৬:৩৩ অপরাহ্ণ - রবিবার, ১৮ নভেম্বর , ২০১৮
Breaking News
Download http://bigtheme.net/joomla Free Templates Joomla! 3
Home / জরুরী সংবাদ / “বড় ভাইয়ের” নির্দেশে ইতালির নাগরিক তাভেল্লা সিজারকে হত্যা করা হয়েছে, আমরা তাকে খুঁজছি : আছাদুজ্জামান মিয়া

“বড় ভাইয়ের” নির্দেশে ইতালির নাগরিক তাভেল্লা সিজারকে হত্যা করা হয়েছে, আমরা তাকে খুঁজছি : আছাদুজ্জামান মিয়া

sijar madar 27.10.15ঢাকা, ২৭ অক্টোবর ২০১৫ (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): আজ সোমবার বেলা সাড়ে ১১টায় রাজধানীর মিন্টোরোডে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে ঢাকা মহানগর পুলিশ কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া বলেন,  “কথিত বড় ভাইয়ের” নির্দেশে এক মাস আগে রাজধানীর গুলশানে ইতালির নাগরিক তাভেল্লা সিজারকে হত্যা করা হয়েছে, গ্রেপ্তারকৃত চার জন প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে পুলিশের কাছে বড় ভাইয়ের কথা স্বীকার করেছে। আমরা তাকে খুঁজছি।

কথিত সেই বড় ভাইয়কে শনাক্ত করার দাবি করে কমিশনার বলেন, তাকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।তিনি বলেন, বড় ভাইয়ের নির্দেশে গ্রেপ্তারকৃতরা অর্থের বিনিময়ে কাজটি করেছে।হত্যাকাণ্ডে অংশ নেয়া চারজনই ভাড়াটে খুনি। এদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় মামলা রয়েছে। এর আগেও তারা জেল খেটেছে।

আছাদুজ্জামান মিয়া বলেছেন, হত্যার আগে তাদেরকে চুক্তির অর্ধেক টাকা পরিশোধ করা হলেও বাকি টাকা পরিশোধ এখনো করা হয়নি। হত্যাকাণ্ডে অংশ নেয়ার জন্য খুনিরা তাদেরই পরিচিত এক লোকের কাছ থেকে মোটরসাইকেলটি নেয়। খুনের পর আবার সেই মোটরসাইকেলটি তাকে ফেরত দেয়া হয়।মোটরসাইকেল মালিককেও আমরা জিজ্ঞাসাবাদ করেছি। তিনি বলেছেন, ওরা আমার পূর্ব পরিচিত এবং  ওরা প্রায়ই আমার মোটরসাইকেলটি নিয়ে ব্যাবহার করেছে।

বড় ভাই নামের সেই লোকটি তাদেরকে বলেছে, একজন বিদেশিকে হত্যা করতে হবে। এ লক্ষ্যে তাদের সঙ্গে একটি চুক্তিও হয়। খুনিদের টার্গেট তাভেল্লা সিজার ছিল না। তাদের টার্গেট ছিল সাদা চামড়ার একজন বিদেশি নাগরিক।বিদেশিদের মধ্যে উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা ছড়িয়ে দিতেই এ কাজ করা হয়েছে। তাভেল্লা সিজার হচ্ছেন ঘটনার স্বীকার। কে সেই বড় ভাই-সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে আছাদুজ্জামান মিয়া বলেন. আমরা সেই বড় ভাই ও তার সঙ্গে সম্পৃক্তদের সম্পর্কে আরও জানার চেষ্টা করছি।

কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া বলেন, ওদেরকে রবিবার রাতে গ্রেপ্তার করা হয়েছে, এই ৭/৮ ঘণ্টার মধ্যে তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদ করে আমরা যা পেয়েছি তাই আপনাদের সামনে তুলে ধরেছি। বড় ভাই সম্পর্কে আরও খোঁজ খবর নিতে হবে। কেননা পেশাদার বাহিনী হিসাবে কোনো রাজনৈতিক দলের নেতার নাম বলতে গেলে পুলিশকে আরও কাজ করতে হবে। পুলিশ সে কাজটিও করছে। এ ব্যাপারে আরও তথ্য প্রমাণ সংগ্রহ করতে হবে। তবে প্রকৃত অপরাধীদের আড়াল করতেই  আইএস নাটক সাজানো হয়েছে। তাভেল্লা সিজার হত্যার সঙ্গে জঙ্গিদের সম্পৃক্ততা পাওয়া যায়নি।

আছাদুজ্জামান মিয়া বলেন, আমরা সেই কথিত বড় ভাইকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা করছি।তাকে গ্রেপ্তার করতে পারলেই সব কিছু জানা যাবে। জানা যাবে কথিত সেই বড় ভাইয়ের মদদদাতাই বা কারা। তবে এটা ঠিক দেশকে অস্থিতিশীল করার চক্রান্তের অংশ হিসাবে তাভেল্লা সিজারকে হত্যা করা হয়। বিদেশিদের মধ্যে একটা ভীতি ছাড়ানোর লক্ষ্যেই এই কাজটা করা হয়েছে।

অন্যরা য়া পড়ছে...

Loading...



চেক

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওমরাহ পালন

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বৃহস্পতিবার রাতে এখানে পবিত্র …

জনগণ ছেড়ে বিদেশিদের কাছে কেন : ঐক্যফ্রন্টকে ওবায়দুল কাদের

গাজীপুর, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): শুক্রবার বিকেলে গাজীপুরের চন্দ্রায় ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়ক চার লেনে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

My title page contents