১০:১৯ পূর্বাহ্ণ - মঙ্গলবার, ১৩ নভেম্বর , ২০১৮
Breaking News
Download http://bigtheme.net/joomla Free Templates Joomla! 3
Home / আন্তর্জাতিক / ইন্দোনেশিয়ায় বন্যা ও ভূমিধসে মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৪৩ জন

ইন্দোনেশিয়ায় বন্যা ও ভূমিধসে মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৪৩ জন

indonasia    20.6.16ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক, ২০ জুন, ২০১৬ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): ইন্দোনেশিয়ায় বন্যা ও ভূমিধসে মৃতের সংখ্যা বেড়ে সোমবার ৪৩ জনে দাঁড়িয়েছে। কাদামাটি ও পাথরের স্রোতের তোড়ে কয়েকশ বাড়িঘর বিলীন হয়ে গেছে।

সপ্তাহান্তে জাভা দ্বীপের পার্বত্যাঞ্চলে আকস্মিক বন্যা ও ভূমিধসের কয়েক দিন অতিবাহিত হওয়ার পরেও কয়েকশ উদ্ধারকর্মী বাড়িঘরের ধ্বংসস্তুপ ও মাটির স্তুপের মধ্যে নিখোঁজ ১৯ গ্রামবাসীর সন্ধানে তল্লাশী চালিয়ে যাচ্ছেন।

ঘন জনবসতিপূর্ণ মধ্যাঞ্চলীয় জাভা প্রদেশে প্রাকৃতিক দুর্যোগটি আঘাত হানে। কাদা, পাথর ও পানির তোড়ে বেশ কয়েকটি ভবন বিলীন হয়ে গেছে। কাদাপানি ও পাথরের এই ¯্রােত পার্বত্য এলাকা থেকে নিচে নেমে রাস্তার গাড়ি ও চালকদের ভাসিয়ে নিয়ে যায়।

বন্যার পানি বাড়ায় বাড়িঘর নিমজ্জিত হয়ে পড়ে। এতে গ্রামবাসীরা ছাদের ওপর আশ্রয় নিতে বাধ্য হয়। যেসব এলাকায় প্রবেশ করা সম্ভব হচ্ছে সেখানে উদ্ধারকর্মীরা খননযন্ত্রের সাহায্যে নিখোঁজদের সন্ধানে তল্লাশী চালাচ্ছে। দুর্গম এলাকাগুলোতে বেলচা ও খালি হাতের সাহায্যেই ধ্বংসস্তুপ অপসারণ করা হচ্ছে।

দুর্যোগ সংস্থার মুখপাত্র সুতোপো পুরউ নুগরোহো বলেন, এই ৪৩ জন নিশ্চিতভাবে মারা গেছে, ১৯ জন নিখোঁজ ও ১৪ জন আহত হয়েছে।

প্রাকৃতিক দুর্যোগে কয়েকশ বাড়ির ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। এগুলোর মধ্যে কয়েকটি সম্পূর্ণভাবে মাটির সঙ্গে মিশে গেছে।

জাভায় শুষ্ক আবহাওয়া বিরাজ করার কথা ছিল, কিন্তু সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলোতে প্রবল বর্ষণ দেখা দিয়েছে। নুগরোহো বলেন, ‘চলতি জুনমাসে এখনো ভারী বৃষ্টিপাত হচ্ছে। এর ফলে বন্যা ও ভূমিধসের ঘটনা ঘটছে।’

অন্যরা য়া পড়ছে...

Loading...



চেক

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওমরাহ পালন

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বৃহস্পতিবার রাতে এখানে পবিত্র …

জনগণ ছেড়ে বিদেশিদের কাছে কেন : ঐক্যফ্রন্টকে ওবায়দুল কাদের

গাজীপুর, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): শুক্রবার বিকেলে গাজীপুরের চন্দ্রায় ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়ক চার লেনে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

My title page contents