৭:০৫ অপরাহ্ণ - সোমবার, ১৯ নভেম্বর , ২০১৮
Breaking News
Download http://bigtheme.net/joomla Free Templates Joomla! 3
Home / জরুরী সংবাদ / দিনাজপুরের খবর

দিনাজপুরের খবর

মোঃ আশরাফুল আলম-ফুলবাড়ী  (দিনাজপুর), ২৩ জুলাই, ২০১৬ (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): 

ফুলবাড়ীতে ভ্রাম্যমান আদালতে ৬ ব্যসায়ীর জরিমানা ॥

দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে গতকাল শনিবার বেলা ১১ টা থেকে সাড়ে ১২টা পর্যন্ত ফুলবাড়ী পৌর বাজারে ভ্রাম্যমান আদালত অভিযান চালিয়ে ব্যবসায়ী ডিলিংক্স লাইসেন্স না থাকার অপরাধে ৬ ব্যবসায়ীর নিকট জরিমানা আদায় করেছেন, ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক  উপজেলা নির্বাহী অফিসার এহেতেশাম রেজা।জরিমানা প্রদানকারীরা হলেন, মুদি ব্যবসায়ী প্রদীপ ষ্টোরের মালিক প্রদীপ কুমার ৫০০ টাকা,  গনেশ চন্দ্র ২০০ টাকা, রতন চন্দ ৩০০ টাকা, স্বপন চন্দ্র ৩০০ টাকা. এ্যনিরুল ইসলাম ৩০০ টাকা, আমিরুজআান ৩০০ টাকা। ফুলবাড়ী থানার ওসি মোকছেদ আলী বলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার এহেতেশাম রেজার নেতৃত্বে ভ্রাম্যমান আদালত পৌর বাজারে ফরমালিন বিরোধী অভিযান ও ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন, কিন্তু পৌর বাজারে কোন মাছে ফরমালিন পাওয়া যায়নি, অপরদিকে অত্যাবশকীয়  পণ্য বিক্রেতাদের ডিলিংক্স লাইসেন্স না থাকায় তাদের নিকট জরিমানা আদায় করেন।

ফুলবাড়ীতে আদালতে রায় পেয়ে ২১ বছর পর
জমির মালিকানা ফিরে পেলেন মানিক ॥

01দিনাজপুরে ফুলবাড়ী উপজেলার বারকোণা গ্রামে মানিক মিঞা আদালতে রায় পেয়ে প্রতিপক্ষের কাছ থেকে ২১ বছর পর জমির মালিকানা ফিরে পেলেন। ঘটনার বিবরণে জানা যায়, ফুলবাড়ী পৌরশহরের পশ্চিম গৌরিপাড়া গ্রামের মৃত রাহাত আলী বিশ্বাসের পুত্র মোঃ আব্দুল সাত্তার ও মৃত কপিল উদ্দিন। কপিল উদ্দিন মারা যাওয়ার সময় এক পুত্র ও এক কন্যা রেখে যান। তারা হলেন মোঃ জিয়াউল হক মানিক ও মোছাঃ আখিতারা বানু।  কিন্তু মোঃ সাত্তার বেঁচে থাকা কালীন তার ভাই কপিল উদ্দিন এর পরিবারকে বাড়ি থেকে বিতাড়িত করেন জমির লোভে। ঐ সম্পত্তি থেকে তার মৃত ভাইয়ের ছেলেমেয়েদেরকে বঞ্চিত করেন। ঐ সময় মানিক এর মা মোছাঃ জুলেখা বেগম মানিক নাবালক থাকায় তার পক্ষে বাদি হয়ে ফুলবাড়ী সহকারী জজ আদালতে ০২/০৬/১৯৯৪ ইং তারিখে একটি বাটোয়ারা মামলা করেন। যার মামলা নং ০৪/০৯/২০০১ বাটো। দীর্ঘ ২১ বছর মামলা পরিচালনা করার পর গত ১৫/০৩/২০১৬ ইং তারিখে বিজ্ঞ আদালত মোঃ জিয়ারুল হক মানিক এর পক্ষে নথিপত্র পরীক্ষা করে এক তরফা রায় ঘোষণা করেন। সেই সূত্র ধরে গত ২২/০৭/২০১৬ ইং তারিখে স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের উপস্থিতিতে সমঝোতার মাধ্যমে আপোষ নামা হয়। গৌরিপাড়া মৌজার জেএল নং ৫৬, দাগ নং-৪৪, রকম ডাঙ্গা, সিএস-১০, এস এ-৬, জমির পরিমাণ ১০০শতক (১ একর) আপোষ নামায় প্রথম পক্ষ মৃত কফিল উদ্দিন এর পুত্র মোঃ জিয়ারুল হক মানিককে ৪১ শতক ও দ্বিতীয় পক্ষ মৃত আব্দুল সাত্তার মন্ডলের পুত্র মোঃ জাহাঙ্গীর আলম, মোঃ নজমুল হক, মোঃ আলমগীর হোসেন, মোঃ মেহেদেী হাসান হিরা কে ৫৯ শতক জমি ভাগাভাগি করে দেন। এই মর্মে উক্ত আপোষনামায় স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের উপস্থিতিতে পৃথক পৃথক ভাবে দুই পক্ষ স্বাক্ষর করেন। ফলে দীর্ঘদিনের পারিবারিক জমি জমা নিয়ে যে বিরোধ চলে আসছিল তা এতদিন পর নিষ্পত্তি হলো। এখন সেখানে তারা শান্তিপূর্ণভাবে নিজ নিজ পরিবার নিয়ে বসবাস করবেন বলে ২ পক্ষই জানান।

অন্যরা য়া পড়ছে...

Loading...



চেক

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওমরাহ পালন

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বৃহস্পতিবার রাতে এখানে পবিত্র …

জনগণ ছেড়ে বিদেশিদের কাছে কেন : ঐক্যফ্রন্টকে ওবায়দুল কাদের

গাজীপুর, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): শুক্রবার বিকেলে গাজীপুরের চন্দ্রায় ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়ক চার লেনে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

My title page contents