২:৩৬ পূর্বাহ্ণ - বুধবার, ২৬ সেপ্টেম্বর , ২০১৮
Breaking News
Download http://bigtheme.net/joomla Free Templates Joomla! 3
Home / জরুরী সংবাদ / আ.লীগ নিজেদের ঘরে থাকা রাজাকারের কোনো বিচার করছে না : খালেদা জিয়া

আ.লীগ নিজেদের ঘরে থাকা রাজাকারের কোনো বিচার করছে না : খালেদা জিয়া

khalada  21.12.15ঢাকা, ২১ ডিসেম্বর ২০১৫ (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): আজ সোমবার সন্ধ্যায় রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ারিং ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে মুক্তিযোদ্ধাদের এক সমাবেশে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া বলেছেন, আওয়ামী লীগ মুক্তিযুদ্ধের কথা বেশি বেশি বললেও তারা মুক্তিযোদ্ধাদের মুল্যায়ন করেনি। আওয়ামী লীগ তাদের নিজেদের ঘরে রাজাকার পুষছে। নিজেদের ঘরে থাকা রাজাকারের কোনো বিচার করছে না।

খালেদা জিয়া বলেন, আওয়ামী লীগ নিজেদের মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের শক্তি দাবি করলেও স্বাধীনতার পর তারা রক্ষীবাহিনীর মাধ্যমে দেশে নৈরাজ্য কায়েম করেছে। তাদের তৈরি রক্ষীবাহিনী লোকদেরকে ঘর থেকে ধরে ধরে নিয়ে হত্যা করেছে। প্রতিদিন মানুষ গুম করেছে। সেই গুম-হত্যার সেই ধারাবাহিকতা এখনও চলছে। এখনও অহরহ মানুষ খুন হচ্ছে, গুম হচ্ছে।আওয়ামী লীগ প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মান দেয়নি দাবি করে খালেদা জিয়া বলেন, আওয়ামী লীগ গুণীদের সম্মান করতে জানে না। তিনি শাহাবুদ্দীন ও লতিফুর রহমানের উদাহরণ টেনে বলেন, গুণী এই মানুষদেরকে আওয়ামী লীগ অকথ্য ভাষায় আক্রমণ করেছে।

খালেদা বলেন, যারা মুক্তিযুদ্ধ করেনি, তারা আজ বড় মুক্তিযোদ্ধা। ক্ষমতায় গেলে এসব ভুয়া মুক্তিযোদ্ধার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আওয়ামী লীগ মুক্তিযোদ্ধাদের দল নয় মন্তব্য করে খালেদা বলেন, তারা শুধু মুক্তিযুদ্ধের কথা বলে, তাদের দলে কোনো মুক্তিযোদ্ধা নেই। তাদের দেশের প্রতি কোনো মায়াও নেই। ১৯৭১ সালে তারা স্বাধীনতা চাননি, চেয়েছিলেন কেবল ক্ষমতা। পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হতে চেয়েছিলেন। আজকেও এই দল আওয়ামী লীগ গণতন্ত্র চায় না, ক্ষমতা চায় শুধু। এ জন্য জোর করে ক্ষমতা ধরে বসে আছে।

খালেদা জিয়া অভিযোগ করেন, সেনাবাহিনীকে আওয়ামী লীগ আজকে নয়, অনেক আগেই ধ্বংস করতে চেয়েছিল। সেনাবাহিনীর ওপর কোনো বিশ্বাস নেই তাদের।

তিনি উদাহরণ দেন, বিডিআর বিদ্রোহের। এ জন্য প্রধানমন্ত্রীর হাতে রক্ত বলেও মন্তব্য বিএনপি নেত্রীর। বলেন, আল্লাহ এর বিচার করবেন। তিনি তরুণদের ’৭১’র মতো জেগে ওঠার আহ্বান জানান।

প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যের প্রতিবাদ করে তিনি বলেন, যত অন্যায় করেছেন সব শেখ হাসিনা। প্রশাসন-পুলিশ-সেনাবাহিনী কারোই কোনো অন্যায় নেই। তাদের কিছু হবে না। কারো চাকরি যাবে না বিএনপি ক্ষমতায় গেলে। জেলে গেলে শেখ হাসিনাকেই যেতে হবে। বিএনপি ক্ষমতায় গেলে সবখানে যোগ্য-মেধাবী অফিসারদের মূল্যায়ন করা হবে।

খালেদা জিয়া বলেন, বর্তমান সরকার দেশটাকে লুটপাট করে খাচ্ছে। নিজেরাই কামড়াকামড়ি করছে। সুইস ব্যাংকে ২০০৮ সালের পর থেকে কারা টাকা পাঠিয়েছে এ প্রশ্ন রাখেন তিনি।

‘নির্বাসিত গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে সাহসী মানুষের ঐক্য ও আন্দোলনের কোনো বিকল্প নেই’ শীর্ষক এই সমাবেশের আয়োজন করে বিএনপির অন্যতম অঙ্গসংগঠন জাতীয়তাবাদী মুক্তিযোদ্ধা দল। জাতীয়তাবাদী মুক্তিযোদ্ধা দলের সভাপতি ইশতিয়াক আজিজ উলফাতের সভাপতিত্বে সমাবেশে দলের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, ভাইস চেয়ারম্যান হাফিজ উদ্দিন আহমেদ, বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম বীরপ্রতীক প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

অন্যরা য়া পড়ছে...

Loading...



চেক

বিকল্পের সন্ধানে কোটা বাতিলের প্রজ্ঞাপনে দেরি হচ্ছে : ওবায়দুল কাদের

ঢাকা, ১৩ মে ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঘোষণা অনুযায়ী সরকারি চাকরিতে কোটা …

স্যাটেলাইট মহাকাশে ঘোরায় বিএনপির মাথাও ঘুরছে : মোহাম্মদ নাসিম

ফেনী, ১৩ মে ২০১৮ইং (বাংলা-নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম): বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ মহাকাশে উৎক্ষেপণ হওয়ায় বিএনপির মাথাও ঘুরছে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

My title page contents