১১:৪৩ অপরাহ্ণ - সোমবার, ১৯ নভেম্বর , ২০১৮
Breaking News
Download http://bigtheme.net/joomla Free Templates Joomla! 3
Home / রাজনীতি / আওয়ামী লীগ / এদেশে হত্যার রাজনীতিতে সব সময় লাভবান হয়েছে বিএনপি : হাছান মাহমুদ

এদেশে হত্যার রাজনীতিতে সব সময় লাভবান হয়েছে বিএনপি : হাছান মাহমুদ

 hasan mahmud     23.8.16ঢাকা, ২৩ আগষ্ট, ২০১৬ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): আজ সোমবার সন্ধ্যায় থিয়েটার ইনস্টিটিউট চট্টগ্রাম (টিআইসি) মিলনায়তনে উত্তর জেলা ছাত্রলীগের উদ্যোগে একুশে আগস্ট গ্রেনেড হামলায় শহীদদের স্মরণে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন এদেশে হত্যার রাজনীতিতে সব সময় লাভবান হয়েছে বিএনপি। তিনি বলেন, জিয়াউর রহমান ক্ষমতা দখল করেছেন, খালেদা জিয়া দেশের প্রধানমন্ত্রী হয়েছেন। একাত্তর সালের মতোই এখনও ইসলামের কথা বলে একের পর এক হত্যাকাণ্ড ঘটনো হচ্ছে। কিন্তু ইসলামের কথা বলে যারা মানুষ হত্যা করে তারা মূলত ইসলামের শত্রু। তারা এজিদের অনুসারী।

হাছান মাহমুদ বলেন, একুশে আগস্ট গ্রেনেড হামলা হয়েছিল রাজনৈতিক সিদ্ধান্তে। ওই সময়ে যারা সরকারে ছিল, যারা নিরাপত্তার দায়িত্বে ছিল তাদের বিচারের আওতায় আনা উচিত। গ্রেনেড হামলার প্রকৃত তদন্ত শুরু হয়েছিল ২০০৯ সাল থেকে। ঘটনা তদন্তে খালেদা জিয়ার ছেলে তারেক রহমানের নাম এসেছে। এখানে খালেদা জিয়ারও নাম আসা উচিত ছিল।

সাবেক এই বনমন্ত্রী বলেন, হাওয়া ভবনে বসে গ্রেনেড হামলার পরিকল্পনা করা হয়েছিল। জঙ্গিদের হাতে গ্রেনেড তুলে দিয়ে বলা হয়েছিল শেখ হাসিনা, আওয়ামী লীগ ইসলামের শত্রু, তাই তাদের হত্যা করতে হবে। এইভাবে রাজনৈতিক সিদ্ধান্তে শেখ হাসিনাকে হত্যা করতে, আওয়ামী লীগকে নিশ্চিহ্ন করতে প্রকাশ্যে দিবালোকে গ্রেনেড হামলা চালিয়ে আওয়ামী লীগের ২২ নেতাকর্মীকে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়েছিল। গ্রেনেড হামলার পরদিন থানায় মামলা করতে গেলে পুলিশ মামলা গ্রহণ করেনি।

তিনি বলেন, হামলার দিন যেসব পুলিশ কর্মকর্তা নিরাপত্তার দায়িত্বে ছিল তাদের কাউকে সাসপেন্ড করা হয়নি। উল্টো তাদের পুরস্কৃত করা হয়েছে। এ থেকে সহজেই বোঝা যায় রাজনৈতিক সিদ্ধান্তেই এই হামলা হয়েছিল।

হাছান মাহমুদ বলেন, মুক্তিযুদ্ধের পর দেশ যখন স্থিতিশীলতার দিকে এগিয়ে যাচ্ছিল তখন বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যা করা হয়। একাত্তরের পরাজিত শত্রুরাই প্রতিশোধ নিতে এই নির্মম হত্যাকাণ্ড ঘটায়। এই হত্যাকাণ্ডের ধারাবাহিকতায় গ্রেনেড হামলার ঘটনা ঘটে।

উত্তর জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি বখতেয়ার সাঈদ ইরানের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক আবু তৈয়বের সঞ্চালনায় সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি বদিউল আলম তালুকদার। আরও বক্তব্য দেন-যুগ্ম সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক জসিম উদ্দিন শাহ, উত্তর জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক রাশেদুল আলম, মহিলা আওয়ামী লীগের সভানেত্রী দিলোয়ারা ইউসুফ, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট বাসন্তী প্রভা পালিত।

আরও বক্তব্য দেন রাঙ্গুনিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আকতার হোসেন খান, কেন্দ্রীয় যুবলীগ সদস্য শেখ ফরিদ চৌধুরী, আওয়ামী লীগ নেতা মোহাম্মদ ইউনুছ, এমরুল করিম রাশেদ, উত্তর জেলা ছাত্রলীগের সিনিয়র সহসভাপতি বিকে চৌধুরী লিটন প্রমুখ।

অন্যরা য়া পড়ছে...

Loading...



চেক

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওমরাহ পালন

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বৃহস্পতিবার রাতে এখানে পবিত্র …

জনগণ ছেড়ে বিদেশিদের কাছে কেন : ঐক্যফ্রন্টকে ওবায়দুল কাদের

গাজীপুর, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): শুক্রবার বিকেলে গাজীপুরের চন্দ্রায় ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়ক চার লেনে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

My title page contents