রবার পরীক্ষা চলাকালীন অষ্টম শ্রেণীর এক স্কুল ছাত্রীকে বেধড়ক ভাবে চপটেঘাত করেছে শিক্ষক। ওই ছাত্রীর নাম সুবর্ণা আক্তার স্বর্ণা (১৩)। তার পিতার নাম আজাদ হোসেন। বাড়ী উপজেলার বহরপুর ইউনিয়নের তেঁতুলিয়া গ্রামে। সে বহরপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণীর ছাত্রী। তাকে বালিয়াকান্দি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। রাতেই ছাত্রীর পিতা আজাদ হোসেন বাদী হয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও বালিয়াকান্দি থানায় পৃথক অভিযোগ দায়ের করেন। সোমবার দুপুরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার এইচ এম রকিব হায়দার হাসপাতালে গিয়ে চিকিৎসাধীন ছাত্রীর চিকিৎসার খোঁজ খবর নেন ও আইনী পদক্ষেপ গ্রহনের আশ্বাস দেন। এসময় উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) আমিনুল ইসলাম, সমবায় অফিসার আঃ আলীম মিয়া, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) ডা. অশোক কুমার মোদক, মেডিকেল অফিসার ডা. সরোজ কুমার মন্ডল উপস্থিত ছিলেন।

অষ্টম শ্রেণীর ছাত্রী সুবর্ণা আক্তার স্বর্ণা জানায়, বৃহস্পতিবারের কৃষি শিক্ষা পরীক্ষা শুক্রবার চলাকালীন সময়ে প্রশ্ন কমন পড়ার কারণে লিখতে থাকে। তবে এ পরীক্ষায় রোল অনুযায়ী না বসানোর কারণে একই ক্লাসের মারিয়া তার খাতা দেখতে চায়। সে দেখাতে রাজি না হওয়ায় মারিয়া স্কুলের সিনিয়র শিক্ষক স্বপন কুমার মোদককে বলে স্যার গান গাচ্ছে। শিক্ষক স্বপন কুমার মোদক কিছু জিজ্ঞাসা না করেই পরীক্ষার হলের মধ্যে থেকে দু,কানে একাধিক চপটেঘাত করে। এতে রক্ত ক্ষরন হলেও কেউ এগিয়ে আসেনি। সে দৌড়ে বাইরে চলে আসলেও পুনরায় মারপিট করে। রক্তাক্ত অবস্থায় বালিয়াকান্দি হাসপাতালে নিয়ে আসে।

কৃষক আজাদ হোসেন জানান, তার মেয়েকে পড়ানোর জন্য স্কুলে পাঠানো হয়েছে। যদি সে অন্যায় করে তাহলে শাসন করার ক্ষমতা শিক্ষকের আছে। তবে মেরে কান ফাটিয়ে দিলেও কেউ ঠেকাতে আসেনি এটা শিক্ষকের ঠিক হয়নি। মেয়েকে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। শনিবার তাকে রাজবাড়ী হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসা করানো হয়েছে। আমি নির্যাতনকারী শিক্ষকের শাস্তির দাবী জানিয়ে বালিয়াকান্দি থানায় ও উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নিকট লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছি।

বহরপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আঃ মজিদ সেখ জানান, পরীক্ষার হলে গান গাওয়ার কারণে অন্যান্যে শিক্ষার্থীরা অভিযোগ করে। শিক্ষক স্বপন মোদক একটি থাপ্পর মারলে মাথায় লাগে। ওই ছাত্রী আগে থেকেই অসুস্থ ছিল। তাকে ডাক্তার দেখিয়ে তার পিতাকে ডেকে এনে বাড়ীতে পাঠানো হয়েছে।

অন্যরা য়া পড়ছে...

Loading...



চেক

সকল ধর্ম ও বর্ণ নির্বিশেষে সকলকে উন্নয়নের এই ধারা অব্যাহত রাখতে হবে : রাষ্ট্রপতি

ঢাকা, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): রাষ্ট্রপতি মো: আবদুল হামিদ দেশের শান্তি ও অগ্রগতি …

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওমরাহ পালন

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বৃহস্পতিবার রাতে এখানে পবিত্র …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

My title page contents