১:৪১ পূর্বাহ্ণ - মঙ্গলবার, ১৩ নভেম্বর , ২০১৮
Breaking News
Download http://bigtheme.net/joomla Free Templates Joomla! 3
Home / অর্থনীতি / বাংলাদেশে প্রবৃদ্ধি অর্থবছরের চেয়ে সাড়ে ৬ শতাংশ বাড়তে পারে : বিশ্বব্যাংক

বাংলাদেশে প্রবৃদ্ধি অর্থবছরের চেয়ে সাড়ে ৬ শতাংশ বাড়তে পারে : বিশ্বব্যাংক

world bank  06.10.15ঢাকা, ০৬ অক্টোবর ২০১৫ (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): বিশ্বব্যাংক মনে করছে, চলতি অর্থবছরে বাংলাদেশের মোট দেশজ উৎপাদন (জিডিপি) গত অর্থবছরের চেয়ে সাড়ে ৬ শতাংশ বাড়তে পারে। জনসংখ্যা পরিস্থিতি, দুর্বল ভৌত অবকাঠামো এবং রাজনৈতিক অনিশ্চয়তাসহ সবকিছু বিবেচনায় নিলে এর বেশি প্রবৃদ্ধি অর্জনের মতো অবস্থা বাংলাদেশের নেই। ফলে সরকার ২০১৫-১৬ অর্থবছরে সাত শতাংশ জিডিপি প্রবৃদ্ধির যে লক্ষ্য নির্ধারণ করেছে, তা অর্জন চ্যালেঞ্জিং হবে।

বিশ্বব্যাংকের ‘সাউথ এশিয়া ইকোনমিক ফোকাস’ নামে অর্ধবার্ষিক প্রকাশনায় বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধি নিয়ে এমন পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে। অবশ্য তুলনামূলক বিচারে দক্ষিণ এশিয়ায় মধ্যে প্রবৃদ্ধির দৌড়ে ভারতের পরই এগিয়ে থাকবে বাংলাদেশ। চলতি অর্থবছরে ভারতের প্রবৃদ্ধি সাত দশমিক আট শতাংশ হবে বলে মনে করছে সংস্থাটি। আর ভারতের প্রভাবে ২০১৬ সালে দক্ষিণ এশিয়ার প্রবৃদ্ধি বেড়ে দাঁড়াবে সাত দশমিক চার শতাংশ। ২০১৫ সালে দক্ষিণ এশিয়ায় সাত শতাংশ প্রবৃদ্ধির প্রাক্কলন ছিল।
বিশ্ব্যাংকের এ রিপোর্ট গত রোববার রাতে ওয়াশিংটন থেকে প্রকাশিত হয়েছে। এবারের রিপোর্টের মূল ফোকাস হলো, দক্ষিণ এশিয়ায় মূল্যস্ফীতি কমে আসা ও তার প্রভাব। এতে বলা হয়েছে, বিশ্ব বাজারে খাদ্য ও অন্যান্য পণ্যের নিম্নমূল্য এবং একই সঙ্গে বিভিন্ন দেশে সরকার নির্ধারিত জ্বালানি তেলের মূল্য কমানোর কারণে দক্ষিণ এশিয়ায় মূল্যস্ফীতির চাপ কমেছে। সব মিলিয়ে আগে যা ভাবা হয়েছিল, তার চেয়ে কম মূল্যস্ফীতি, দ্রুত প্রবৃদ্ধি এবং বড় অর্থনীতির অঞ্চলে পরিণত হবে দক্ষিণ এশিয়া। দক্ষিণ এশিয়া সবচেয়ে দ্রুত বর্ধনশীল প্রবৃদ্ধির অঞ্চল হলেও আর্থিক খাতে এর দুর্বলতা রয়ে গেছে বলে মনে করে বিশ্বব্যাংক।
বিশ্বব্যাংক ধরে নিয়েছে যে, নিকট মেয়াদে বাংলাদেশের রাজনীতিতে স্থিতিশীলতা থাকবে। একই সঙ্গে অভ্যন্তরীণ ভোগ এবং রফতানিতে তেজীভাব থাকবে। এমন ধারণা বাস্তবে রূপ নিলেই জিডিপি প্রবৃদ্ধি সাড়ে ছয় শতাংশ হবে। সংস্থাটির বক্তব্য হলো, বাংলাদেশের অর্থনীতির বর্তমান যে ক্ষমতা, তাতে প্রবৃদ্ধি এর বেশি হওয়ার কথা নয়। তবে এর চেয়ে বেশি প্রবৃদ্ধি হওয়া সম্ভব। সেজন্য অর্থনীতির উৎপাদনশীলতার ওপর অত্যন্ত কার্যকর তদারকি করতে হবে। বিভিন্ন নীতিতে সংস্কার আনতে হবে।
বিশ্বব্যাংক বলেছে, চলতি অর্থবছরের বাজেটে উপস্থাপিত সামষ্টিক অর্থনৈতিক কাঠামো অর্জনযোগ্য। তবে তার জন্য অবকাঠামো ব্যবস্থাপনা এবং ব্যবসায়িক নিয়ম-কানুনে সংস্কার আনতে হবে। কাঠামোগত সংস্কারে বাংলাদেশের অগ্রগতি ধীর উল্লেখ করে এক্ষেত্রে বিশেষ মনোযোগ দেওয়ার পরামর্শ দিয়েছে সংস্থাটি।
বিশ্বব্যাংকের ধারণা, চলতি অর্থবছরে বাংলাদেশের মূল্যস্ফীতির ঝুঁকি কম। তবে সরকারের প্রাক্কলনের (৬.২%) চেয়ে কিছুটা বেশি ছয় দশমিক চার শতাংশ মূল্যস্ফীতির পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে। রিপোর্টে বলা হয়েছে, গত অর্থবছরে মুদ্রা সরবরাহের প্রবৃদ্ধি হয়েছে মুদ্রানীতির লক্ষ্যমাত্রার (১৬.৫%) চেয়ে কম হয়েছে, যা সরকারি ও বেসরকারি খাতে কম ঋণ চাহিদা নির্দেশ করে। গত ১২ মাসে টাকার দর বেড়েছে এক দশমিক ৪৪ শতাংশ।
রিপোর্টে বলা হয়, সাম্প্রতিক সময়ে আন্তর্জাতিক আর্থিক বাজারের অস্থিরতা কিংবা চীনের নিম্ন প্রবৃদ্ধির ফলে বাংলাদেশের তেমন ঝুঁকি নেই। এর কারণ, বাংলাদেশের মূলধন হিসাব উন্মুক্ত নয়। বাংলাদেশের আর্থিক বাজারে বিদেশিদের বিনিয়োগ খুবই কম। আর বাংলাদেশের মোট রফতানির মাত্র দুই দশমিক তিন শতাংশ হয় চীনে। রিপোর্টে আরও বলা হয়, সৌদি আরব ও সংযুক্ত আরব আমিরাতে নতুন করে জনশক্তি রফতানি উন্মুক্ত হওয়ায় রেমিট্যান্স প্রবৃদ্ধি বাড়বে। যদিও তেলের মূল্য পতন এসব বাজারে শ্রম চাহিদা কমিয়ে দিতে পারে।
চার ক্ষেত্রে চ্যালেঞ্জ :বিশ্বব্যাংকের রিপোর্টে চার ক্ষেত্রে বাংলাদেশের চ্যালেঞ্জ রয়েছে বলে উল্লেখ করা হয়েছে। এর মধ্যে প্রথমটি হলো আর্থিক খাত। বলা হয়েছে, আর্থিক খাতে খেলাপি ঋণ উল্লেখযোগ্য হারে কমে আসছে না। ইচ্ছাকৃত ঋণখেলাপিরা তাদের অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড চালিয়ে যাচ্ছে। কেননা তারা রেহাই পাচ্ছে। জ্বালানি খাতের চ্যালেঞ্জ প্রসঙ্গে বিশ্বব্যাংক বলেছে, বাংলাদেশ এক্ষেত্রে তার সুযোগের সদ্ব্যবহার করছে না। সব শেষে আর্থিক খাতে সরকারি ব্যয় ও রাজস্ব প্রশাসনের দক্ষতা বাড়ানো আরেকটি চ্যালেঞ্জ। রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠানসহ প্রশসানিক সংস্কারের ওপর গুরুত্ব দিয়েছে বিশ্বব্যাংক।

অন্যরা য়া পড়ছে...

Loading...



চেক

রোহিঙ্গাদের পাশে দৃঢ়ভাবে দাঁড়াতে ওআইসি’র প্রতি প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান

ঢাকা, ০৫ মে ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ইসলামী সহযোগিতা সংস্থাকে (ওআইসি) বিপন্ন …

রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশকে অব্যাহত সমর্থনের আশ্বাস কানাডার

ঢাকা, ০৫ মে ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): সফররত কানাডার পররাষ্ট্রমন্ত্রী ক্রিস্টিয়া ফ্রিল্যান্ড রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

My title page contents